শিরোনাম :
‘বঙ্গবন্ধু আওয়ামী আইনজীবী পরিষদ সমর্থিত -সম্মিলিত আইনজীবী সমন্বয় পরিষদ’ কর্তৃক মনোনীত সাদা প্যানেলের নিরঙ্কুশ বিজয় বাংলাদেশ বার কাউন্সিল নির্বাচনে ড. ওয়াজেদ মিয়ার স্মরণ ও রূহের মাগফিরাত কামনায় দোয়া মাহফিল –আওয়ামী ওলামা লীগ । সাম্প্রদায়িকাতা নয় বঙ্গবন্ধু’র দেখানো পথেই ওলামা লীগ মাদরাসা শিক্ষা ব্যবস্থায়েও বাংলা ভাষার চর্চা গৌণ সিনহা হত্যা: বরখাস্ত ওসি প্রদীপ, ইন্সপেক্টর লিয়াকতের মৃত্যুদণ্ড । চট্রগ্রামের জালালাবাদ মাদরাসায় প্রধানমন্ত্রীর জন্য বিশেষ দোয়া ফেনী-২ আসন থেকে ৩ বার নির্বাচিত সংসদ সদস্য, বীর মুক্তিযোদ্ধা জয়নাল আবেদীন হাজারী ইন্তেকাল করেছেন প্রস্তুত ঢাকা নগর পরিবহন বাঙ্গালী জাতিকে মেধাশূন্য করতে চেয়েছিল পাকিস্তানী হানাদার বাহিনী আ. লীগের কেন্দ্রীয় ধর্ম বিষয়ক উপ-কমিটি’র সদস্য হলেন মুফতী মাসুম বিল্লাহ নাফিয়ী
ব্রেকিং নিউজ :
২৮ মে ২০২২, ০২:২৩ অপরাহ্ন

জাতীয়

                         
বিএম ২৪ টিভির পক্ষ থেকে আন্তরিক শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন

‘বঙ্গবন্ধু আওয়ামী আইনজীবী পরিষদ সমর্থিত -সম্মিলিত আইনজীবী সমন্বয় পরিষদ’ কর্তৃক মনোনীত সাদা প্যানেলের নিরঙ্কুশ বিজয় বাংলাদেশ বার কাউন্সিল নির্বাচনে।
সর্বমোট ১৪ টি আসনের মধ্যে ১১ টি তে আওয়ামী লীগ সমর্থীত প্রার্থীরা বিজয়ী হয়েছেন।
বাংলাদেশ বার কাউন্সিল নির্বাচন ২০২২
৭টি সাধারন আসনে ৫ টি এবং ৭ টি গ্রুপ আসনের মধ্যে ৬ টিতে তথা- ১৪টি আসনের মধ্যে ১১টি আসনে সংখ্যাগরিষ্ঠতার সহিত সাদা প্যানেল অর্থাৎ আওয়ামীপন্থী বিজ্ঞ সদস্যগণকে আগামী ৩ বছরের জন্য সদস্য পদে নির্বাচিত করেছেন সারা বাংলাদেশের সাধারণ আইনজীবীরা।
সাধারন আসন
১. সৈয়দ রেজাউর রহমান
২.মোখলেসুর রহমান বাদল
৩. সাঈদ আহমেদের রাজা
৪. রবিউল আলম বুদূ
৫. কামরুল ইসলাম ( এমপি )
গ্রুপ আসন
৫. আব্দুল বাতেন (ঢাকা)
৬. মোহাম্মদ জালাল উদ্দিন খান ( টাঙ্গাইল/ফরিদপুর/ময়মনসিংহ )
৭. রুহুল আনাম চৌধুরী মিন্টু  ( কুমিল্লা/সিলেট )
৮. আনিস উদ্দিন আহমেদ সহীদ ( বরিশাল/খুলনা/পটুয়াখালী )
৯. মোঃ একরামুল হক ( রাজশাহী/যশোর/কুষ্টিয়া )
১০. মোঃ আব্দুর রহমান ( পাবনা/সিরাজগঞ্জ/রংপুর/দিনাজপুর )
আইনজীবীদের আস্থা আর ভালবাসার ঠিকানা বঙ্গবন্ধু আওয়ামী আইনজীবী পরিষদ।

‘বঙ্গবন্ধু আওয়ামী আইনজীবী পরিষদ সমর্থিত -সম্মিলিত আইনজীবী সমন্বয় পরিষদ’ কর্তৃক মনোনীত সাদা প্যানেলের নিরঙ্কুশ বিজয় বাংলাদেশ বার কাউন্সিল নির্বাচনে

ড. ওয়াজেদ মিয়ার স্মরণ ও রূহের মাগফিরাত কামনায় দোয়া মাহফিল –আওয়ামী ওলামা লীগ ।

৯ মে ২০২২ সোমবার বাংলাদেশ আওয়ামী ওলামা লীগ কেন্দ্রীয় কমিটির আয়োজনে হাইকোর্ট শরফ উদ্দিন চিশতী রাহঃ জামে মসজিদ এ বা’দ আসর বঙ্গবন্ধু ও খেখ ফজিলাতুন্নেছার জামাতা, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার স্বামী, মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক আন্তর্জাতিক পরমাণু বিজ্ঞানী ড. এম এ ওয়াজেদ মিয়া’র ১৩ তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষ্যে তার স্মরণ ও রূহের মাগফিরাত কামনায় আলোচনা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত।
বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় সংগ্রামী সাধারণ সম্পাদক হাফেজ মাওলানা আনোয়োর হোসেন জুয়েলের সঞ্চলনায় অনুষ্ঠানে ছিলেন, প্রধান অতিথি স্বাধীনতা পুরুস্কার প্রাপ্ত ইতিহাসবিদ সিরাজ উদ্দিন আহমেদ, প্রধান আলোচক, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ কেন্দ্রীয় উপ-কমিটি’র সদস্য জননেতা বেলাল নূরী, বিশেষ অতিথি ওলামা লীগের কার্যকরি সভাপতি মাওলানা আনোয়ার শাহ, বাংলাদেশ তাঁতী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক খান নুর এ খোদা মন্জু, ওলামা লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হাফেজ মাওলানা ইদ্রিচ আলম আল-কাদেরী, হাফেজ মাওলানা জাহাঙ্গীর আলম নূরী হুজুর প্রমূখ।

ড. ওয়াজেদ মিয়ার স্মরণ ও রূহের মাগফিরাত কামনায় দোয়া মাহফিল –আওয়ামী ওলামা লীগ ।

সাম্প্রদায়িকাতা নয় বঙ্গবন্ধু’র দেখানো পথেই ওলামা লীগ ১৫ এপ্রিল ২০২২ শুক্রবার ১৩ রমাদান সেগুনবাগিচা মধুরিমা রেস্তোরায় “মাহে রমাদানের শিক্ষা ও সংযম হউক মানবিক জীবন গড়ার পাথেয়” এই শিরোনামে বাংলাদেশ আওয়ামী ওলামা লীগ কেন্দ্রীয় কমিটির ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত। সংগঠনের সভাপতি মুফতী মাসুম বিল্লাহ নাফিয়ীর সভাপতিত্বে সাধারণ সম্পাদক হাফেজ মাওলানা মুহাম্মদ আনোয়ার হোসেন জুয়েলের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত ইফতার মাহফিলে প্রধান অতিথি হিসেবে ছিলেন, বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ হিন্দু বৌদ্ধ খ্রীষ্টান ঐক্য পরিষদের সভাপতি প্রফেসর ড, নিম চন্দ্র ভৌমিক, প্রধান আলোচক, বঙ্গবন্ধু শিক্ষা ও গবেষণা পরিষদের সাধারণ সম্পাদক প্রফেসর সিজারাজুল হক আলো, বিশেষ অতিথি বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ উপ-কমিটির সদস্য বেলাল নূরী, অনলাইন অ্যাক্টিভিস্ট ফোরামের সভাপতি কবীর চৌধিরী তন্ময়, কৃষক লীগের কেন্দ্রীয় ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক আলমগীর হোসেন, প্রফেসর সিদ্দিকুর রহমান, ওলামা লীগের কার্যকরি সভাপতি মাওলানা আনোয়ার শাহ, সিনিয়র সহ-সহ-সভাপতি মুফতী আল্লামা খলিলুর রহমান জিহাদী, মুখপাত্র ক্বারী মাওলানা আসাদুজ্জামান, যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক হাফেজ মাওলানা ইদ্রিছ আলম আলকাদেরী, মুফতী তৈয়বুর রহমান, বায়তুল ফজল মাদরাসার অধ্যক্ষ মাওলানা গোলাম মাওলা, মাওলানা মুহাম্মদ উল্লাহ মিরাজ,মাওলানা মিজানুর রহমান প্রমুখ। প্রধান অতিথি বলেন, সকল ধর্ম বর্ণের বাঙ্গালি জনগোষ্ঠীর আত্মত্যাগের মাধ্যমেই আমাদের স্বাধীনতা।

আর অসম্প্রদায়িক চেতনা নিয়েই সে স্বাধীনতার ডাক দিয়েছিলেন সর্বকালের শ্রেষ্ঠ বাঙ্গালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। আমি যতটুকু জানি সাম্প্রদায়িকাতা নয় বঙ্গবন্ধু’র দেখানো পথেই ওলামা লীগ। আমি বিশ্বাস করি সম্প্রীতির পথে আমরা অটুটভাবে হাটলেই বিশ্ব মানবতার মা বঙ্গকন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বঙ্গবন্ধু’র স্বপ্নের সোনার বাংলা নির্মাণ করতে বেশী সময় লাগবেনা।

দেশ আজ উন্নয়নের মহাসড়কে। দ্রুত উন্নত দেশে রূপান্তরিত হওয়ার পথে বাংলাদেশ। এছাড়াও আমরা সকল ধর্মের প্রতি আমরা শ্রদ্ধাশীল। অতীতের ন্যায় আগামীতেও ওলামা লীগ আরো সাংগঠনিক শক্তি সঞ্চয় করে মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় এগিয়ে যাবে। ইফতার মাহফিলে আমাদের অংশগ্রহণেই তা প্রমাণ করে। প্রফেসর জিরাজুল হক আলো বলেন, ওলামী লীগের কার্যক্রম শুধু রাজপথে আর ইফতার মাহফিলা সীমাবদ্ধ রাখলে চলবেনা।

প্রতিটি মাদরাসায় ওলামা লীগের কমিটি গঠন করতে হবে। মাদরাসার শিক্ষক ও ছাত্রদেরকে জাতির পিতার আদর্শে উদ্বুদ্ধ করতে হবে। মুক্তিযুদ্ধের চেতনার সাথে ইসলামের কোন সাংঘর্ষিকতা নেই সে বিষয়টি বুঝাতে হবে। বঙ্গবন্ধু ও আওয়ামী লীগ ইসলাম তথা ধর্মবিরোধী নয় ধর্মের স্বাধীনতায় বিশ্বাসী। অর্থাৎ ধর্ম যারযার বাংলাদেশ সবার। যারা ধর্মের নামে সাম্প্রদায়িকতা সৃষ্টির মাধ্যমে দেশের উন্নয়কে বাঁধাগ্রস্ত করতে চায় তাদেরকে রুখে দিতে হবে। ওলামা লীগকে এগিয়ে যেতে হবে অনেক দূর।

তাই ওলামা লীগকেই কার্যক্রমের মধ্য দিয়ে প্রমাণ করতে হবে আমরা বঙ্গবন্ধু’র অসম্প্রদায়িক চেতনায় বিশ্বাসী। তৃর্ণমূলে ওলামা লীগের চাহিদা রয়েছে। আমি প্রত্যাশা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী সেই বিষয়টি বিবেচনা করে ওলামা লীগ তথা ওলামা লীগের মূল্যায়ন করবেন ইনশাআল্লাহ। এছাড়াও ইফতার মাহফিলে অন্যান্য অতিথিগণ বক্তব্য রাখেন।

ইফতার পূর্ব দোয়ায় শহীদ বীর মুক্তিযোদ্ধা ও শহীদ জাতির পিতা এবং জাতির পরিবার, জাতীয় চার নেতা, গ্রেনেড হামলায় নিহত নারী নেত্রী আইভি রহমান সহ সকল নিহতদের রূহের শান্তি কামনা করা হয়। তাছাড়াও দোয়ায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রী সুস্বাস্থ্যসহ নিরাপদ দীর্ঘায়ু জীবন কামনা করে।

সাম্প্রদায়িকাতা নয় বঙ্গবন্ধু’র দেখানো পথেই ওলামা লীগ

মাদরাসা শিক্ষা ব্যবস্থায়েও বাংলা ভাষার চর্চা গৌণ : ওলামা লীগ স্টাফ করেসপন্ডেন্ট স্কুল-কলেজের পাশাপাশি মাদরাসা শিক্ষা ব্যবস্থায়েও বাংলা ভাষার চর্চা গৌণ বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশ আওয়ামী ওলামা লীগের নেতারা৷ রবিবার (১৩ ফেব্রুয়ারি) জাতীয় মসজিদ বায়তুল মেকাররমে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষ্যে ভাষাশহীদ ও ভাষাযোদ্ধাদের জন্য বিশেষ দোয়ার পূর্বে বক্তারা এসব কথা বলেন। যোহর নামাজের পর ভাষাশহিদদের জন্য বিশেষ দোয়া করা হয়। ওলামা লীগের নেতারা বলেন, মাতৃভাষা আল্লাহ সোবহানাহু তা’য়ালার একটি নিয়ামত। ভাষা। ইসলামেও ভাষা শিক্ষা, ভাষার ব্যবহার ও মাতৃভাষায় ইসলাম চর্চা করার বেশ গুরুত্ব আরোপ করা হয়েছে। ১৯৫২ সালের ভাষা আন্দোলনের মূল লক্ষ্য সর্বস্তরে বাংলা ভাষার প্রবর্তন, তা আজও পূরণ হয়নি। সরকারি কাজকর্মে বাংলা চালু থাকলেও ব্যবসা-বাণিজ্য, উচ্চশিক্ষা, গবেষণাসহ নানা গুরুত্বপূর্ণ ক্ষেত্রে ইংরেজির প্রাধান্য লক্ষণীয়। ইংরেজি ভিনদেশী ভাষা। বাংলায় আইন প্রণীত হলেও উচ্চ আদালতে এখনো বাংলা চালু হয়নি। শিক্ষিত তরুণ-তরুণীদের একাংশ মাতৃভাষা বাংলার পরিবর্তে ইংরেজি রপ্ত করতেই বেশি আগ্রহী। শিশুদের শিক্ষাক্ষেত্রে ইংরেজি মাধ্যমের প্রসার ঘটে চলেছে, সাধারণ বিদ্যালয়েও বাংলা অবহেলিত। মাদরাসা শিক্ষা ব্যবস্থায়েও বাংলা ভাষার চর্চা গৌণ। ওলামা লীগের সভাপতি মুফতী মাসুম বিল্লাহ নাফিয়ী বলেন, ভাষাশহীদ ও ভাষাযোদ্ধারা আমাদের অন্তহীন প্রেরণার উৎস। মাতৃভাষার দাবিতে বাঙালি তরুণদের সেদিনের আত্মদান শুধু ভাষার অধিকার প্রতিষ্ঠার মধ্যে সীমাবদ্ধ থাকেনি, ক্রমেই একটি গণতান্ত্রিক ও ন্যায়ভিত্তিক আধুনিক রাষ্ট্রব্যবস্থার স্বপ্ন ও অঙ্গীকার দানা বেঁধেছিল। সে স্বপ্নই স্বাধীনতাসংগ্রাম, সশস্ত্র মুক্তিযুদ্ধসহ ইতিহাসের প্রতিটি গুরুত্বপূর্ণ পর্যায়ে আমাদের পথ দেখিয়েছে। ভাষা আন্দোলন আজ আন্তর্জাতিক অঙ্গনে স্বীকৃত। দিবসটি এখন আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসও বটে। মাতৃভাষা বাংলার জন্য বাঙালির আত্মত্যাগের মহিমা ছড়িয়ে পড়েছে পৃথিবীর পরিমণ্ডলে। বিশ্বের প্রতিটি জনগোষ্ঠীর নিজ নিজ মাতৃভাষা সংরক্ষণ ও বিকাশের বিষয়টি তাদের রাজনৈতিক অধিকারের গুরুত্বপূর্ণ অংশ হিসেবে বিবেচিত। ওলামা লীগের সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার হোসাইন জুয়েল বলেন, মাতৃভাষাযোদ্ধাদের একসাগর রক্তের মধ্য দিয়ে অর্জিত অমর একুশে ফেব্রুয়ারি। প্রাণপ্রিয় মাতৃভাষা বাংলাকে রাষ্ট্রীয় ভাষার মর্যাদায় প্রতিষ্ঠিত করার আন্দোলনে পাকিস্তানী স্বৈরাচারী সরকারের পুলিশের গুলিতে সেই দিন শহীদ হন সালাম, রফিক, জব্বার, বরকত ও শফিকসহ অনেকে। পরিতাপের বিষয় হলো আজ বিদেশী ভাষার আগ্রাসনে বাংলা ভাষার মর্যাদা রক্ষা হচ্ছে না। তাই সর্বস্তরে বাংলা ভাষা চালুর জন্য মহান ২১ ফেব্রুয়ারির ভাষা আন্দোলনের চেতনাকে সামাজিক আন্দোলনে রূপান্তরিত করতে হবে। আর তা করতে পারলেই সর্বক্ষেত্রে বাংলাভাষার ব্যবহার সুনিশ্চিত করা যাবে বলে আমরা বিশ্বাস করি। দোয়া ও মুনাজাত পরিচালনা করেন জাতীয় মসজিদের ইমাম মুফতী হাফেজ মাওলানা মুহিব উল্লাহ হিল বাকী। মুনাজাতে ভাষাশহীদ ও ভাষাযোদ্ধাদের রুহের মাগফিরাত কামনাসহ জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও ১৫ আগষ্ট যারা শাহাদাৎ বরণ করেছেন তাদের এবং মহান মুক্তিযুদ্ধে শহীদ ও জাতীয় চার নেতারও রুহের মাগফিরা কামনা করা হয়। এছাড়াও মুনাজাতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সুস্বাস্থ্য, দীর্ঘায়ু কামনার পাশাপাশি করা হয়। দোয়া মাহফিলে অংশগ্রহণ করেন, সাবেক সচিব সিরাজ উদ্দীন আহমেদ, জাতীয় গণতান্ত্রিক লীগের সভাপতি এম এ জলিল, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ উপ-কমিটির সদস্য জননেতা বেলাল নূরী বাংলাদেশ কার্যকরী সভাপতি মাওলানা আনোয়ার শাহ, সিনিয়র সহ-, হাফেজ মাওলানা ইদ্রিচ আলম আল কাদেরী, মুফতী আব্দুল আলিম বিজয়নগরী, হাফেজ মাওলানা শামসুল আলম জাহাঙ্গীর নূরানী হুজুর, হাফেজ মাওলানা সাঈফুল ইসলাম, মাওলানা মোঃ আব্দুল মুবিন আখন্দ, হাফেজ মাওলানা মাহবুবুর রহনান, নাফি উদ্দিন উদয়, শাফি উদ্দিন বিনয় প্রমুুখ।

মাদরাসা শিক্ষা ব্যবস্থায়েও বাংলা ভাষার চর্চা গৌণ

সিনহা হত্যা: বরখাস্ত ওসি প্রদীপ, ইন্সপেক্টর লিয়াকতের মৃত্যুদণ্ড । ১৫ আসামির উপস্থিতিতে রায় ঘোষণা করেন বিচারক , ১৯ মাস পর চাঞ্চল্যকর এ মামলার রায় ঘোষণা হলো, পরিদর্শক লিয়াকতের গুলিতে নিহত হন মেজর (অব.) সিনহা ৩ এপিবিএন সদস্যসহ ৭ জনকে বেকসুর খালাস দেন আদালত ।

সিনহা হত্যা: বরখাস্ত ওসি প্রদীপ, ইন্সপেক্টর লিয়াকতের মৃত্যুদণ্ড ।

জালালাবাদ মাদরাসায় আওয়ামী লীগের সভাপতি প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন জননেত্রী শেখ হাসিনার সুস্বাস্থ্য ও দীর্ঘায়ু কামনা করে বিশেষ দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে ।  মাদরাসার আয়োজিত মাহফিলে সভাপতিত্ব ও দোয়া পরিচালনা করেন অত্র জালালাবাদ মাদরাসার প্রতিষ্ঠাতা দেশবরেণ্য হাফেজ বিশিষ্ট ইসলামিক চিন্তাবিদ আলহাজ্ব হাফেজ মুহাম্মদ তৈয়ব, প্রধান অতিথি হিসেবে অংশগ্রহণ করেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ধর্ম বিষয়ক উপ-কমিটির সদস্য ওলামা লীগের কেন্দ্রীয় সভাপতি মুফতী মাসুম বিল্লাহ নাফিয়ী, ওলামা লীগের কেন্দ্রীয় নেতা হাফেজ মাওলানা ইদ্রিস, মাদরাসার মুহতামিম মাওলানা মুহাম্মদ মুশতাক, চট্রগ্রাম ওলামা লীগ নেতা মাওলানা আব্দুর রহীম ও হাফেজ মাওলানা নেজাম প্রমুখ। দোয়া পূর্ব মাহফিলে প্রধান অতিথি মুফতী মাসুম বিল্লাহ নাফিয়ী বলেন, আপনারা আজ মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার জন্য দোয়া-মাহফিলের আয়োজন করেছেন এতে আমি অনেক আনন্দিত। কেননা আপনারা দোয়া মাহফিলের মাধ্যমে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছেন। বঙ্গকন্যা দেশরত্ন শেখ হাসিনা কওমী মাদরাসার শিক্ষা সনদের এমএ সমমানের স্বীকৃতি দিয়ে আপনাদেরকে যে সম্মানিত করে মর্যাদার আসনে বসিয়েছেন তারই কৃতজ্ঞতায় এই দোয়া-মাহফিল। তিনি আরও বলেন, প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা ইসলামের মূল শিক্ষার প্রতি আন্তরিক এবং শ্রদ্ধাশীল। তিনি ইতিমধ্যে কওমী সনদের স্বীকৃতি, আরবী বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা ও পাঁচশত ৬০টি মডেল মসজিদ প্রতিষ্ঠাসহ পঁচাত্তর হাজার কোরআন শিক্ষা কেন্দ্র স্থাপন করে তা প্রমাণ করেছেন। মুফতী মাসুম বিল্লাহ নাফিয়ী আরও বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানও ইসলামের প্রচার-প্রসারের জন্য ইসলামিক ফাউন্ডেশন প্রতিষ্ঠাসহ ইসলামের খেদমতে বহুমুখী অবদান রেখেছেন। কৃতজ্ঞতার দোয়া-মাহফিল চার দালানের ভিতর সীমাবদ্ধ রাখলে চলবেনা। শেখ হাসিনা ইসলামের জন্য বহুমুখী যে খেদমত করে যাচ্ছে তা মসজিদ মাদরাসার বাহিরেও ওয়াজ মাহফিলের মাধ্যমে জনগণের মাঝে তুলে ধরবেন। তাহলেই কৃতজ্ঞতার প্রকৃত হক আদায় হবে বলে আমি বিশ্বাস করি। আওয়ামী লীগের ধর্ম উপকমিটির সদস্য বলেন, ইসলামের অপব্যাখা করে একশ্রেণীর ক্ষমতালোভী স্বাধীনতাবিরোধী চক্র আওয়ামী লীগ তথা সরকারের বিরুদ্ধে নানামুখী ষড়যন্ত্রে লিপ্ত। তারা তাদের চক্রান্ত বাস্তবায়নে সরলমনা আলেম-ওলামাদেরকে মিথ্যাচারের মাধ্যমে উস্কানি দিয়ে বিভ্রান্ত করে অতীতের ন্যায় মাঠে নামানোর অপচেষ্টাও করতে পারে। আশা করি আপনারা সে চক্রান্তে পা না দিয়ে চলমান উন্নয়ন অগ্রগতির ধারা অব্যাহত রাখার স্বার্থে ও দেশের শান্তি-সম্প্রীতি রক্ষায় নাগরিকের দায়িত্ববোধে সজাগ থেকে দায়িত্ব পালন করে যাবেন ইনশাআল্লাহ। ধর্ম যারযার রাষ্ট্র সবার সম্মানিত আলেম সমাজকে এই বিষয়টিও মাথায় রাখতে হবে। আমরা চাই আগামীতে বীর চট্রলায় সর্বজনশ্রদ্ধীয় হুজুর হাফেজ তৈয়ব সাহেবের নেতৃত্ব দেশপ্রেমিক আলেম সমাজের এক অটুট ঐক্য গড়ুক। যে নেতৃত্বের মাধ্যমে গড়ে উঠবে মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উদ্বুদ্ধ তরুণ আলেম সমাজের বহর। যারা অন্যায়ের প্রতিবাদে ভূমিকা রাখবে সাইয়্যেদানা উমর ইবনে খাত্তাব রাঃ ন্যায় আর অধিকার আদায়ে ভুমিকা রাখবে বিশ্বে শোষিত গণমানুষের নেতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের মতো। হাফেজ মুহাম্মদ তৈয়ব দোয়ায় আল্লাহ সোবহানাহু তা’য়ালার দরবারে প্রধানমন্ত্রী’র সুস্বাস্থ্য ও দীর্ঘায়ু কামনা ছাড়াও সকল শহীদ মুক্তিযুদ্ধ, বঙ্গবন্ধুসহ পঁচাত্তরের শাহাদাতবরণ কারী সকল শহীদ ও জাতীয় চারনেতা এবং একুশে আগস্ট গ্রেনেড হামলায় নিহত নারী নেত্রী আইভী রহমানসহ সকল শহীদদের রুহের শান্তি কামনা করেন। এছাড়াও মুনীজাতে দেশের শান্তি, উন্নয়ন-অগ্রগতিকে স্মরণ করে প্রধানমন্ত্রীসহ সরকারের সকল দায়িত্বশীল ব্যক্তিবর্গের কথা উল্লেখ করা হয়।

চট্রগ্রামের জালালাবাদ মাদরাসায় প্রধানমন্ত্রীর জন্য বিশেষ দোয়া

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের উপদেষ্ঠা মন্ডলীর সদস্য, ফেনী জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক, ফেনী-২ আসন থেকে ৩ বার নির্বাচিত সংসদ সদস্য, বীর মুক্তিযোদ্ধা জয়নাল আবেদীন হাজারী গতকাল বিকেল ৫ঃ৩০ মিনিটে রাজধানীর ল্যাব এইড হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ইন্তেকাল করেছেন, ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন। মরহুমের রুহের মাগফেরাত ও শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি বিএম ২৪ টিভির পক্ষ থেকে গভীর সমবেদনা জানাচ্ছি।

ফেনী-২ আসন থেকে ৩ বার নির্বাচিত সংসদ সদস্য, বীর মুক্তিযোদ্ধা জয়নাল আবেদীন হাজারী ইন্তেকাল করেছেন

প্রস্তুত ঢাকা নগর পরিবহন

গণপরিবহনে বিশৃঙ্খলা দূর করতে বাস রুট রেশনালাইজেশন কার্যক্রমের অংশ হিসেবে চালু হচ্ছে ঢাকা নগর পরিবহন। রোববার (২৬ ডিসেম্বর) রাজধানীর মোহাম্মদপুর এলাকা থেকে এর উদ্বোধন করা হবে। কেরানীগঞ্জের ঘাটারচর থেকে কাঁচপুর পর্যন্ত প্রায় ২১ কিলোমিটারের রুটে বিআরটিসির বাসের পাশাপাশি সবুজ রঙের বাস নিয়ে ঢাকা নগর পরিবহন যাত্রা শুরু করছে। এরইমধ্যে বাসগুলো প্রস্তুত করা হয়েছে। ফুল দিয়ে সাজানোও হয়েছে। বাসগুলো যেখানে রাখা হয়েছে, তার পাশেই তৈরি করা হয়েছে বিশাল উদ্বোধনী মঞ্চ। জানা গেছে, ২১ কিলোমিটারের এ রুটে ঢাকা নগর পরিবহনের ৫০টি বাস নিয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে রেশনালাইজেশন কার্যক্রম শুরু হবে। এ রুটে কিলোমিটারপ্রতি ভাড়া পড়বে দুই টাকা ২০ পয়সা। জানা গেছে, প্রথমে ৫০টি বাস নিয়ে যাত্রা শুরু হলেও কিছু দিনের মধ্যে এ রুটে মোট ১০০টি বাস চলাচল করবে।

প্রস্তুত ঢাকা নগর পরিবহন

আন্তর্জাতিক

সিনহা হত্যা: বরখাস্ত ওসি প্রদীপ, ইন্সপেক্টর লিয়াকতের মৃত্যুদণ্ড । ১৫ আসামির উপস্থিতিতে রায় ঘোষণা করেন বিচারক , ১৯ মাস পর চাঞ্চল্যকর এ মামলার রায় ঘোষণা হলো, পরিদর্শক লিয়াকতের গুলিতে নিহত হন মেজর (অব.) সিনহা ৩ এপিবিএন সদস্যসহ ৭ জনকে বেকসুর খালাস দেন আদালত ।

সিনহা হত্যা: বরখাস্ত ওসি প্রদীপ, ইন্সপেক্টর লিয়াকতের মৃত্যুদণ্ড ।

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের উপদেষ্ঠা মন্ডলীর সদস্য, ফেনী জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক, ফেনী-২ আসন থেকে ৩ বার নির্বাচিত সংসদ সদস্য, বীর মুক্তিযোদ্ধা জয়নাল আবেদীন হাজারী গতকাল বিকেল ৫ঃ৩০ মিনিটে রাজধানীর ল্যাব এইড হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ইন্তেকাল করেছেন, ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন। মরহুমের রুহের মাগফেরাত ও শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি বিএম ২৪ টিভির পক্ষ থেকে গভীর সমবেদনা জানাচ্ছি।

ফেনী-২ আসন থেকে ৩ বার নির্বাচিত সংসদ সদস্য, বীর মুক্তিযোদ্ধা জয়নাল আবেদীন হাজারী ইন্তেকাল করেছেন

বাংলাদেশে খেলতে এসে শুরুটা দুঃস্বপ্নের মতো হলো সফরকারী নিউজিল্যান্ডের। প্রথম টি-টোয়েন্টিতে বুধবার (১ সেপ্টেম্বর) বাংলাদেশের বোলারদের বিপক্ষে ব্যাট হাতে পুরোপুরি ব্যর্থ কিউই ব্যাটসম্যানরা। সাকিব-মেহেদীদের ঘূর্ণিতে শুরু থেকেই ম্যাচের নাটাই টিম টাইগার্সের হাতের মুঠোয় ছিল। ধুঁকতে ধুঁকতে শেষ পর্যন্ত কিউইদের ইনিংস থামে মাত্র ৬০ রানে।

এদিকে, ব্যাটিং বিপর্যয়ে নিজেদের সর্বনিম্ন রানের রেকর্ড স্পর্শ করেছে কিউইরা। এর আগে ২০১৪ সালে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষেও ৬০ রানে অলআউট হয়েছিল টম লাথামরা। এদিন বাংলাদেশের বোলাররা আবারো নিউজিল্যান্ডকে সেই লজ্জায় ডোবাল।

বাংলাদেশের বোলাররা ব্যাটসম্যানদের জন্য কাজটা সহজই করে দিলো। নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে প্রথম জয়ের স্বাদ পেতে হলে করতে হবে ৬১ রান।

কিউইদের সর্বনিম্ন রানের লজ্জায় ডোবাল টাইগাররা ইনিংস থামে মাত্র ৬০ রানে

পল্লবী থানায় করা টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ আইনের মামলায় গ্রেপ্তার আওয়ামী লীগের বহিষ্কৃত নেত্রী হেলেনা জাহাঙ্গীরকে জামিন দিয়েছেন আদালত। ঢাকার চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট (সিএমএম) আদালত আজ মঙ্গলবার শুনানি নিয়ে এ আদেশ দেন।

ঢাকা মহানগর পুলিশের অপরাধ ও তথ্য বিভাগের উপপরিদর্শক (এসআই) মোহাম্মদ সেলিম মিয়া প্রথম আলোকে এ তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করেন। আদালতসংশ্লিষ্ট সূত্র বলছে, গত ২৯ জুলাই রাজধানীর গুলশান থেকে বিদেশি মদসহ গ্রেপ্তার হন হেলেনা জাহাঙ্গীর।

হেলেনা জাহাঙ্গীরকে জামিন দিয়েছেন আদালত

সারা দেশে লকডাউনের বিধিনিষেধ শিথিল হওয়ায় চলবে বুধবার (১১ আগস্ট) থেকে বাস, ট্রেনসহ সব ধরনের গণপরিবহন। খুলবে দোকানপাট ও রেস্টুরেন্ট। রোববার এ বিষয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করেছে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ।

প্রজ্ঞাপন জারির পর থেকে সড়কে নামতে প্রস্তুতি নিতে শুরু করেছে পরিবহন কোম্পানিগুলো। বিক্রি হচ্ছে অগ্রিম টিকিটও। এ ছাড়া পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতার কাজে ব্যস্ত দোকান ও রেস্টুরেন্ট কর্তৃপক্ষ।

ঈদুল আজহার পর টানা ১৯ দিন কঠোর লকডাউনের বিধিনিষেধ উঠছে বুধবার থেকে। রোববার (৮ আগস্ট) দেশব্যাপী লকডাউনের শিথিলতার বিষয়ে এক প্রজ্ঞাপন জারি করে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ। এরপর থেকেই পরিবহন খাতের দীর্ঘ স্থবিরতায় ফিরে প্রাণ-চাঞ্চল্যতা।
প্রস্তুতির অংশ হিসেবে সোমবার (৯ আগস্ট) থেকেই চলছে নানা প্রস্তুতি। সকালে রাজধানীর বাস টার্মিনালগুলো ঘুরে দেখা গেছে, শ্রমিকরা বাস ধোয়ামোছার কাছে ব্যস্ত সময় পার করছেন। পরীক্ষা-নিরীক্ষা করা হচ্ছে যন্ত্রপাতি। রং করে বাস চলাচলের প্রস্তুতি নেওয়া হচ্ছে। 

প্রজ্ঞাপন জারির পর থেকে সড়কে নামতে প্রস্তুতি নিতে শুরু করেছে পরিবহন কোম্পানিগুলো।

করোনা সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে সরকারের জারি করা কঠোর বিধিনিষেধের সময়সীমা শেষ হওয়ার এক দিন আগেই আজ সোমবার রাজধানীর সড়কে প্রচুর যানবাহন নেমেছে। বাস ছাড়া প্রায় সব ধরনের যানবাহন সড়কে চলছে। যানবাহনের চাপে রাজধানীর বিভিন্ন সড়কে স্থাপিত পুলিশ তল্লাশিকেন্দ্রগুলো অনেকটাই নিষ্ক্রিয় হয়ে গেছে। রাজধানীর বিভিন্ন সড়কে দেখা গেছে যানজট।

চলমান কঠোর বিধিনিষেধ শুরু হয় ২৩ জুলাই সকালে। চলবে কাল মঙ্গলবার দিবাগত রাত ১২টা পর্যন্ত। বুধবার থেকে শর্ত সাপেক্ষে অফিস, গণপরিবহনসহ সবকিছু খুলে দেওয়া হবে। এ বিষয়ে গতকাল রোববার আদেশ জারি করেছে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ।

প্রত্যক্ষদর্শীরা বলছেন, চলমান কঠোর বিধিনিষেধের মধ্যে আজ সকাল থেকেই রাজধানীর সড়কে যানবাহনের চলাচল অন্য দিনের তুলনায় অনেক বেড়ে গেছে। ব্যক্তিগত গাড়ির পাশাপাশি প্রচুরসংখ্যক মোটরসাইকেল, কাভার্ড ভ্যান, এমনকি সিএনজিচালিত অটোরিকশা সড়কে নেমেছে। আর রিকশা তো আছে। যানবাহনের ব্যাপক চাপে আজ সকাল থেকেই রাজধানীর বিভিন্ন সড়কে যানজট দেখা গেছে।

বিধিনিষেধের সময়সীমা শেষ হওয়ার এক দিন আগেই রাজধানীর সড়কে প্রচুর যানবাহন নেমেছে

চলছে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে বাংলাদেশের টি-টোয়েন্টি সিরিজ। যেখানে ইতিহাস গড়েছে টাইগাররা। প্রথম তিন ম্যাচ জিতে সিরিজ জয় আগেই নিশ্চিত করেছে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের দল।

যদিও ৪র্থ ম্যাচে শনিবার (৭ আগস্ট) শেষ মুহূর্তে কষ্টার্জিত জয় পেয়েছে অজিরা। সোমবার (৯ আগস্ট) অনুষ্ঠিত হবে সিরিজের ৫ম ও শেষ ম্যাচ। সিরিজ জয় নিশ্চিত হওয়ায়, শেষ ম্যাচে বাংলাদেশ একাদশে আসতে পারে একাধিক পরিবর্তন।
টানা চার ম্যাচে ওপেনিংয়ে ব্যর্থ সৌম্য সরকার। তার পরিবর্তে অন্য খেলোয়াড়কে সুযোগ দেওয়ার কথাও উঠেছে। বিশ্রাম দেওয়া হতে পারে আরও দু-একজনকে। তবে বিভিন্ন সূত্রের খবর শেষ ম্যাচে খেলবেন না সাকিব আল হাসান।
বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) কাছ থেকে ছুটি নিয়ে রোববার (৮ আগস্ট) রাতে যুক্তরাষ্ট্রে পরিবারের কাছে যাবেন বিশ্বের অন্যতম সেরা এই অলরাউন্ডার। তবে নিউজল্যান্ড সিরিজের আগেই দেশে ফিরবেন সাকিব।
 
তবে অজিদের বিপক্ষে ৫ ম্যাচ সিরিজে ৪র্থ ম্যাচে মোটেও ভালো করেননি সাকিব। ৬, ৬, ৬, ০, ৬, ৬! সাকিবের বলে মিরপুরে ঝড় তুলেন অস্ট্রেলিয়ান ব্যাটসম্যান ড্যানিয়েল ক্রিস্টিয়ান। লং অন, ওয়াইড লং অন, মিডউইকেট, মিডউইকেট, লং অন- এ অঞ্চল দিয়ে পাঁচটি ছক্কা মেরেছেন ক্রিস্টিয়ান। এদিন সাকিব ওই পাঁচটি বাদেও আরও একটি ছয় মেরেছেন ডানহাতি ব্যাটসম্যান। এতে ৩ উইকেটে জয় পায় অজিরা। যদিও ইতোমধ্যে প্রথম ৩টি ম্যাচ জিতে ইতোমধ্যেই সিরিজ নিজেদের করে নিয়েছে স্বাগতিক বাংলাদেশ।  

শেষ ম্যাচ খেলবেন না সাকিব! কিন্তু কেন?

রাজনীতি

                         
বিএম ২৪ টিভির পক্ষ থেকে আন্তরিক শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন

‘বঙ্গবন্ধু আওয়ামী আইনজীবী পরিষদ সমর্থিত -সম্মিলিত আইনজীবী সমন্বয় পরিষদ’ কর্তৃক মনোনীত সাদা প্যানেলের নিরঙ্কুশ বিজয় বাংলাদেশ বার কাউন্সিল নির্বাচনে।
সর্বমোট ১৪ টি আসনের মধ্যে ১১ টি তে আওয়ামী লীগ সমর্থীত প্রার্থীরা বিজয়ী হয়েছেন।
বাংলাদেশ বার কাউন্সিল নির্বাচন ২০২২
৭টি সাধারন আসনে ৫ টি এবং ৭ টি গ্রুপ আসনের মধ্যে ৬ টিতে তথা- ১৪টি আসনের মধ্যে ১১টি আসনে সংখ্যাগরিষ্ঠতার সহিত সাদা প্যানেল অর্থাৎ আওয়ামীপন্থী বিজ্ঞ সদস্যগণকে আগামী ৩ বছরের জন্য সদস্য পদে নির্বাচিত করেছেন সারা বাংলাদেশের সাধারণ আইনজীবীরা।
সাধারন আসন
১. সৈয়দ রেজাউর রহমান
২.মোখলেসুর রহমান বাদল
৩. সাঈদ আহমেদের রাজা
৪. রবিউল আলম বুদূ
৫. কামরুল ইসলাম ( এমপি )
গ্রুপ আসন
৫. আব্দুল বাতেন (ঢাকা)
৬. মোহাম্মদ জালাল উদ্দিন খান ( টাঙ্গাইল/ফরিদপুর/ময়মনসিংহ )
৭. রুহুল আনাম চৌধুরী মিন্টু  ( কুমিল্লা/সিলেট )
৮. আনিস উদ্দিন আহমেদ সহীদ ( বরিশাল/খুলনা/পটুয়াখালী )
৯. মোঃ একরামুল হক ( রাজশাহী/যশোর/কুষ্টিয়া )
১০. মোঃ আব্দুর রহমান ( পাবনা/সিরাজগঞ্জ/রংপুর/দিনাজপুর )
আইনজীবীদের আস্থা আর ভালবাসার ঠিকানা বঙ্গবন্ধু আওয়ামী আইনজীবী পরিষদ।

‘বঙ্গবন্ধু আওয়ামী আইনজীবী পরিষদ সমর্থিত -সম্মিলিত আইনজীবী সমন্বয় পরিষদ’ কর্তৃক মনোনীত সাদা প্যানেলের নিরঙ্কুশ বিজয় বাংলাদেশ বার কাউন্সিল নির্বাচনে

ড. ওয়াজেদ মিয়ার স্মরণ ও রূহের মাগফিরাত কামনায় দোয়া মাহফিল –আওয়ামী ওলামা লীগ ।

৯ মে ২০২২ সোমবার বাংলাদেশ আওয়ামী ওলামা লীগ কেন্দ্রীয় কমিটির আয়োজনে হাইকোর্ট শরফ উদ্দিন চিশতী রাহঃ জামে মসজিদ এ বা’দ আসর বঙ্গবন্ধু ও খেখ ফজিলাতুন্নেছার জামাতা, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার স্বামী, মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক আন্তর্জাতিক পরমাণু বিজ্ঞানী ড. এম এ ওয়াজেদ মিয়া’র ১৩ তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষ্যে তার স্মরণ ও রূহের মাগফিরাত কামনায় আলোচনা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত।
বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় সংগ্রামী সাধারণ সম্পাদক হাফেজ মাওলানা আনোয়োর হোসেন জুয়েলের সঞ্চলনায় অনুষ্ঠানে ছিলেন, প্রধান অতিথি স্বাধীনতা পুরুস্কার প্রাপ্ত ইতিহাসবিদ সিরাজ উদ্দিন আহমেদ, প্রধান আলোচক, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ কেন্দ্রীয় উপ-কমিটি’র সদস্য জননেতা বেলাল নূরী, বিশেষ অতিথি ওলামা লীগের কার্যকরি সভাপতি মাওলানা আনোয়ার শাহ, বাংলাদেশ তাঁতী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক খান নুর এ খোদা মন্জু, ওলামা লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হাফেজ মাওলানা ইদ্রিচ আলম আল-কাদেরী, হাফেজ মাওলানা জাহাঙ্গীর আলম নূরী হুজুর প্রমূখ।

ড. ওয়াজেদ মিয়ার স্মরণ ও রূহের মাগফিরাত কামনায় দোয়া মাহফিল –আওয়ামী ওলামা লীগ ।

সাম্প্রদায়িকাতা নয় বঙ্গবন্ধু’র দেখানো পথেই ওলামা লীগ ১৫ এপ্রিল ২০২২ শুক্রবার ১৩ রমাদান সেগুনবাগিচা মধুরিমা রেস্তোরায় “মাহে রমাদানের শিক্ষা ও সংযম হউক মানবিক জীবন গড়ার পাথেয়” এই শিরোনামে বাংলাদেশ আওয়ামী ওলামা লীগ কেন্দ্রীয় কমিটির ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত। সংগঠনের সভাপতি মুফতী মাসুম বিল্লাহ নাফিয়ীর সভাপতিত্বে সাধারণ সম্পাদক হাফেজ মাওলানা মুহাম্মদ আনোয়ার হোসেন জুয়েলের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত ইফতার মাহফিলে প্রধান অতিথি হিসেবে ছিলেন, বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ হিন্দু বৌদ্ধ খ্রীষ্টান ঐক্য পরিষদের সভাপতি প্রফেসর ড, নিম চন্দ্র ভৌমিক, প্রধান আলোচক, বঙ্গবন্ধু শিক্ষা ও গবেষণা পরিষদের সাধারণ সম্পাদক প্রফেসর সিজারাজুল হক আলো, বিশেষ অতিথি বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ উপ-কমিটির সদস্য বেলাল নূরী, অনলাইন অ্যাক্টিভিস্ট ফোরামের সভাপতি কবীর চৌধিরী তন্ময়, কৃষক লীগের কেন্দ্রীয় ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক আলমগীর হোসেন, প্রফেসর সিদ্দিকুর রহমান, ওলামা লীগের কার্যকরি সভাপতি মাওলানা আনোয়ার শাহ, সিনিয়র সহ-সহ-সভাপতি মুফতী আল্লামা খলিলুর রহমান জিহাদী, মুখপাত্র ক্বারী মাওলানা আসাদুজ্জামান, যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক হাফেজ মাওলানা ইদ্রিছ আলম আলকাদেরী, মুফতী তৈয়বুর রহমান, বায়তুল ফজল মাদরাসার অধ্যক্ষ মাওলানা গোলাম মাওলা, মাওলানা মুহাম্মদ উল্লাহ মিরাজ,মাওলানা মিজানুর রহমান প্রমুখ। প্রধান অতিথি বলেন, সকল ধর্ম বর্ণের বাঙ্গালি জনগোষ্ঠীর আত্মত্যাগের মাধ্যমেই আমাদের স্বাধীনতা।

আর অসম্প্রদায়িক চেতনা নিয়েই সে স্বাধীনতার ডাক দিয়েছিলেন সর্বকালের শ্রেষ্ঠ বাঙ্গালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। আমি যতটুকু জানি সাম্প্রদায়িকাতা নয় বঙ্গবন্ধু’র দেখানো পথেই ওলামা লীগ। আমি বিশ্বাস করি সম্প্রীতির পথে আমরা অটুটভাবে হাটলেই বিশ্ব মানবতার মা বঙ্গকন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বঙ্গবন্ধু’র স্বপ্নের সোনার বাংলা নির্মাণ করতে বেশী সময় লাগবেনা।

দেশ আজ উন্নয়নের মহাসড়কে। দ্রুত উন্নত দেশে রূপান্তরিত হওয়ার পথে বাংলাদেশ। এছাড়াও আমরা সকল ধর্মের প্রতি আমরা শ্রদ্ধাশীল। অতীতের ন্যায় আগামীতেও ওলামা লীগ আরো সাংগঠনিক শক্তি সঞ্চয় করে মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় এগিয়ে যাবে। ইফতার মাহফিলে আমাদের অংশগ্রহণেই তা প্রমাণ করে। প্রফেসর জিরাজুল হক আলো বলেন, ওলামী লীগের কার্যক্রম শুধু রাজপথে আর ইফতার মাহফিলা সীমাবদ্ধ রাখলে চলবেনা।

প্রতিটি মাদরাসায় ওলামা লীগের কমিটি গঠন করতে হবে। মাদরাসার শিক্ষক ও ছাত্রদেরকে জাতির পিতার আদর্শে উদ্বুদ্ধ করতে হবে। মুক্তিযুদ্ধের চেতনার সাথে ইসলামের কোন সাংঘর্ষিকতা নেই সে বিষয়টি বুঝাতে হবে। বঙ্গবন্ধু ও আওয়ামী লীগ ইসলাম তথা ধর্মবিরোধী নয় ধর্মের স্বাধীনতায় বিশ্বাসী। অর্থাৎ ধর্ম যারযার বাংলাদেশ সবার। যারা ধর্মের নামে সাম্প্রদায়িকতা সৃষ্টির মাধ্যমে দেশের উন্নয়কে বাঁধাগ্রস্ত করতে চায় তাদেরকে রুখে দিতে হবে। ওলামা লীগকে এগিয়ে যেতে হবে অনেক দূর।

তাই ওলামা লীগকেই কার্যক্রমের মধ্য দিয়ে প্রমাণ করতে হবে আমরা বঙ্গবন্ধু’র অসম্প্রদায়িক চেতনায় বিশ্বাসী। তৃর্ণমূলে ওলামা লীগের চাহিদা রয়েছে। আমি প্রত্যাশা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী সেই বিষয়টি বিবেচনা করে ওলামা লীগ তথা ওলামা লীগের মূল্যায়ন করবেন ইনশাআল্লাহ। এছাড়াও ইফতার মাহফিলে অন্যান্য অতিথিগণ বক্তব্য রাখেন।

ইফতার পূর্ব দোয়ায় শহীদ বীর মুক্তিযোদ্ধা ও শহীদ জাতির পিতা এবং জাতির পরিবার, জাতীয় চার নেতা, গ্রেনেড হামলায় নিহত নারী নেত্রী আইভি রহমান সহ সকল নিহতদের রূহের শান্তি কামনা করা হয়। তাছাড়াও দোয়ায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রী সুস্বাস্থ্যসহ নিরাপদ দীর্ঘায়ু জীবন কামনা করে।

সাম্প্রদায়িকাতা নয় বঙ্গবন্ধু’র দেখানো পথেই ওলামা লীগ

মাদরাসা শিক্ষা ব্যবস্থায়েও বাংলা ভাষার চর্চা গৌণ : ওলামা লীগ স্টাফ করেসপন্ডেন্ট স্কুল-কলেজের পাশাপাশি মাদরাসা শিক্ষা ব্যবস্থায়েও বাংলা ভাষার চর্চা গৌণ বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশ আওয়ামী ওলামা লীগের নেতারা৷ রবিবার (১৩ ফেব্রুয়ারি) জাতীয় মসজিদ বায়তুল মেকাররমে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষ্যে ভাষাশহীদ ও ভাষাযোদ্ধাদের জন্য বিশেষ দোয়ার পূর্বে বক্তারা এসব কথা বলেন। যোহর নামাজের পর ভাষাশহিদদের জন্য বিশেষ দোয়া করা হয়। ওলামা লীগের নেতারা বলেন, মাতৃভাষা আল্লাহ সোবহানাহু তা’য়ালার একটি নিয়ামত। ভাষা। ইসলামেও ভাষা শিক্ষা, ভাষার ব্যবহার ও মাতৃভাষায় ইসলাম চর্চা করার বেশ গুরুত্ব আরোপ করা হয়েছে। ১৯৫২ সালের ভাষা আন্দোলনের মূল লক্ষ্য সর্বস্তরে বাংলা ভাষার প্রবর্তন, তা আজও পূরণ হয়নি। সরকারি কাজকর্মে বাংলা চালু থাকলেও ব্যবসা-বাণিজ্য, উচ্চশিক্ষা, গবেষণাসহ নানা গুরুত্বপূর্ণ ক্ষেত্রে ইংরেজির প্রাধান্য লক্ষণীয়। ইংরেজি ভিনদেশী ভাষা। বাংলায় আইন প্রণীত হলেও উচ্চ আদালতে এখনো বাংলা চালু হয়নি। শিক্ষিত তরুণ-তরুণীদের একাংশ মাতৃভাষা বাংলার পরিবর্তে ইংরেজি রপ্ত করতেই বেশি আগ্রহী। শিশুদের শিক্ষাক্ষেত্রে ইংরেজি মাধ্যমের প্রসার ঘটে চলেছে, সাধারণ বিদ্যালয়েও বাংলা অবহেলিত। মাদরাসা শিক্ষা ব্যবস্থায়েও বাংলা ভাষার চর্চা গৌণ। ওলামা লীগের সভাপতি মুফতী মাসুম বিল্লাহ নাফিয়ী বলেন, ভাষাশহীদ ও ভাষাযোদ্ধারা আমাদের অন্তহীন প্রেরণার উৎস। মাতৃভাষার দাবিতে বাঙালি তরুণদের সেদিনের আত্মদান শুধু ভাষার অধিকার প্রতিষ্ঠার মধ্যে সীমাবদ্ধ থাকেনি, ক্রমেই একটি গণতান্ত্রিক ও ন্যায়ভিত্তিক আধুনিক রাষ্ট্রব্যবস্থার স্বপ্ন ও অঙ্গীকার দানা বেঁধেছিল। সে স্বপ্নই স্বাধীনতাসংগ্রাম, সশস্ত্র মুক্তিযুদ্ধসহ ইতিহাসের প্রতিটি গুরুত্বপূর্ণ পর্যায়ে আমাদের পথ দেখিয়েছে। ভাষা আন্দোলন আজ আন্তর্জাতিক অঙ্গনে স্বীকৃত। দিবসটি এখন আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসও বটে। মাতৃভাষা বাংলার জন্য বাঙালির আত্মত্যাগের মহিমা ছড়িয়ে পড়েছে পৃথিবীর পরিমণ্ডলে। বিশ্বের প্রতিটি জনগোষ্ঠীর নিজ নিজ মাতৃভাষা সংরক্ষণ ও বিকাশের বিষয়টি তাদের রাজনৈতিক অধিকারের গুরুত্বপূর্ণ অংশ হিসেবে বিবেচিত। ওলামা লীগের সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার হোসাইন জুয়েল বলেন, মাতৃভাষাযোদ্ধাদের একসাগর রক্তের মধ্য দিয়ে অর্জিত অমর একুশে ফেব্রুয়ারি। প্রাণপ্রিয় মাতৃভাষা বাংলাকে রাষ্ট্রীয় ভাষার মর্যাদায় প্রতিষ্ঠিত করার আন্দোলনে পাকিস্তানী স্বৈরাচারী সরকারের পুলিশের গুলিতে সেই দিন শহীদ হন সালাম, রফিক, জব্বার, বরকত ও শফিকসহ অনেকে। পরিতাপের বিষয় হলো আজ বিদেশী ভাষার আগ্রাসনে বাংলা ভাষার মর্যাদা রক্ষা হচ্ছে না। তাই সর্বস্তরে বাংলা ভাষা চালুর জন্য মহান ২১ ফেব্রুয়ারির ভাষা আন্দোলনের চেতনাকে সামাজিক আন্দোলনে রূপান্তরিত করতে হবে। আর তা করতে পারলেই সর্বক্ষেত্রে বাংলাভাষার ব্যবহার সুনিশ্চিত করা যাবে বলে আমরা বিশ্বাস করি। দোয়া ও মুনাজাত পরিচালনা করেন জাতীয় মসজিদের ইমাম মুফতী হাফেজ মাওলানা মুহিব উল্লাহ হিল বাকী। মুনাজাতে ভাষাশহীদ ও ভাষাযোদ্ধাদের রুহের মাগফিরাত কামনাসহ জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও ১৫ আগষ্ট যারা শাহাদাৎ বরণ করেছেন তাদের এবং মহান মুক্তিযুদ্ধে শহীদ ও জাতীয় চার নেতারও রুহের মাগফিরা কামনা করা হয়। এছাড়াও মুনাজাতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সুস্বাস্থ্য, দীর্ঘায়ু কামনার পাশাপাশি করা হয়। দোয়া মাহফিলে অংশগ্রহণ করেন, সাবেক সচিব সিরাজ উদ্দীন আহমেদ, জাতীয় গণতান্ত্রিক লীগের সভাপতি এম এ জলিল, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ উপ-কমিটির সদস্য জননেতা বেলাল নূরী বাংলাদেশ কার্যকরী সভাপতি মাওলানা আনোয়ার শাহ, সিনিয়র সহ-, হাফেজ মাওলানা ইদ্রিচ আলম আল কাদেরী, মুফতী আব্দুল আলিম বিজয়নগরী, হাফেজ মাওলানা শামসুল আলম জাহাঙ্গীর নূরানী হুজুর, হাফেজ মাওলানা সাঈফুল ইসলাম, মাওলানা মোঃ আব্দুল মুবিন আখন্দ, হাফেজ মাওলানা মাহবুবুর রহনান, নাফি উদ্দিন উদয়, শাফি উদ্দিন বিনয় প্রমুুখ।

মাদরাসা শিক্ষা ব্যবস্থায়েও বাংলা ভাষার চর্চা গৌণ

সিনহা হত্যা: বরখাস্ত ওসি প্রদীপ, ইন্সপেক্টর লিয়াকতের মৃত্যুদণ্ড । ১৫ আসামির উপস্থিতিতে রায় ঘোষণা করেন বিচারক , ১৯ মাস পর চাঞ্চল্যকর এ মামলার রায় ঘোষণা হলো, পরিদর্শক লিয়াকতের গুলিতে নিহত হন মেজর (অব.) সিনহা ৩ এপিবিএন সদস্যসহ ৭ জনকে বেকসুর খালাস দেন আদালত ।

সিনহা হত্যা: বরখাস্ত ওসি প্রদীপ, ইন্সপেক্টর লিয়াকতের মৃত্যুদণ্ড ।

জালালাবাদ মাদরাসায় আওয়ামী লীগের সভাপতি প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন জননেত্রী শেখ হাসিনার সুস্বাস্থ্য ও দীর্ঘায়ু কামনা করে বিশেষ দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে ।  মাদরাসার আয়োজিত মাহফিলে সভাপতিত্ব ও দোয়া পরিচালনা করেন অত্র জালালাবাদ মাদরাসার প্রতিষ্ঠাতা দেশবরেণ্য হাফেজ বিশিষ্ট ইসলামিক চিন্তাবিদ আলহাজ্ব হাফেজ মুহাম্মদ তৈয়ব, প্রধান অতিথি হিসেবে অংশগ্রহণ করেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ধর্ম বিষয়ক উপ-কমিটির সদস্য ওলামা লীগের কেন্দ্রীয় সভাপতি মুফতী মাসুম বিল্লাহ নাফিয়ী, ওলামা লীগের কেন্দ্রীয় নেতা হাফেজ মাওলানা ইদ্রিস, মাদরাসার মুহতামিম মাওলানা মুহাম্মদ মুশতাক, চট্রগ্রাম ওলামা লীগ নেতা মাওলানা আব্দুর রহীম ও হাফেজ মাওলানা নেজাম প্রমুখ। দোয়া পূর্ব মাহফিলে প্রধান অতিথি মুফতী মাসুম বিল্লাহ নাফিয়ী বলেন, আপনারা আজ মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার জন্য দোয়া-মাহফিলের আয়োজন করেছেন এতে আমি অনেক আনন্দিত। কেননা আপনারা দোয়া মাহফিলের মাধ্যমে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছেন। বঙ্গকন্যা দেশরত্ন শেখ হাসিনা কওমী মাদরাসার শিক্ষা সনদের এমএ সমমানের স্বীকৃতি দিয়ে আপনাদেরকে যে সম্মানিত করে মর্যাদার আসনে বসিয়েছেন তারই কৃতজ্ঞতায় এই দোয়া-মাহফিল। তিনি আরও বলেন, প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা ইসলামের মূল শিক্ষার প্রতি আন্তরিক এবং শ্রদ্ধাশীল। তিনি ইতিমধ্যে কওমী সনদের স্বীকৃতি, আরবী বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা ও পাঁচশত ৬০টি মডেল মসজিদ প্রতিষ্ঠাসহ পঁচাত্তর হাজার কোরআন শিক্ষা কেন্দ্র স্থাপন করে তা প্রমাণ করেছেন। মুফতী মাসুম বিল্লাহ নাফিয়ী আরও বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানও ইসলামের প্রচার-প্রসারের জন্য ইসলামিক ফাউন্ডেশন প্রতিষ্ঠাসহ ইসলামের খেদমতে বহুমুখী অবদান রেখেছেন। কৃতজ্ঞতার দোয়া-মাহফিল চার দালানের ভিতর সীমাবদ্ধ রাখলে চলবেনা। শেখ হাসিনা ইসলামের জন্য বহুমুখী যে খেদমত করে যাচ্ছে তা মসজিদ মাদরাসার বাহিরেও ওয়াজ মাহফিলের মাধ্যমে জনগণের মাঝে তুলে ধরবেন। তাহলেই কৃতজ্ঞতার প্রকৃত হক আদায় হবে বলে আমি বিশ্বাস করি। আওয়ামী লীগের ধর্ম উপকমিটির সদস্য বলেন, ইসলামের অপব্যাখা করে একশ্রেণীর ক্ষমতালোভী স্বাধীনতাবিরোধী চক্র আওয়ামী লীগ তথা সরকারের বিরুদ্ধে নানামুখী ষড়যন্ত্রে লিপ্ত। তারা তাদের চক্রান্ত বাস্তবায়নে সরলমনা আলেম-ওলামাদেরকে মিথ্যাচারের মাধ্যমে উস্কানি দিয়ে বিভ্রান্ত করে অতীতের ন্যায় মাঠে নামানোর অপচেষ্টাও করতে পারে। আশা করি আপনারা সে চক্রান্তে পা না দিয়ে চলমান উন্নয়ন অগ্রগতির ধারা অব্যাহত রাখার স্বার্থে ও দেশের শান্তি-সম্প্রীতি রক্ষায় নাগরিকের দায়িত্ববোধে সজাগ থেকে দায়িত্ব পালন করে যাবেন ইনশাআল্লাহ। ধর্ম যারযার রাষ্ট্র সবার সম্মানিত আলেম সমাজকে এই বিষয়টিও মাথায় রাখতে হবে। আমরা চাই আগামীতে বীর চট্রলায় সর্বজনশ্রদ্ধীয় হুজুর হাফেজ তৈয়ব সাহেবের নেতৃত্ব দেশপ্রেমিক আলেম সমাজের এক অটুট ঐক্য গড়ুক। যে নেতৃত্বের মাধ্যমে গড়ে উঠবে মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উদ্বুদ্ধ তরুণ আলেম সমাজের বহর। যারা অন্যায়ের প্রতিবাদে ভূমিকা রাখবে সাইয়্যেদানা উমর ইবনে খাত্তাব রাঃ ন্যায় আর অধিকার আদায়ে ভুমিকা রাখবে বিশ্বে শোষিত গণমানুষের নেতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের মতো। হাফেজ মুহাম্মদ তৈয়ব দোয়ায় আল্লাহ সোবহানাহু তা’য়ালার দরবারে প্রধানমন্ত্রী’র সুস্বাস্থ্য ও দীর্ঘায়ু কামনা ছাড়াও সকল শহীদ মুক্তিযুদ্ধ, বঙ্গবন্ধুসহ পঁচাত্তরের শাহাদাতবরণ কারী সকল শহীদ ও জাতীয় চারনেতা এবং একুশে আগস্ট গ্রেনেড হামলায় নিহত নারী নেত্রী আইভী রহমানসহ সকল শহীদদের রুহের শান্তি কামনা করেন। এছাড়াও মুনীজাতে দেশের শান্তি, উন্নয়ন-অগ্রগতিকে স্মরণ করে প্রধানমন্ত্রীসহ সরকারের সকল দায়িত্বশীল ব্যক্তিবর্গের কথা উল্লেখ করা হয়।

চট্রগ্রামের জালালাবাদ মাদরাসায় প্রধানমন্ত্রীর জন্য বিশেষ দোয়া

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের উপদেষ্ঠা মন্ডলীর সদস্য, ফেনী জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক, ফেনী-২ আসন থেকে ৩ বার নির্বাচিত সংসদ সদস্য, বীর মুক্তিযোদ্ধা জয়নাল আবেদীন হাজারী গতকাল বিকেল ৫ঃ৩০ মিনিটে রাজধানীর ল্যাব এইড হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ইন্তেকাল করেছেন, ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন। মরহুমের রুহের মাগফেরাত ও শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি বিএম ২৪ টিভির পক্ষ থেকে গভীর সমবেদনা জানাচ্ছি।

ফেনী-২ আসন থেকে ৩ বার নির্বাচিত সংসদ সদস্য, বীর মুক্তিযোদ্ধা জয়নাল আবেদীন হাজারী ইন্তেকাল করেছেন

আ. লীগের কেন্দ্রীয় ধর্ম বিষয়ক উপ-কমিটি’র সদস্য হলেন মুফতী মাসুম বিল্লাহ নাফিয়ী বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় ধর্ম বিষয়ক উপ-কমিটি’র সদস্য নির্বাচিত হলেন, সাবেক ছাত্রনেতা বিশিষ্ট আলেমে দ্বীন ইসলামিক চিন্তাবিদ মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় আপোষহীন ব্যক্তিত্ব ও সামাজিক সংগঠন বাংলাদেশ সোস্যাল অ্যাক্টিভিস্ট ফোরামের প্রধান সমন্বয়ক, মুফতী মাসুম বিল্লাহ নাফিয়ী। পুনরায় আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় ধর্ম বিষয়ক উপ-কমিটি’র সদস্য নির্বাচিত হওয়ায় ভক্ত, অনুরাগী ও শুভাকাঙ্খিদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন মাসুম বিল্লাহ নাফিয়ী। এক বার্তায় মুফতী মাসুম বিল্লাহ নাফিয়ী বলেন, আলহামদুলিল্লাহ, আল্লাহর অশেষ রহমতে পুনরায় সদস্য নির্বাচিত হয়েছি। সুহৃদ বন্ধুবর সকলের কাছে দোয়া প্রার্থী-“জয় বাংলা জয়।

আ. লীগের কেন্দ্রীয় ধর্ম বিষয়ক উপ-কমিটি’র সদস্য হলেন মুফতী মাসুম বিল্লাহ নাফিয়ী

প্রবাস

ড. ওয়াজেদ মিয়ার স্মরণ ও রূহের মাগফিরাত কামনায় দোয়া মাহফিল –আওয়ামী ওলামা লীগ ।

৯ মে ২০২২ সোমবার বাংলাদেশ আওয়ামী ওলামা লীগ কেন্দ্রীয় কমিটির আয়োজনে হাইকোর্ট শরফ উদ্দিন চিশতী রাহঃ জামে মসজিদ এ বা’দ আসর বঙ্গবন্ধু ও খেখ ফজিলাতুন্নেছার জামাতা, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার স্বামী, মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক আন্তর্জাতিক পরমাণু বিজ্ঞানী ড. এম এ ওয়াজেদ মিয়া’র ১৩ তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষ্যে তার স্মরণ ও রূহের মাগফিরাত কামনায় আলোচনা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত।
বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় সংগ্রামী সাধারণ সম্পাদক হাফেজ মাওলানা আনোয়োর হোসেন জুয়েলের সঞ্চলনায় অনুষ্ঠানে ছিলেন, প্রধান অতিথি স্বাধীনতা পুরুস্কার প্রাপ্ত ইতিহাসবিদ সিরাজ উদ্দিন আহমেদ, প্রধান আলোচক, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ কেন্দ্রীয় উপ-কমিটি’র সদস্য জননেতা বেলাল নূরী, বিশেষ অতিথি ওলামা লীগের কার্যকরি সভাপতি মাওলানা আনোয়ার শাহ, বাংলাদেশ তাঁতী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক খান নুর এ খোদা মন্জু, ওলামা লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হাফেজ মাওলানা ইদ্রিচ আলম আল-কাদেরী, হাফেজ মাওলানা জাহাঙ্গীর আলম নূরী হুজুর প্রমূখ।

ড. ওয়াজেদ মিয়ার স্মরণ ও রূহের মাগফিরাত কামনায় দোয়া মাহফিল –আওয়ামী ওলামা লীগ ।

সাম্প্রদায়িকাতা নয় বঙ্গবন্ধু’র দেখানো পথেই ওলামা লীগ ১৫ এপ্রিল ২০২২ শুক্রবার ১৩ রমাদান সেগুনবাগিচা মধুরিমা রেস্তোরায় “মাহে রমাদানের শিক্ষা ও সংযম হউক মানবিক জীবন গড়ার পাথেয়” এই শিরোনামে বাংলাদেশ আওয়ামী ওলামা লীগ কেন্দ্রীয় কমিটির ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত। সংগঠনের সভাপতি মুফতী মাসুম বিল্লাহ নাফিয়ীর সভাপতিত্বে সাধারণ সম্পাদক হাফেজ মাওলানা মুহাম্মদ আনোয়ার হোসেন জুয়েলের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত ইফতার মাহফিলে প্রধান অতিথি হিসেবে ছিলেন, বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ হিন্দু বৌদ্ধ খ্রীষ্টান ঐক্য পরিষদের সভাপতি প্রফেসর ড, নিম চন্দ্র ভৌমিক, প্রধান আলোচক, বঙ্গবন্ধু শিক্ষা ও গবেষণা পরিষদের সাধারণ সম্পাদক প্রফেসর সিজারাজুল হক আলো, বিশেষ অতিথি বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ উপ-কমিটির সদস্য বেলাল নূরী, অনলাইন অ্যাক্টিভিস্ট ফোরামের সভাপতি কবীর চৌধিরী তন্ময়, কৃষক লীগের কেন্দ্রীয় ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক আলমগীর হোসেন, প্রফেসর সিদ্দিকুর রহমান, ওলামা লীগের কার্যকরি সভাপতি মাওলানা আনোয়ার শাহ, সিনিয়র সহ-সহ-সভাপতি মুফতী আল্লামা খলিলুর রহমান জিহাদী, মুখপাত্র ক্বারী মাওলানা আসাদুজ্জামান, যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক হাফেজ মাওলানা ইদ্রিছ আলম আলকাদেরী, মুফতী তৈয়বুর রহমান, বায়তুল ফজল মাদরাসার অধ্যক্ষ মাওলানা গোলাম মাওলা, মাওলানা মুহাম্মদ উল্লাহ মিরাজ,মাওলানা মিজানুর রহমান প্রমুখ। প্রধান অতিথি বলেন, সকল ধর্ম বর্ণের বাঙ্গালি জনগোষ্ঠীর আত্মত্যাগের মাধ্যমেই আমাদের স্বাধীনতা।

আর অসম্প্রদায়িক চেতনা নিয়েই সে স্বাধীনতার ডাক দিয়েছিলেন সর্বকালের শ্রেষ্ঠ বাঙ্গালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। আমি যতটুকু জানি সাম্প্রদায়িকাতা নয় বঙ্গবন্ধু’র দেখানো পথেই ওলামা লীগ। আমি বিশ্বাস করি সম্প্রীতির পথে আমরা অটুটভাবে হাটলেই বিশ্ব মানবতার মা বঙ্গকন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বঙ্গবন্ধু’র স্বপ্নের সোনার বাংলা নির্মাণ করতে বেশী সময় লাগবেনা।

দেশ আজ উন্নয়নের মহাসড়কে। দ্রুত উন্নত দেশে রূপান্তরিত হওয়ার পথে বাংলাদেশ। এছাড়াও আমরা সকল ধর্মের প্রতি আমরা শ্রদ্ধাশীল। অতীতের ন্যায় আগামীতেও ওলামা লীগ আরো সাংগঠনিক শক্তি সঞ্চয় করে মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় এগিয়ে যাবে। ইফতার মাহফিলে আমাদের অংশগ্রহণেই তা প্রমাণ করে। প্রফেসর জিরাজুল হক আলো বলেন, ওলামী লীগের কার্যক্রম শুধু রাজপথে আর ইফতার মাহফিলা সীমাবদ্ধ রাখলে চলবেনা।

প্রতিটি মাদরাসায় ওলামা লীগের কমিটি গঠন করতে হবে। মাদরাসার শিক্ষক ও ছাত্রদেরকে জাতির পিতার আদর্শে উদ্বুদ্ধ করতে হবে। মুক্তিযুদ্ধের চেতনার সাথে ইসলামের কোন সাংঘর্ষিকতা নেই সে বিষয়টি বুঝাতে হবে। বঙ্গবন্ধু ও আওয়ামী লীগ ইসলাম তথা ধর্মবিরোধী নয় ধর্মের স্বাধীনতায় বিশ্বাসী। অর্থাৎ ধর্ম যারযার বাংলাদেশ সবার। যারা ধর্মের নামে সাম্প্রদায়িকতা সৃষ্টির মাধ্যমে দেশের উন্নয়কে বাঁধাগ্রস্ত করতে চায় তাদেরকে রুখে দিতে হবে। ওলামা লীগকে এগিয়ে যেতে হবে অনেক দূর।

তাই ওলামা লীগকেই কার্যক্রমের মধ্য দিয়ে প্রমাণ করতে হবে আমরা বঙ্গবন্ধু’র অসম্প্রদায়িক চেতনায় বিশ্বাসী। তৃর্ণমূলে ওলামা লীগের চাহিদা রয়েছে। আমি প্রত্যাশা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী সেই বিষয়টি বিবেচনা করে ওলামা লীগ তথা ওলামা লীগের মূল্যায়ন করবেন ইনশাআল্লাহ। এছাড়াও ইফতার মাহফিলে অন্যান্য অতিথিগণ বক্তব্য রাখেন।

ইফতার পূর্ব দোয়ায় শহীদ বীর মুক্তিযোদ্ধা ও শহীদ জাতির পিতা এবং জাতির পরিবার, জাতীয় চার নেতা, গ্রেনেড হামলায় নিহত নারী নেত্রী আইভি রহমান সহ সকল নিহতদের রূহের শান্তি কামনা করা হয়। তাছাড়াও দোয়ায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রী সুস্বাস্থ্যসহ নিরাপদ দীর্ঘায়ু জীবন কামনা করে।

সাম্প্রদায়িকাতা নয় বঙ্গবন্ধু’র দেখানো পথেই ওলামা লীগ

মাদরাসা শিক্ষা ব্যবস্থায়েও বাংলা ভাষার চর্চা গৌণ : ওলামা লীগ স্টাফ করেসপন্ডেন্ট স্কুল-কলেজের পাশাপাশি মাদরাসা শিক্ষা ব্যবস্থায়েও বাংলা ভাষার চর্চা গৌণ বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশ আওয়ামী ওলামা লীগের নেতারা৷ রবিবার (১৩ ফেব্রুয়ারি) জাতীয় মসজিদ বায়তুল মেকাররমে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষ্যে ভাষাশহীদ ও ভাষাযোদ্ধাদের জন্য বিশেষ দোয়ার পূর্বে বক্তারা এসব কথা বলেন। যোহর নামাজের পর ভাষাশহিদদের জন্য বিশেষ দোয়া করা হয়। ওলামা লীগের নেতারা বলেন, মাতৃভাষা আল্লাহ সোবহানাহু তা’য়ালার একটি নিয়ামত। ভাষা। ইসলামেও ভাষা শিক্ষা, ভাষার ব্যবহার ও মাতৃভাষায় ইসলাম চর্চা করার বেশ গুরুত্ব আরোপ করা হয়েছে। ১৯৫২ সালের ভাষা আন্দোলনের মূল লক্ষ্য সর্বস্তরে বাংলা ভাষার প্রবর্তন, তা আজও পূরণ হয়নি। সরকারি কাজকর্মে বাংলা চালু থাকলেও ব্যবসা-বাণিজ্য, উচ্চশিক্ষা, গবেষণাসহ নানা গুরুত্বপূর্ণ ক্ষেত্রে ইংরেজির প্রাধান্য লক্ষণীয়। ইংরেজি ভিনদেশী ভাষা। বাংলায় আইন প্রণীত হলেও উচ্চ আদালতে এখনো বাংলা চালু হয়নি। শিক্ষিত তরুণ-তরুণীদের একাংশ মাতৃভাষা বাংলার পরিবর্তে ইংরেজি রপ্ত করতেই বেশি আগ্রহী। শিশুদের শিক্ষাক্ষেত্রে ইংরেজি মাধ্যমের প্রসার ঘটে চলেছে, সাধারণ বিদ্যালয়েও বাংলা অবহেলিত। মাদরাসা শিক্ষা ব্যবস্থায়েও বাংলা ভাষার চর্চা গৌণ। ওলামা লীগের সভাপতি মুফতী মাসুম বিল্লাহ নাফিয়ী বলেন, ভাষাশহীদ ও ভাষাযোদ্ধারা আমাদের অন্তহীন প্রেরণার উৎস। মাতৃভাষার দাবিতে বাঙালি তরুণদের সেদিনের আত্মদান শুধু ভাষার অধিকার প্রতিষ্ঠার মধ্যে সীমাবদ্ধ থাকেনি, ক্রমেই একটি গণতান্ত্রিক ও ন্যায়ভিত্তিক আধুনিক রাষ্ট্রব্যবস্থার স্বপ্ন ও অঙ্গীকার দানা বেঁধেছিল। সে স্বপ্নই স্বাধীনতাসংগ্রাম, সশস্ত্র মুক্তিযুদ্ধসহ ইতিহাসের প্রতিটি গুরুত্বপূর্ণ পর্যায়ে আমাদের পথ দেখিয়েছে। ভাষা আন্দোলন আজ আন্তর্জাতিক অঙ্গনে স্বীকৃত। দিবসটি এখন আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসও বটে। মাতৃভাষা বাংলার জন্য বাঙালির আত্মত্যাগের মহিমা ছড়িয়ে পড়েছে পৃথিবীর পরিমণ্ডলে। বিশ্বের প্রতিটি জনগোষ্ঠীর নিজ নিজ মাতৃভাষা সংরক্ষণ ও বিকাশের বিষয়টি তাদের রাজনৈতিক অধিকারের গুরুত্বপূর্ণ অংশ হিসেবে বিবেচিত। ওলামা লীগের সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার হোসাইন জুয়েল বলেন, মাতৃভাষাযোদ্ধাদের একসাগর রক্তের মধ্য দিয়ে অর্জিত অমর একুশে ফেব্রুয়ারি। প্রাণপ্রিয় মাতৃভাষা বাংলাকে রাষ্ট্রীয় ভাষার মর্যাদায় প্রতিষ্ঠিত করার আন্দোলনে পাকিস্তানী স্বৈরাচারী সরকারের পুলিশের গুলিতে সেই দিন শহীদ হন সালাম, রফিক, জব্বার, বরকত ও শফিকসহ অনেকে। পরিতাপের বিষয় হলো আজ বিদেশী ভাষার আগ্রাসনে বাংলা ভাষার মর্যাদা রক্ষা হচ্ছে না। তাই সর্বস্তরে বাংলা ভাষা চালুর জন্য মহান ২১ ফেব্রুয়ারির ভাষা আন্দোলনের চেতনাকে সামাজিক আন্দোলনে রূপান্তরিত করতে হবে। আর তা করতে পারলেই সর্বক্ষেত্রে বাংলাভাষার ব্যবহার সুনিশ্চিত করা যাবে বলে আমরা বিশ্বাস করি। দোয়া ও মুনাজাত পরিচালনা করেন জাতীয় মসজিদের ইমাম মুফতী হাফেজ মাওলানা মুহিব উল্লাহ হিল বাকী। মুনাজাতে ভাষাশহীদ ও ভাষাযোদ্ধাদের রুহের মাগফিরাত কামনাসহ জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও ১৫ আগষ্ট যারা শাহাদাৎ বরণ করেছেন তাদের এবং মহান মুক্তিযুদ্ধে শহীদ ও জাতীয় চার নেতারও রুহের মাগফিরা কামনা করা হয়। এছাড়াও মুনাজাতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সুস্বাস্থ্য, দীর্ঘায়ু কামনার পাশাপাশি করা হয়। দোয়া মাহফিলে অংশগ্রহণ করেন, সাবেক সচিব সিরাজ উদ্দীন আহমেদ, জাতীয় গণতান্ত্রিক লীগের সভাপতি এম এ জলিল, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ উপ-কমিটির সদস্য জননেতা বেলাল নূরী বাংলাদেশ কার্যকরী সভাপতি মাওলানা আনোয়ার শাহ, সিনিয়র সহ-, হাফেজ মাওলানা ইদ্রিচ আলম আল কাদেরী, মুফতী আব্দুল আলিম বিজয়নগরী, হাফেজ মাওলানা শামসুল আলম জাহাঙ্গীর নূরানী হুজুর, হাফেজ মাওলানা সাঈফুল ইসলাম, মাওলানা মোঃ আব্দুল মুবিন আখন্দ, হাফেজ মাওলানা মাহবুবুর রহনান, নাফি উদ্দিন উদয়, শাফি উদ্দিন বিনয় প্রমুুখ।

মাদরাসা শিক্ষা ব্যবস্থায়েও বাংলা ভাষার চর্চা গৌণ

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের উপদেষ্ঠা মন্ডলীর সদস্য, ফেনী জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক, ফেনী-২ আসন থেকে ৩ বার নির্বাচিত সংসদ সদস্য, বীর মুক্তিযোদ্ধা জয়নাল আবেদীন হাজারী গতকাল বিকেল ৫ঃ৩০ মিনিটে রাজধানীর ল্যাব এইড হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ইন্তেকাল করেছেন, ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন। মরহুমের রুহের মাগফেরাত ও শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি বিএম ২৪ টিভির পক্ষ থেকে গভীর সমবেদনা জানাচ্ছি।

ফেনী-২ আসন থেকে ৩ বার নির্বাচিত সংসদ সদস্য, বীর মুক্তিযোদ্ধা জয়নাল আবেদীন হাজারী ইন্তেকাল করেছেন

প্রস্তুত ঢাকা নগর পরিবহন

গণপরিবহনে বিশৃঙ্খলা দূর করতে বাস রুট রেশনালাইজেশন কার্যক্রমের অংশ হিসেবে চালু হচ্ছে ঢাকা নগর পরিবহন। রোববার (২৬ ডিসেম্বর) রাজধানীর মোহাম্মদপুর এলাকা থেকে এর উদ্বোধন করা হবে। কেরানীগঞ্জের ঘাটারচর থেকে কাঁচপুর পর্যন্ত প্রায় ২১ কিলোমিটারের রুটে বিআরটিসির বাসের পাশাপাশি সবুজ রঙের বাস নিয়ে ঢাকা নগর পরিবহন যাত্রা শুরু করছে। এরইমধ্যে বাসগুলো প্রস্তুত করা হয়েছে। ফুল দিয়ে সাজানোও হয়েছে। বাসগুলো যেখানে রাখা হয়েছে, তার পাশেই তৈরি করা হয়েছে বিশাল উদ্বোধনী মঞ্চ। জানা গেছে, ২১ কিলোমিটারের এ রুটে ঢাকা নগর পরিবহনের ৫০টি বাস নিয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে রেশনালাইজেশন কার্যক্রম শুরু হবে। এ রুটে কিলোমিটারপ্রতি ভাড়া পড়বে দুই টাকা ২০ পয়সা। জানা গেছে, প্রথমে ৫০টি বাস নিয়ে যাত্রা শুরু হলেও কিছু দিনের মধ্যে এ রুটে মোট ১০০টি বাস চলাচল করবে।

প্রস্তুত ঢাকা নগর পরিবহন

বাঙ্গালী জাতিকে মেধাশূন্য করতে চেয়েছিল পাকিস্তানী হানাদার বাহিনী ১৪ ডিসেম্বর ২০২১ মঙ্গলবার রাজশাহীতে বাংলাদেশ সোস্যাল অ্যাক্টিভিস্ট ফোরাম রাজশাহী শাখা কর্তৃক শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস উপলক্ষ্যে শহরের বিভিন্ন সড়কে মোটরবাইক র্যালী, পথসভা ও মহান শহীদের স্মরণে রাজশাহী শহীদ বুদ্ধিজীবী স্মৃতিসৌধে শ্রদ্ধা নিবেদন করা করে। দিনব্যাপী এই কর্মসূচীতে অংশগ্রহণ করেছে বাংলাদেশ সোস্যাল অ্যাক্টিভিস্ট ফোরামের কেন্দ্রীয় প্রধান সমন্বয়ক মুফতী মাসুম বিল্লাহ নাফিয়ী,দুর্গাপুর উপজেলা কৃষক লীগের সভাপতি মুহাম্মদ রোকনুজ্জামান রোকন, আওয়ামী লীগ নেতা আব্দুল লতিফ, রাজশাহী বাংলাদেশ সোস্যাল অ্যাক্টিভিস্ট ফোরামের সমন্বয়ক আখতারউজ্জামান অভি,যুবলীগ নেতা হাবিব, মৎসজীবী লীগ নেতা শওনসহ ফোরামের বিভিন্ন স্তরের নেতৃবৃন্দ। পথসভায় নেতৃবৃন্দ বলেন, ১৯৭১ সালের ১৪ ডিসেম্বর বিজয়ের পূর্বক্ষণে বুদ্ধিজীবী হত্যার মধ্য দিয়ে বাঙ্গালী জাতিকে মেধাশূন্য করতে চেয়েছিল পাকিস্তানী হানাদার বাহিনী। পাক হায়ানারা বুঝতে পেরেছিল বাঙ্গালি জাতিকে আর ধমিয়ে রাখা যাবেনা। কারণ মুজিব বাহিনীর নেতৃত্বে মুক্তিযোদ্ধাদের সাথে সম্পৃক্ত হয়ে হয়েছে ভারতের মৈত্রী বাহিনী বন্ধ করা হয়েছে ভারতের আকাশ পথ। তাই তারা বাঙ্গালির জাতির স্বাধীনতা ও বিজয় সুনিশ্চিত জেনেই এই গণহত্যা সংঘটিত করেছিল। নৃশংস গণহত্যার শিকার হন শিক্ষক,সাহিত্যিক, সংস্কৃতিব্যক্তিত্ব ও সাংবাদিকসহ গুণীজন। নেতারা আরো বলেন, পাকিস্তান আজও বুদ্ধিজীবী হত্যার দায় স্বীকার করে বাঙ্গালি জাতির কাছে ক্ষমা চায়নি। তাই বাংলাদেশকে ভাবতে হবে পাকিস্তানের সাথে আমাদের সম্পর্ক রাখাটা কতটুকু যৌক্তিক? পাকিস্তান বাংলাদেশের বিরুদ্ধে তাদের পরাজয়ের প্রতিশোধে এখনো গভীর ষড়যন্ত্র লিপ্ত। এমনকি তাদের পেতাত্মাদেরকে দিয়ে বিভিন্ন নামে বেনামে সংগঠন সৃষ্টি করে বাঙ্গালিদের মধ্যে বিভাজন করার অপচেষ্টা করছে প্রতিনিয়ত। ধর্মের নামে করছে সাম্প্রদায়িক দাঙ্গা এবং জঙ্গী তৎপরতা। নেতারা পাকিদের এইসমস্ত অপতৎপরতার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান। সংগঠনটি শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবসে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানসহ সকল শহীদ মুক্তিযোদ্ধা এবং সম্ভ্রম হারানো পাঁচ লক্ষাধিক মা-বোন ও শহীদ বুদ্ধিজীবীদের রুহের শান্তি কামনার মাধ্যমে পথসভাসহ কর্মসূচীর ইতি করে।

বাঙ্গালী জাতিকে মেধাশূন্য করতে চেয়েছিল পাকিস্তানী হানাদার বাহিনী

আ. লীগের কেন্দ্রীয় ধর্ম বিষয়ক উপ-কমিটি’র সদস্য হলেন মুফতী মাসুম বিল্লাহ নাফিয়ী বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় ধর্ম বিষয়ক উপ-কমিটি’র সদস্য নির্বাচিত হলেন, সাবেক ছাত্রনেতা বিশিষ্ট আলেমে দ্বীন ইসলামিক চিন্তাবিদ মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় আপোষহীন ব্যক্তিত্ব ও সামাজিক সংগঠন বাংলাদেশ সোস্যাল অ্যাক্টিভিস্ট ফোরামের প্রধান সমন্বয়ক, মুফতী মাসুম বিল্লাহ নাফিয়ী। পুনরায় আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় ধর্ম বিষয়ক উপ-কমিটি’র সদস্য নির্বাচিত হওয়ায় ভক্ত, অনুরাগী ও শুভাকাঙ্খিদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন মাসুম বিল্লাহ নাফিয়ী। এক বার্তায় মুফতী মাসুম বিল্লাহ নাফিয়ী বলেন, আলহামদুলিল্লাহ, আল্লাহর অশেষ রহমতে পুনরায় সদস্য নির্বাচিত হয়েছি। সুহৃদ বন্ধুবর সকলের কাছে দোয়া প্রার্থী-“জয় বাংলা জয়।

আ. লীগের কেন্দ্রীয় ধর্ম বিষয়ক উপ-কমিটি’র সদস্য হলেন মুফতী মাসুম বিল্লাহ নাফিয়ী

করোনা সচেতনতা বাড়াতে বিএসএএফ’র মাস্ক বিতরণ স্টাফ করেসপন্ডেন্ট করোনার সচেতনতা বাড়াতে মক্তরের শিশু শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের মাঝে মাস্ক বিতরণ করেছে সামাজিক সংগঠন বাংলাদেশ সোস্যাল অ্যাক্টিভিস্ট ফোরাম (বিএসএএফ)। সোমবার ( ১১ অক্টোবর) দিনাজপুর জেলার বিরামপুর উপজেলার পূর্ব জগন্নাথপুরে একটি মক্তবের শিশু শিক্ষার্থীদের মাঝে মাস্ক বিতরণ করা হয়। এসময় সংগঠন প্রধান সমন্বয়কারী মুফতী মাসুম বিল্লাহ নাফিয়ী বলেন, করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব কমে যাওয়ায় অনেকের গা-ছাড়া ভাব দেখা দিয়েছে। করোনার প্রাদুর্ভাব কমলেও করোনা চলে যায়নি। গ্রামের শিশুদেরও করোনাকালে মাস্ক পড়তে হবে। সাবান দিয়ে হাত ধুতে হবে। তিনি আরও বলেন, স্বাস্থ্য বিজ্ঞানীরা বলছেন, যেকোনো মুহূর্তে করোনা ভাইরাসের প্রভাব বাড়তে পারে, তাই আমাদের সবসময় সচেতন থাকতে হবে। অভিভাবকদেরও দায়িত্ব শিশুদের পরিস্কার-পরিচ্ছন্ন রাখা। এরা আমাদেরই সন্তান। আগামীতে দেশ গড়ার কারিগর। মাস্ক বিতরণে অংশগ্রহণ করেন, ন্যাশনাল ফ্রেন্ডশিপ সোসাইটির ( এনএফএস) সভাপতি গণবন্ধু রাহাত হুসাইন, বাংলাদেশ সোস্যাল অ্যাক্টিভিস্ট ফোরামের (বিএসএফ) সদস্য নাফি উদ্দিন উদয়, শাফি উদ্দিন বিনয় ও রাফী উদ্দিন বিজয় প্রমুখ।

করোনা সচেতনতা বাড়াতে বিএসএএফ’র মাস্ক বিতরণ স্টাফ করেসপন্ডেন্ট করোনার সচেতনতা বাড়াতে মক্তরের শিশু শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের মাঝে মাস্ক বিতরণ করেছে সামাজিক সংগঠন বাংলাদেশ সোস্যাল অ্যাক্টিভিস্ট ফোরাম (বিএসএএফ)

বিনোদন

ব্ল্যাক ফাঙ্গাস

চীনের হুবেই প্রদেশের রাজধানী উহানে স্থানীয়ভাবে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ছড়াতে শুরু করার পর নতুন পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে। শহর কর্তৃপক্ষ আজ মঙ্গলবার বলেছে, শহরের সবার করোনা পরীক্ষা করবে তারা। খবর এএফপি ও রয়টার্সের।

২০১৯ সালের ডিসেম্বর মাসে করোনার সংক্রমণ ছড়িয়েছিল এই উহান থেকেই। এরপর বিশ্বের সব প্রান্তে ছড়িয়ে পড়েছে সেই সংক্রমণ। এখনো অনেক দেশ এই ভাইরাসের সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণ আনতে না পারলেও চীন তা নিয়ন্ত্রণে এনেছে। যদিও সম্প্রতি আবারও সেখানে সংক্রমণ বাড়তে শুরু করেছে।

চীনের ন্যাশনাল হেলথ কমিশন আজ জানিয়েছে, দেশটির মূল ভূখণ্ডে নতুন করে আরও ৯০ জনের শরীরে করোনা শনাক্ত হয়েছে। এর আগের দিন করোনায় আক্রান্ত হয়েছিল ৯৮ জন।

ন্যাশনাল হেলথ কমিশন জানিয়েছে, নতুন আক্রান্ত ৯০ জনের মধ্যে স্থানীয়ভাবে সংক্রমিত হয়েছেন ৬১ জন। এর আগের দিন এই সংখ্যা ছিল ৫১। এ ছাড়া যাঁরা আক্রান্ত হয়েছেন, তাঁদের মধ্যে ৪৫ জন জিয়ানসু প্রদেশের। এ ছাড়া ৫ জন নানজিং ও ৪০ জন ইয়াংঝু শহরের। তবে উহানে আজ কোনো সংক্রমণ শনাক্ত হয়নি। কিন্তু গতকাল সোমবার সেখানে সাতজনের শরীরে করোনা শনাক্ত হয়েছে। তাঁরা স্থানীয়ভাবে সংক্রমিত হয়েছেন। এই সাতজনই মূলত পরিযায়ী শ্রমিক। এরপর আজ উহান শহরের সংশ্লিষ্ট বিভাগের কর্মকর্তা লি তাও বলেন, এই শহরের সবার নিউক্লিক অ্যাসিড পরীক্ষা করা হবে।

উহানের সবার করোনা পরীক্ষা করা হবে শহরের সবার করোনা পরীক্ষা করবে তারা

পৃথিবীর সবচেয়ে ছোট গরু (রানি)

গরুর কথা উঠলেই কার গরু কতটা বড়, কত বেশি ওজন, কত বেশি দুধ দেয়- এ সব থাকে আলোচনায়। কোরবানির ঈদের আগে পত্রিকায় দেখতে পাওয়া যায় বড় বড় গরুর খবর। সেই সব গরুর বাহারি নাম দেওয়া হয়।

তবে সাভারের একটি গরুর নাম আলোচনায় এসেছে ভিন্ন কারণে। সবচেয়ে দামি কিংবা ওজনের জন্য নয়, এই গরুর নাম ছড়িয়েছে সবচেয়ে ছোট হওয়ার কারণে। নাম দেওয়া হয়েছে রানি। সাভারের আশুলিয়ার একটি খামারে পালন করা হচ্ছে রানিকে।

বিশ্বের সবচেয়ে ছোট গরুর রেকর্ড ছিল ভারতের কেরেলা রাজ্যের ৪ বছর বয়সী লাল রঙের মানিকিয়াম নামের এক গরুর। তবে সেটাকে পেছনে ফেলে দিয়েছে আশুলিয়ার চারিগ্রামের রানি। মাত্র ২০ ইঞ্চি উচ্চতার ২ বছর বয়সী ‘বক্সার ভূট্টি’ জাতের এই গরুটির ওজন মাত্র ২৬ কেজি।

গরুর মালিক সাভারের শিকড় এগ্রো লিমিটেডের ম্যানেজার আবু সুফিয়ান জানান, প্রতিষ্ঠানটি বছর দুয়েক আগে কোনো এক মাধ্যমে খবর পেয়ে নওগাঁর এক খামারির কাছ থেকে গরুটি কেনে। সেটিকে দিনে দুইবার খাবার দিতে হয়। সাধারণ গরুর তুলনায় এটির খাবার লাগে অনেকটা কম। ম্যানেজার আবু সুফিয়ান দাবি করেন, গরুটির দাম ৫ লাখ টাকা পর্যন্ত উঠেছে। তবে এত বেশি দাম উঠার কারণ ব্যাখ্যা করেননি তিনি।

তিষ্ঠানটি জানায়, ইন্টারনেট ঘেঁটে তারা জানতে পেরেছেন- এটিই পৃথিবীর মধ্যে সবচেয়ে ছোট গরু। এটি এখন কোরবানির উপযুক্ত। গরুটিকে বিশ্ব রেকর্ডে জায়গা করে দিতে গত ২ জুলাই গিনেস বুক অব ওয়ার্ল্ড রেকর্ডস কর্তৃপক্ষের কাছে আবেদন করা হয়েছে। ওই আবেদনের পর গিনেস বুক কর্তৃপক্ষ একটি রিপ্লাইও দিয়েছে। গিনেস কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, তাদের নিজস্ব কিছু প্রক্রিয়া রয়েছে। ওই প্রক্রিয়া শেষ করে তারা আগামী ৯০ দিনের মধ্যে সিদ্ধান্ত জানাবে। সব কিছু ঠিক থাকলে এই গরু বিশ্বের সবচেয়ে ছোট গরুর অফিসিয়াল তকমা পাবে।

পৃথিবীর সবচেয়ে ছোট গরু (রানি)

 

পৃথিবীর সবচেয়ে ছোট গরু (রানি)

গরুর কথা উঠলেই কার গরু কতটা বড়, কত বেশি ওজন, কত বেশি দুধ দেয়- এ সব থাকে আলোচনায়। কোরবানির ঈদের আগে পত্রিকায় দেখতে পাওয়া যায় বড় বড় গরুর খবর। সেই সব গরুর বাহারি নাম দেওয়া হয়।

তবে সাভারের একটি গরুর নাম আলোচনায় এসেছে ভিন্ন কারণে। সবচেয়ে দামি কিংবা ওজনের জন্য নয়, এই গরুর নাম ছড়িয়েছে সবচেয়ে ছোট হওয়ার কারণে। নাম দেওয়া হয়েছে রানি। সাভারের আশুলিয়ার একটি খামারে পালন করা হচ্ছে রানিকে।

বিশ্বের সবচেয়ে ছোট গরুর রেকর্ড ছিল ভারতের কেরেলা রাজ্যের ৪ বছর বয়সী লাল রঙের মানিকিয়াম নামের এক গরুর। তবে সেটাকে পেছনে ফেলে দিয়েছে আশুলিয়ার চারিগ্রামের রানি। মাত্র ২০ ইঞ্চি উচ্চতার ২ বছর বয়সী ‘বক্সার ভূট্টি’ জাতের এই গরুটির ওজন মাত্র ২৬ কেজি।

গরুর মালিক সাভারের শিকড় এগ্রো লিমিটেডের ম্যানেজার আবু সুফিয়ান জানান, প্রতিষ্ঠানটি বছর দুয়েক আগে কোনো এক মাধ্যমে খবর পেয়ে নওগাঁর এক খামারির কাছ থেকে গরুটি কেনে। সেটিকে দিনে দুইবার খাবার দিতে হয়। সাধারণ গরুর তুলনায় এটির খাবার লাগে অনেকটা কম। ম্যানেজার আবু সুফিয়ান দাবি করেন, গরুটির দাম ৫ লাখ টাকা পর্যন্ত উঠেছে। তবে এত বেশি দাম উঠার কারণ ব্যাখ্যা করেননি তিনি।

বিস্তারিত BM24TV

 

পৃথিবীর সবচেয়ে ছোট গরু (রানি)

বরেণ্য রবীন্দ্রসংগীতশিল্পী মিতা হক রাজধানীর একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ইন্তেকাল করেছেন। তাঁকে দাফন করা হবে কেরানীগঞ্জের বড় মনোহারিয়ায় ।

তাঁর বয়স হয়েছিল ৫৯ বছর। 

বরেণ্য রবীন্দ্রসংগীতশিল্পী মিতা হক রাজধানীর একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ইন্তেকাল করেছেন।

মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর রাজনৈতিক উপদেষ্টা জনাব এইচ টি ইমাম গত কাল রাত ১.১৫ টায় সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে মৃত্যুবরণ করেছেন। ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন।

মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর রাজনৈতিক উপদেষ্টা জনাব এইচ টি ইমাম গত কাল রাত ১.১৫ টায় সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে মৃত্যুবরণ করেছেন।

নব-নিযুক্ত ভারপ্রাপ্ত সেনাপ্রধান  এস এম শফিউদ্দিন আহমেদ (শফিক)

নব-নিযুক্ত ভারপ্রাপ্ত সেনাপ্রধান এস এম শফিউদ্দিন আহমেদ (শফিক)

তথ্যপ্রযুক্তি

“ময়ূরপঙ্খী উদ্যোক্তা সামিট” অনুষ্ঠিত দেশের বিভিন্ন প্রান্তের উদ্যোক্তা ও ময়ূরপঙ্খী পরিবারের সদস্যদের নিয়ে অনুষ্ঠিত হলো “ময়ূরপঙ্খী উদ্যোক্তা সামিট ও মেম্বার মিটআপ” অনুষ্ঠান । ময়ূরপঙ্খী ফাউন্ডেশন (গভঃ রেজিঃ নং: ঢ-০৯৫৮৭) ও ময়ূরপঙ্খী উদ্যোক্তা ফোরাম এর আয়োজনে ও ময়ূরপঙ্খী ইন্টারন্যাশনাল এর ইভেন্ট ব্যবস্থাপনায় ফরাজী হাসপাতাল প্রেজেন্টস “ময়ূরপঙ্খী উদ্যোক্তা সামিট ও মেম্বার মিটআপ” ও মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান রাজধানীর মিরপুরে অর্কিড সেন্টারে অনুষ্ঠিত হয় । যুব ও নারী উদ্যোক্তা, রন্ধন শিল্পী, বিভিন্ন স্বনামধন্য প্রতিষ্ঠানের স্বত্ত্বাধিকারীগণ এই সামিটে অংশগ্রহণ করেন । মূলত নতুন উদ্যোক্তাদের উৎসাহ প্রদানে এবং সফল উদ্যোক্তাদের বিশেষ সেশনের সমন্বয়ে আয়োজন করা হয়েছে এই অনুষ্ঠানটি । অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে ফরাজী হাসপাতাল ও ফরাজী ডেন্টাল ও রিসার্চ সেন্টারের চেয়ারম্যান স্বাস্থ্যবন্ধু ডাঃ আনোয়ার ফরাজী ইমন । বিশেষ অতিথি হিসেবে নুহা এন্ড ব্রাদার্সের চেয়ারম্যান খুরশীদ আলম, বিশেষ অতিথি হিসেবে বাংলাদেশ এক্সপোর্ট ফোরামের প্রেসিডেন্ট আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ, বিএম ট্রাভেলস এন্ড ট্যুরিজমের সিইও রবিউল ইসলাম রবি উপস্থিত ছিলেন । সভাপতিত্ব করেন ময়ূরপঙ্খীর প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান রুহিত সুমন । সামিটে আগত উদ্যোক্তাদের মধ্য থেকে দশজনকে ময়ূরপঙ্খী পুরস্কার প্রদান করা হয় ।

সম্মাননা পেয়েছেন মোঃ মোজাম্মেল হক, সাইমন খান, মোহাম্মদ এস. আলম, রেহানা সিদ্দিকী লিজা, রবিউল ইসলাম রবি, শহিদুল ইসলাম, ডাঃ এম. ইয়াসিন আলী, আফরোজা নাজনীন, নিপা রাজ্জাক, মৌনতা আলম । উদ্যোক্তাদের ট্রেনিং সেশনে ট্রেনার ছিলেন ওরিওন টি কোম্পানির হেড অফ মার্কেটিং মেহেদী হাসান, বাংলাদেশ এক্সপোর্ট ফোরামের প্রেসিডেন্ট আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ, ইফাদের ম্যানেজার-এক্সপোর্ট মৃত্যুঞ্জয় নাথ, ড্যানিসের ম্যানেজার-এক্সপোর্ট ফয়সাল আহমেদ । গেষ্ট স্পীকারদের সম্মাননা স্মারক প্রদান করা হয় । এছাড়া জমকালো সাংস্কৃতিক আয়োজন ও কেক কাটা পর্ব আগত অতিথি ও দর্শকবৃন্দ উপভোগ করেন । আগত উদ্যোক্তা ও সদস্যদের মেডেল, সার্টিফিকেট ও গিফট হ্যাম্পার প্রদান করা হয় । আরো ছিল কুইজ ও পুরস্কার প্রদান, মেহেদী উৎসব, ম্যাজিক, সংগীত ও ডিজে পারফর্মেন্স । অনুষ্ঠান প্রসঙ্গে রুহিত সুমন বলেন- আমাদের স্পন্সর ও পার্টনারদের সহযোগিায় অনুষ্ঠানটি সুন্দরভাবে সম্পন্ন হয়েছে ।

“ময়ূরপঙ্খী উদ্যোক্তা সামিট” এ সহযোগিতাকারী সকল স্পন্সর, পার্টনার ও মেম্বারদেরকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি । আশা করি ময়ূরপঙ্খীর সামনের ইভেন্টগুলোতেও সবার সহযোগিতা অব্যাহত থাকবে । বিশেষভাবে ধন্যবাদ জানাই ফরাজী হাসপাতালের চেয়ারম্যান স্বাস্থ্যবন্ধু ডাঃ আনোয়ার ফরাজী ইমন ভাই, লিজান গ্রুপের চেয়ারম্যান তানিয়া হক আপু, ফরাজী হাসপাতালের হেড অব কর্পোরেট মোঃ মোজাম্মেল হক ভাইসহ সম্মানিত সকল অতিথি, উদ্যোক্তা, ট্রেইনার, সাংবাদিক, গণমাধ্যমকর্মী ও দর্শকদের যাদের উপস্থিতি আমাদের এই অনুষ্ঠান কে আলোকিত করেছে । সার্বিক সহযোগিতায় ছিলেন- সাথী খান, মোঃ হৃদয় রহমান, নিশাত, মিকাইল হোসেন, সালাউদ্দিন স্বপন, ফারজানা ফেরদৌস, স্বপন ডিনার, ডিজে সুমি, সাব্বির চৌধুরী ।

“ময়ূরপঙ্খী উদ্যোক্তা সামিট” অনুষ্ঠিত দেশের বিভিন্ন প্রান্তের উদ্যোক্তা ও ময়ূরপঙ্খী পরিবারের সদস্যদের নিয়ে অনুষ্ঠিত হলো “ময়ূরপঙ্খী উদ্যোক্তা সামিট ও মেম্বার মিটআপ” অনুষ্ঠান

৭ আগস্ট থেকে ইউনিয়ন পর্যায়ের টিকাদান কেন্দ্রে জাতীয় পরিচয়পত্র নিয়ে গেলে ১৮ বছরের ঊর্ধ্বে সবাইকে টিকা দেওয়া হবে।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল।

৭ আগস্ট থেকে ইউনিয়ন পর্যায়ের টিকাদান কেন্দ্রে জাতীয় পরিচয়পত্র নিয়ে গেলে ১৮ বছরের ঊর্ধ্বে সবাইকে টিকা দেওয়া হবে — স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল।

ঈদুল আজহার আগে অনেকটাই শিথিল হচ্ছে বিধিনিষেধ।
আগামী ১৫ জুলাই থেকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলবে সব ধরনের গণপরিবহন। একই সঙ্গে খুলবে দোকানপাট-শপিংমল, সেক্ষেত্রেও স্বাস্থ্যবিধি কঠোরভাবে মানতে হবে।
এসব শর্ত দিয়ে বিধিনিষেধ শিথিল করে সোমবার সন্ধ্যা বা মঙ্গলবার সকাল নাগাদ মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে প্রজ্ঞাপন জারি করা হবে। শিথিল করে নতুন বিধিনিষেধের মেয়াদ আগামী ২৩ জুলাই পর্যন্ত বর্ধিত হতে পারে। মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে এসব তথ্য জানা গেছে।
শিথিল সময়ে সরকারি অফিস ভার্চুয়ালি চলবে বলেও জানা গেছে। ঈদুল আজহা উদযাপনে সুবিধার জন্য সরকার বিধিনিষেধ শিথিলের এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্টরা।
আগামী ২১ জুলাই (বুধবার) দেশে মুসলমানদের দ্বিতীয় বড় ধর্মীয় উৎসব পবিত্র ঈদুল আজহা উদযাপিত হবে। এরপর ২৩ জুলাই সকাল থেকে আবারও কঠোর বিধিনিষেধ দেয়ার প্রস্তুতি সরকারের রয়েছে বলে জানা গেছে।

১৫ জুলাই থেকে ২৩ জুলাই পর্যন্ত স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলবে সব ধরনের গণপরিবহন

হেফাজত মুসলিমদের ধর্মীয় বিশ্বাস নিয়ে বাণিজ্য করছে : উলামা পরিষদ

হেফাজত মুসলিমদের ধর্মীয় বিশ্বাস নিয়ে বাণিজ্য করছে : উলামা পরিষদ

হেফাজত মুসলিমদের ধর্মীয় বিশ্বাস নিয়ে বাণিজ্য করছে : উলামা পরিষদ হেফাজত সাম্প্রদায়িক জঙ্গি সংগঠন আখ্যা দিয়ে বঙ্গবন্ধু উলামা পরিষদের নেতারা সংগঠনটি নিষিদ্ধের দাবি জানিয়েছেন। তারা বলেছেন, হেফাজতে ইসলাম উগ্র-সাম্প্রদায়িক মানবতাবিরোধী জঙ্গি সংগঠন। বাঙালি মুসলিমদের ঈমান, আকিদা ও ধর্মীয় বিশ্বাস-অনুভূতি নিয়ে করছে বাণিজ্য। বুধবার ( ২৮ এপ্রিল) জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক মুফতী মাসুম বিল্লাহ নাফিয়ীর সভাপতিত্বে মানবতাবিরোধী সাম্প্রদায়িক জঙ্গি সংগঠন হেফাজতকে নিষিদ্ধকরণ ও সংগঠনের ব্যাংক একাউন্ট জব্দ করার দাবিতে আয়োজিত মানববন্ধনে বঙ্গবন্ধু উলামা পরিষদের নেতারা এসব কথা বলেন।

প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্যে সাবেক রাষ্ট্রদূত অধ্যাপক ড. নিম চন্দ্র ভৌমিক বলেন, হাজার বছরের সম্প্রীতির এই বাংলাদেশে হঠাৎ করে একটি ধর্মীয় সংগঠনে সাম্প্রদায়িক কর্মকান্ডে আমরা অভাগ হয়েছি। এই দেশ সকল ধর্ম ও বর্ণের মানুষ মিলে মিশে বসবাস করছে। হেফাজতে ইসলাম ২৪-২৫-২৬-২৭-২৮ মার্চ সমগ্র দেশব্যাপী যে তান্ডব চালিয়েছে তা মানবতাকে চরমভাবে ভূলুণ্ঠিত করেছে মানবতাবিরোধী তো বটেই এটা ইসলাম সমর্থন করে না। অন্যান্য ধর্মও এ তান্ডব সমর্থন করে না। বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের বাংলাদেশ নির্মাণে হেফাজতে ইসলামের সকল কর্মকান্ড নিষিদ্ধ করতে হবে।

সাম্প্রদায়িক অপশক্তি রুখতে হলে মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বিশ্বাসী সকল আলেম-উলামাদেরকেও ঐক্যবদ্ধ করে কাজে লাগাতে হবে। মানববন্ধনে আরো বক্তব্য রাখেন, মাওলানা আব্দুল আলিম আজাদী, মাওলানা শাইখ আলমগীর হোসাইন, হাফেজ মাওলানা হোসেন জুয়েল, মাওলানা হাফেজ আনোয়ার শাহ, আওয়ামী লীগ নেতা এহাইয়া খান কুতুবী, ন্যাশনাল ফ্রেন্ডশিপ সোসাইটির সভাপতি গণবন্ধু রাহাত হুসাইন, মাওলানা হাফেজ জলিল, মাওলানা মাহমুদুল্লাহ মেরাজ, আলহাজ্ব মোঃ সোহান চিশতী, নাফি উদ্দিন উদয়, শাফি উদ্দিন বিনয় প্রমুখ।

বঙ্গবন্ধু উলামা পরিষদের সাধারণ সম্পাদক মুফতী মাসুম বিল্লাহ নাফিয়ী বলেন, হেফাজতে ইসলাম প্রতিষ্ঠিত হয়েছে জামাতে ইসলামের অনুকরণে। বর্ণে ভিন্ন হলেও আদর্শে দিক দিয়ে সংগঠন দুটি অভিন্ন সত্ত্বায় বিরাজ করছে। হেফাজতে ইসলামের প্রতিষ্ঠাতা আহমদ শফিকে হত্যার মধ্য দিয়ে সংগঠনটিকে মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বিরোধী সাম্প্রদায়িক অপশক্তি জঙ্গীরা দখলে নিয়েছে। যার নেপথ্যে রয়েছে ৭১’র ঘাতক চক্র জামায়াত-বিএনপিসহ স্বাধীনতাবিরোধী রাজনৈতিক ও সামাজিক সংগঠন।

স্বাধীনতাবিরোধী চক্রের সমষ্টিগত নাম হচ্ছে হেফাজতে ইসলাম। জামায়াতে ইসলামের সাথে যেমন সম্পর্ক নেই তেমনি হেফাজতের সাথে ইসলামের মূল আদর্শের সম্পর্ক নেই। তিনি আরও বলেন, হেফাজতে ইসলামের কতিপয় নেতা দুর্নীতিগ্রস্থ হয়ে পরেছে। হেফাজতে ইসলামের নেতাদের অস্বাভাবিক লেনদেনের কারণে তাদের ব্যাংক একাউন্ট জব্দ করতে হবে। তাদের কাছে ইসলামও নিরাপদ নয়। ই

সলামের লেবাস লাগিয়ে হেফাজতে নেতারা নারী কেলেঙ্কারিসহ, দেশবিরোধী চক্রান্ত, ষড়যন্ত্র, ধোঁকা, সরকারি সম্পদ ধ্বংস, মানুষের ঘরবাড়ি জ্বালাও পোড়াও করছে। নারীদের ইজ্জত লুটতেও তারা ধর্মের ব্যবহার করছে। মুফতী মাসুম বিল্লাহ নাফিয়ী বলেন, আওয়ামী লীগের মধ্যে ঘাপটি মেরে থাকা হেফাজতে ইসলামের সমর্থকদের চিহ্নিত করে তাদের সংগঠন থেকে স্থায়ী বহিষ্কার করতে হবে।

মানববন্ধনে বঙ্গবন্ধু উলামা পরিষদের নেতারা বলেন, স্বাধীনতাবিরোধী সাম্প্রদায়িক অপশক্তি ধর্ম ব্যবসায়ীদের সংগঠন হেফাজতে ইসলামের ওপরে ভর করে দেশে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করে রাষ্ট্রীয় ক্ষমতা দখলের অপচেষ্টা করছে। হেফাজতে ইসলাম ধর্মের নামে বাঙালি মুসলিমদের ধর্মীয় বিশ্বাসের সাথে প্রতারণা করেছে। হেফাজতে ইসলামের আড়ালে মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বিরোধী শিবির ঐক্যবদ্ধ হয়ে দেশে জ্বালাও পড়াও শুরু করেছে। এদেরকে রুখতে হলে মুক্তিযুদ্ধের চেতনার স্বপক্ষের আলেম-ওলামা, পীর মাশায়েখদের ঐক্যবদ্ধ হওয়া সময়ের দাবি। সরকারকে এই বিষয়ে দায়িত্বশীলতার ভূমিকা নিতে হবে।

 

https://bm24tv.net/

হেফাজত মুসলিমদের ধর্মীয় বিশ্বাস নিয়ে বাণিজ্য করছে : উলামা পরিষদ

কিংবদন্তি চলচ্চিত্র অভিনেত্রী সারাহ বেগম কবরী রাজধানীর একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ইন্তেকাল করেছেন ( ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন ) ।

তার মৃত্যুতে চলচ্চিত্র অঙ্গনে শোকের ছায়া নেমে এসেছে। করোনায় আক্রান্ত হয়ে ১৩ দিনের মাথায় না ফেরার দেশে চলে গেলেন বাংলা চলচ্চিত্রের এই কিংবদন্তি অভিনেত্রী । তাঁর বয়স হয়েছিল ৭০ বছর।

কিংবদন্তি চলচ্চিত্র অভিনেত্রী সারাহ বেগম কবরী ইন্তেকাল করেছেন ( ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন ) ।

“আপনাদের শঙ্কিত হওয়ার কোন কারণ নেই। সরকার সব সময় আপনাদের পাশে রয়েছে। দ্বিতীয় ঢেউ আঘাত হানার পর আমি দরিদ্র-নিম্নবিত্ত মানুষদের সহায়তার জন্য কার্যক্রম গ্রহণের নির্দেশ দিয়েছি। আমরা ইতোমধ্যে পল্লী অঞ্চলে কর্মসৃজনের জন্য ৮০৭ কোটি ৬৫ লাখ টাকা এবং পবিত্র রমজান ও আসছে ঈদুল ফিতর উপলক্ষে ৬৭২ কোটিরও বেশি টাকা বরাদ্দ দিয়েছি। এর দ্বারা দেশের প্রায় ১ কোটি ২৪ লাখ ৪২ হাজার নিম্নবিত্ত পরিবার উপকৃত হবেন। গত বছর করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের পর থেকে ভিজিএফ, টেস্ট রিলিফসহ বিভিন্ন সামাজিক সুরক্ষা কার্যক্রমের আওতা বৃদ্ধি করা হয়েছে।”

“তবে আমাদের সবাইকে সাবধান হতে হবে। আমাদের প্রত্যেকের দায়িত্ব আমাদের নিজের, পরিবারের সদস্যদের এবং প্রতিবেশির সুরক্ষা প্রদানের। কাজেই ভিড় এড়িয়ে চলুন। বাইরে বের হলে মাস্ক ব্যবহার করুন। ঘরে ফিরে পরিস্কার-পরিচ্ছন্ন হয়ে গরম পানির ভাপ নিন। করোনাভাইরাস মোকাবিলায় সরকার ইতোমধ্যে ১৮-দফা নির্দেশনা জারি করেছে। আমরা যদি সকলে করোনাভাইরাস মোকাবিলার স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলি, অবশ্যই এই মহামারিকে আমরা নিয়ন্ত্রণে রাখতে সক্ষম হবো, ইনশাআল্লাহ।”

“প্রিয় দেশবাসী,
যুগে যুগে মহামারি আসে, আসে নানা ঝড়-ঝঞ্ঝা, দুর্যোগ-দুর্বিপাক। এসব মোকাবিলা করেই মানবজাতিকে টিকে থাকতে হয়। জীবনের চলার পথ মসৃণ নয়। তবে পথ যত কঠিনই হোক, আমাদের তা জয় করে এগিয়ে যেতে হবে।

আপনাদের শঙ্কিত হওয়ার কোন কারণ নেই। সরকার সব সময় আপনাদের পাশে রয়েছে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

ঢাকা

                         
বিএম ২৪ টিভির পক্ষ থেকে আন্তরিক শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন

‘বঙ্গবন্ধু আওয়ামী আইনজীবী পরিষদ সমর্থিত -সম্মিলিত আইনজীবী সমন্বয় পরিষদ’ কর্তৃক মনোনীত সাদা প্যানেলের নিরঙ্কুশ বিজয় বাংলাদেশ বার কাউন্সিল নির্বাচনে।
সর্বমোট ১৪ টি আসনের মধ্যে ১১ টি তে আওয়ামী লীগ সমর্থীত প্রার্থীরা বিজয়ী হয়েছেন।
বাংলাদেশ বার কাউন্সিল নির্বাচন ২০২২
৭টি সাধারন আসনে ৫ টি এবং ৭ টি গ্রুপ আসনের মধ্যে ৬ টিতে তথা- ১৪টি আসনের মধ্যে ১১টি আসনে সংখ্যাগরিষ্ঠতার সহিত সাদা প্যানেল অর্থাৎ আওয়ামীপন্থী বিজ্ঞ সদস্যগণকে আগামী ৩ বছরের জন্য সদস্য পদে নির্বাচিত করেছেন সারা বাংলাদেশের সাধারণ আইনজীবীরা।
সাধারন আসন
১. সৈয়দ রেজাউর রহমান
২.মোখলেসুর রহমান বাদল
৩. সাঈদ আহমেদের রাজা
৪. রবিউল আলম বুদূ
৫. কামরুল ইসলাম ( এমপি )
গ্রুপ আসন
৫. আব্দুল বাতেন (ঢাকা)
৬. মোহাম্মদ জালাল উদ্দিন খান ( টাঙ্গাইল/ফরিদপুর/ময়মনসিংহ )
৭. রুহুল আনাম চৌধুরী মিন্টু  ( কুমিল্লা/সিলেট )
৮. আনিস উদ্দিন আহমেদ সহীদ ( বরিশাল/খুলনা/পটুয়াখালী )
৯. মোঃ একরামুল হক ( রাজশাহী/যশোর/কুষ্টিয়া )
১০. মোঃ আব্দুর রহমান ( পাবনা/সিরাজগঞ্জ/রংপুর/দিনাজপুর )
আইনজীবীদের আস্থা আর ভালবাসার ঠিকানা বঙ্গবন্ধু আওয়ামী আইনজীবী পরিষদ।

‘বঙ্গবন্ধু আওয়ামী আইনজীবী পরিষদ সমর্থিত -সম্মিলিত আইনজীবী সমন্বয় পরিষদ’ কর্তৃক মনোনীত সাদা প্যানেলের নিরঙ্কুশ বিজয় বাংলাদেশ বার কাউন্সিল নির্বাচনে

ড. ওয়াজেদ মিয়ার স্মরণ ও রূহের মাগফিরাত কামনায় দোয়া মাহফিল –আওয়ামী ওলামা লীগ ।

৯ মে ২০২২ সোমবার বাংলাদেশ আওয়ামী ওলামা লীগ কেন্দ্রীয় কমিটির আয়োজনে হাইকোর্ট শরফ উদ্দিন চিশতী রাহঃ জামে মসজিদ এ বা’দ আসর বঙ্গবন্ধু ও খেখ ফজিলাতুন্নেছার জামাতা, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার স্বামী, মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক আন্তর্জাতিক পরমাণু বিজ্ঞানী ড. এম এ ওয়াজেদ মিয়া’র ১৩ তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষ্যে তার স্মরণ ও রূহের মাগফিরাত কামনায় আলোচনা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত।
বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় সংগ্রামী সাধারণ সম্পাদক হাফেজ মাওলানা আনোয়োর হোসেন জুয়েলের সঞ্চলনায় অনুষ্ঠানে ছিলেন, প্রধান অতিথি স্বাধীনতা পুরুস্কার প্রাপ্ত ইতিহাসবিদ সিরাজ উদ্দিন আহমেদ, প্রধান আলোচক, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ কেন্দ্রীয় উপ-কমিটি’র সদস্য জননেতা বেলাল নূরী, বিশেষ অতিথি ওলামা লীগের কার্যকরি সভাপতি মাওলানা আনোয়ার শাহ, বাংলাদেশ তাঁতী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক খান নুর এ খোদা মন্জু, ওলামা লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হাফেজ মাওলানা ইদ্রিচ আলম আল-কাদেরী, হাফেজ মাওলানা জাহাঙ্গীর আলম নূরী হুজুর প্রমূখ।

ড. ওয়াজেদ মিয়ার স্মরণ ও রূহের মাগফিরাত কামনায় দোয়া মাহফিল –আওয়ামী ওলামা লীগ ।

সাম্প্রদায়িকাতা নয় বঙ্গবন্ধু’র দেখানো পথেই ওলামা লীগ ১৫ এপ্রিল ২০২২ শুক্রবার ১৩ রমাদান সেগুনবাগিচা মধুরিমা রেস্তোরায় “মাহে রমাদানের শিক্ষা ও সংযম হউক মানবিক জীবন গড়ার পাথেয়” এই শিরোনামে বাংলাদেশ আওয়ামী ওলামা লীগ কেন্দ্রীয় কমিটির ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত। সংগঠনের সভাপতি মুফতী মাসুম বিল্লাহ নাফিয়ীর সভাপতিত্বে সাধারণ সম্পাদক হাফেজ মাওলানা মুহাম্মদ আনোয়ার হোসেন জুয়েলের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত ইফতার মাহফিলে প্রধান অতিথি হিসেবে ছিলেন, বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ হিন্দু বৌদ্ধ খ্রীষ্টান ঐক্য পরিষদের সভাপতি প্রফেসর ড, নিম চন্দ্র ভৌমিক, প্রধান আলোচক, বঙ্গবন্ধু শিক্ষা ও গবেষণা পরিষদের সাধারণ সম্পাদক প্রফেসর সিজারাজুল হক আলো, বিশেষ অতিথি বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ উপ-কমিটির সদস্য বেলাল নূরী, অনলাইন অ্যাক্টিভিস্ট ফোরামের সভাপতি কবীর চৌধিরী তন্ময়, কৃষক লীগের কেন্দ্রীয় ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক আলমগীর হোসেন, প্রফেসর সিদ্দিকুর রহমান, ওলামা লীগের কার্যকরি সভাপতি মাওলানা আনোয়ার শাহ, সিনিয়র সহ-সহ-সভাপতি মুফতী আল্লামা খলিলুর রহমান জিহাদী, মুখপাত্র ক্বারী মাওলানা আসাদুজ্জামান, যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক হাফেজ মাওলানা ইদ্রিছ আলম আলকাদেরী, মুফতী তৈয়বুর রহমান, বায়তুল ফজল মাদরাসার অধ্যক্ষ মাওলানা গোলাম মাওলা, মাওলানা মুহাম্মদ উল্লাহ মিরাজ,মাওলানা মিজানুর রহমান প্রমুখ। প্রধান অতিথি বলেন, সকল ধর্ম বর্ণের বাঙ্গালি জনগোষ্ঠীর আত্মত্যাগের মাধ্যমেই আমাদের স্বাধীনতা।

আর অসম্প্রদায়িক চেতনা নিয়েই সে স্বাধীনতার ডাক দিয়েছিলেন সর্বকালের শ্রেষ্ঠ বাঙ্গালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। আমি যতটুকু জানি সাম্প্রদায়িকাতা নয় বঙ্গবন্ধু’র দেখানো পথেই ওলামা লীগ। আমি বিশ্বাস করি সম্প্রীতির পথে আমরা অটুটভাবে হাটলেই বিশ্ব মানবতার মা বঙ্গকন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বঙ্গবন্ধু’র স্বপ্নের সোনার বাংলা নির্মাণ করতে বেশী সময় লাগবেনা।

দেশ আজ উন্নয়নের মহাসড়কে। দ্রুত উন্নত দেশে রূপান্তরিত হওয়ার পথে বাংলাদেশ। এছাড়াও আমরা সকল ধর্মের প্রতি আমরা শ্রদ্ধাশীল। অতীতের ন্যায় আগামীতেও ওলামা লীগ আরো সাংগঠনিক শক্তি সঞ্চয় করে মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় এগিয়ে যাবে। ইফতার মাহফিলে আমাদের অংশগ্রহণেই তা প্রমাণ করে। প্রফেসর জিরাজুল হক আলো বলেন, ওলামী লীগের কার্যক্রম শুধু রাজপথে আর ইফতার মাহফিলা সীমাবদ্ধ রাখলে চলবেনা।

প্রতিটি মাদরাসায় ওলামা লীগের কমিটি গঠন করতে হবে। মাদরাসার শিক্ষক ও ছাত্রদেরকে জাতির পিতার আদর্শে উদ্বুদ্ধ করতে হবে। মুক্তিযুদ্ধের চেতনার সাথে ইসলামের কোন সাংঘর্ষিকতা নেই সে বিষয়টি বুঝাতে হবে। বঙ্গবন্ধু ও আওয়ামী লীগ ইসলাম তথা ধর্মবিরোধী নয় ধর্মের স্বাধীনতায় বিশ্বাসী। অর্থাৎ ধর্ম যারযার বাংলাদেশ সবার। যারা ধর্মের নামে সাম্প্রদায়িকতা সৃষ্টির মাধ্যমে দেশের উন্নয়কে বাঁধাগ্রস্ত করতে চায় তাদেরকে রুখে দিতে হবে। ওলামা লীগকে এগিয়ে যেতে হবে অনেক দূর।

তাই ওলামা লীগকেই কার্যক্রমের মধ্য দিয়ে প্রমাণ করতে হবে আমরা বঙ্গবন্ধু’র অসম্প্রদায়িক চেতনায় বিশ্বাসী। তৃর্ণমূলে ওলামা লীগের চাহিদা রয়েছে। আমি প্রত্যাশা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী সেই বিষয়টি বিবেচনা করে ওলামা লীগ তথা ওলামা লীগের মূল্যায়ন করবেন ইনশাআল্লাহ। এছাড়াও ইফতার মাহফিলে অন্যান্য অতিথিগণ বক্তব্য রাখেন।

ইফতার পূর্ব দোয়ায় শহীদ বীর মুক্তিযোদ্ধা ও শহীদ জাতির পিতা এবং জাতির পরিবার, জাতীয় চার নেতা, গ্রেনেড হামলায় নিহত নারী নেত্রী আইভি রহমান সহ সকল নিহতদের রূহের শান্তি কামনা করা হয়। তাছাড়াও দোয়ায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রী সুস্বাস্থ্যসহ নিরাপদ দীর্ঘায়ু জীবন কামনা করে।

সাম্প্রদায়িকাতা নয় বঙ্গবন্ধু’র দেখানো পথেই ওলামা লীগ

মাদরাসা শিক্ষা ব্যবস্থায়েও বাংলা ভাষার চর্চা গৌণ : ওলামা লীগ স্টাফ করেসপন্ডেন্ট স্কুল-কলেজের পাশাপাশি মাদরাসা শিক্ষা ব্যবস্থায়েও বাংলা ভাষার চর্চা গৌণ বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশ আওয়ামী ওলামা লীগের নেতারা৷ রবিবার (১৩ ফেব্রুয়ারি) জাতীয় মসজিদ বায়তুল মেকাররমে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষ্যে ভাষাশহীদ ও ভাষাযোদ্ধাদের জন্য বিশেষ দোয়ার পূর্বে বক্তারা এসব কথা বলেন। যোহর নামাজের পর ভাষাশহিদদের জন্য বিশেষ দোয়া করা হয়। ওলামা লীগের নেতারা বলেন, মাতৃভাষা আল্লাহ সোবহানাহু তা’য়ালার একটি নিয়ামত। ভাষা। ইসলামেও ভাষা শিক্ষা, ভাষার ব্যবহার ও মাতৃভাষায় ইসলাম চর্চা করার বেশ গুরুত্ব আরোপ করা হয়েছে। ১৯৫২ সালের ভাষা আন্দোলনের মূল লক্ষ্য সর্বস্তরে বাংলা ভাষার প্রবর্তন, তা আজও পূরণ হয়নি। সরকারি কাজকর্মে বাংলা চালু থাকলেও ব্যবসা-বাণিজ্য, উচ্চশিক্ষা, গবেষণাসহ নানা গুরুত্বপূর্ণ ক্ষেত্রে ইংরেজির প্রাধান্য লক্ষণীয়। ইংরেজি ভিনদেশী ভাষা। বাংলায় আইন প্রণীত হলেও উচ্চ আদালতে এখনো বাংলা চালু হয়নি। শিক্ষিত তরুণ-তরুণীদের একাংশ মাতৃভাষা বাংলার পরিবর্তে ইংরেজি রপ্ত করতেই বেশি আগ্রহী। শিশুদের শিক্ষাক্ষেত্রে ইংরেজি মাধ্যমের প্রসার ঘটে চলেছে, সাধারণ বিদ্যালয়েও বাংলা অবহেলিত। মাদরাসা শিক্ষা ব্যবস্থায়েও বাংলা ভাষার চর্চা গৌণ। ওলামা লীগের সভাপতি মুফতী মাসুম বিল্লাহ নাফিয়ী বলেন, ভাষাশহীদ ও ভাষাযোদ্ধারা আমাদের অন্তহীন প্রেরণার উৎস। মাতৃভাষার দাবিতে বাঙালি তরুণদের সেদিনের আত্মদান শুধু ভাষার অধিকার প্রতিষ্ঠার মধ্যে সীমাবদ্ধ থাকেনি, ক্রমেই একটি গণতান্ত্রিক ও ন্যায়ভিত্তিক আধুনিক রাষ্ট্রব্যবস্থার স্বপ্ন ও অঙ্গীকার দানা বেঁধেছিল। সে স্বপ্নই স্বাধীনতাসংগ্রাম, সশস্ত্র মুক্তিযুদ্ধসহ ইতিহাসের প্রতিটি গুরুত্বপূর্ণ পর্যায়ে আমাদের পথ দেখিয়েছে। ভাষা আন্দোলন আজ আন্তর্জাতিক অঙ্গনে স্বীকৃত। দিবসটি এখন আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসও বটে। মাতৃভাষা বাংলার জন্য বাঙালির আত্মত্যাগের মহিমা ছড়িয়ে পড়েছে পৃথিবীর পরিমণ্ডলে। বিশ্বের প্রতিটি জনগোষ্ঠীর নিজ নিজ মাতৃভাষা সংরক্ষণ ও বিকাশের বিষয়টি তাদের রাজনৈতিক অধিকারের গুরুত্বপূর্ণ অংশ হিসেবে বিবেচিত। ওলামা লীগের সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার হোসাইন জুয়েল বলেন, মাতৃভাষাযোদ্ধাদের একসাগর রক্তের মধ্য দিয়ে অর্জিত অমর একুশে ফেব্রুয়ারি। প্রাণপ্রিয় মাতৃভাষা বাংলাকে রাষ্ট্রীয় ভাষার মর্যাদায় প্রতিষ্ঠিত করার আন্দোলনে পাকিস্তানী স্বৈরাচারী সরকারের পুলিশের গুলিতে সেই দিন শহীদ হন সালাম, রফিক, জব্বার, বরকত ও শফিকসহ অনেকে। পরিতাপের বিষয় হলো আজ বিদেশী ভাষার আগ্রাসনে বাংলা ভাষার মর্যাদা রক্ষা হচ্ছে না। তাই সর্বস্তরে বাংলা ভাষা চালুর জন্য মহান ২১ ফেব্রুয়ারির ভাষা আন্দোলনের চেতনাকে সামাজিক আন্দোলনে রূপান্তরিত করতে হবে। আর তা করতে পারলেই সর্বক্ষেত্রে বাংলাভাষার ব্যবহার সুনিশ্চিত করা যাবে বলে আমরা বিশ্বাস করি। দোয়া ও মুনাজাত পরিচালনা করেন জাতীয় মসজিদের ইমাম মুফতী হাফেজ মাওলানা মুহিব উল্লাহ হিল বাকী। মুনাজাতে ভাষাশহীদ ও ভাষাযোদ্ধাদের রুহের মাগফিরাত কামনাসহ জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও ১৫ আগষ্ট যারা শাহাদাৎ বরণ করেছেন তাদের এবং মহান মুক্তিযুদ্ধে শহীদ ও জাতীয় চার নেতারও রুহের মাগফিরা কামনা করা হয়। এছাড়াও মুনাজাতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সুস্বাস্থ্য, দীর্ঘায়ু কামনার পাশাপাশি করা হয়। দোয়া মাহফিলে অংশগ্রহণ করেন, সাবেক সচিব সিরাজ উদ্দীন আহমেদ, জাতীয় গণতান্ত্রিক লীগের সভাপতি এম এ জলিল, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ উপ-কমিটির সদস্য জননেতা বেলাল নূরী বাংলাদেশ কার্যকরী সভাপতি মাওলানা আনোয়ার শাহ, সিনিয়র সহ-, হাফেজ মাওলানা ইদ্রিচ আলম আল কাদেরী, মুফতী আব্দুল আলিম বিজয়নগরী, হাফেজ মাওলানা শামসুল আলম জাহাঙ্গীর নূরানী হুজুর, হাফেজ মাওলানা সাঈফুল ইসলাম, মাওলানা মোঃ আব্দুল মুবিন আখন্দ, হাফেজ মাওলানা মাহবুবুর রহনান, নাফি উদ্দিন উদয়, শাফি উদ্দিন বিনয় প্রমুুখ।

মাদরাসা শিক্ষা ব্যবস্থায়েও বাংলা ভাষার চর্চা গৌণ

সিনহা হত্যা: বরখাস্ত ওসি প্রদীপ, ইন্সপেক্টর লিয়াকতের মৃত্যুদণ্ড । ১৫ আসামির উপস্থিতিতে রায় ঘোষণা করেন বিচারক , ১৯ মাস পর চাঞ্চল্যকর এ মামলার রায় ঘোষণা হলো, পরিদর্শক লিয়াকতের গুলিতে নিহত হন মেজর (অব.) সিনহা ৩ এপিবিএন সদস্যসহ ৭ জনকে বেকসুর খালাস দেন আদালত ।

সিনহা হত্যা: বরখাস্ত ওসি প্রদীপ, ইন্সপেক্টর লিয়াকতের মৃত্যুদণ্ড ।

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের উপদেষ্ঠা মন্ডলীর সদস্য, ফেনী জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক, ফেনী-২ আসন থেকে ৩ বার নির্বাচিত সংসদ সদস্য, বীর মুক্তিযোদ্ধা জয়নাল আবেদীন হাজারী গতকাল বিকেল ৫ঃ৩০ মিনিটে রাজধানীর ল্যাব এইড হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ইন্তেকাল করেছেন, ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন। মরহুমের রুহের মাগফেরাত ও শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি বিএম ২৪ টিভির পক্ষ থেকে গভীর সমবেদনা জানাচ্ছি।

ফেনী-২ আসন থেকে ৩ বার নির্বাচিত সংসদ সদস্য, বীর মুক্তিযোদ্ধা জয়নাল আবেদীন হাজারী ইন্তেকাল করেছেন

প্রস্তুত ঢাকা নগর পরিবহন

গণপরিবহনে বিশৃঙ্খলা দূর করতে বাস রুট রেশনালাইজেশন কার্যক্রমের অংশ হিসেবে চালু হচ্ছে ঢাকা নগর পরিবহন। রোববার (২৬ ডিসেম্বর) রাজধানীর মোহাম্মদপুর এলাকা থেকে এর উদ্বোধন করা হবে। কেরানীগঞ্জের ঘাটারচর থেকে কাঁচপুর পর্যন্ত প্রায় ২১ কিলোমিটারের রুটে বিআরটিসির বাসের পাশাপাশি সবুজ রঙের বাস নিয়ে ঢাকা নগর পরিবহন যাত্রা শুরু করছে। এরইমধ্যে বাসগুলো প্রস্তুত করা হয়েছে। ফুল দিয়ে সাজানোও হয়েছে। বাসগুলো যেখানে রাখা হয়েছে, তার পাশেই তৈরি করা হয়েছে বিশাল উদ্বোধনী মঞ্চ। জানা গেছে, ২১ কিলোমিটারের এ রুটে ঢাকা নগর পরিবহনের ৫০টি বাস নিয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে রেশনালাইজেশন কার্যক্রম শুরু হবে। এ রুটে কিলোমিটারপ্রতি ভাড়া পড়বে দুই টাকা ২০ পয়সা। জানা গেছে, প্রথমে ৫০টি বাস নিয়ে যাত্রা শুরু হলেও কিছু দিনের মধ্যে এ রুটে মোট ১০০টি বাস চলাচল করবে।

প্রস্তুত ঢাকা নগর পরিবহন

বাঙ্গালী জাতিকে মেধাশূন্য করতে চেয়েছিল পাকিস্তানী হানাদার বাহিনী ১৪ ডিসেম্বর ২০২১ মঙ্গলবার রাজশাহীতে বাংলাদেশ সোস্যাল অ্যাক্টিভিস্ট ফোরাম রাজশাহী শাখা কর্তৃক শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস উপলক্ষ্যে শহরের বিভিন্ন সড়কে মোটরবাইক র্যালী, পথসভা ও মহান শহীদের স্মরণে রাজশাহী শহীদ বুদ্ধিজীবী স্মৃতিসৌধে শ্রদ্ধা নিবেদন করা করে। দিনব্যাপী এই কর্মসূচীতে অংশগ্রহণ করেছে বাংলাদেশ সোস্যাল অ্যাক্টিভিস্ট ফোরামের কেন্দ্রীয় প্রধান সমন্বয়ক মুফতী মাসুম বিল্লাহ নাফিয়ী,দুর্গাপুর উপজেলা কৃষক লীগের সভাপতি মুহাম্মদ রোকনুজ্জামান রোকন, আওয়ামী লীগ নেতা আব্দুল লতিফ, রাজশাহী বাংলাদেশ সোস্যাল অ্যাক্টিভিস্ট ফোরামের সমন্বয়ক আখতারউজ্জামান অভি,যুবলীগ নেতা হাবিব, মৎসজীবী লীগ নেতা শওনসহ ফোরামের বিভিন্ন স্তরের নেতৃবৃন্দ। পথসভায় নেতৃবৃন্দ বলেন, ১৯৭১ সালের ১৪ ডিসেম্বর বিজয়ের পূর্বক্ষণে বুদ্ধিজীবী হত্যার মধ্য দিয়ে বাঙ্গালী জাতিকে মেধাশূন্য করতে চেয়েছিল পাকিস্তানী হানাদার বাহিনী। পাক হায়ানারা বুঝতে পেরেছিল বাঙ্গালি জাতিকে আর ধমিয়ে রাখা যাবেনা। কারণ মুজিব বাহিনীর নেতৃত্বে মুক্তিযোদ্ধাদের সাথে সম্পৃক্ত হয়ে হয়েছে ভারতের মৈত্রী বাহিনী বন্ধ করা হয়েছে ভারতের আকাশ পথ। তাই তারা বাঙ্গালির জাতির স্বাধীনতা ও বিজয় সুনিশ্চিত জেনেই এই গণহত্যা সংঘটিত করেছিল। নৃশংস গণহত্যার শিকার হন শিক্ষক,সাহিত্যিক, সংস্কৃতিব্যক্তিত্ব ও সাংবাদিকসহ গুণীজন। নেতারা আরো বলেন, পাকিস্তান আজও বুদ্ধিজীবী হত্যার দায় স্বীকার করে বাঙ্গালি জাতির কাছে ক্ষমা চায়নি। তাই বাংলাদেশকে ভাবতে হবে পাকিস্তানের সাথে আমাদের সম্পর্ক রাখাটা কতটুকু যৌক্তিক? পাকিস্তান বাংলাদেশের বিরুদ্ধে তাদের পরাজয়ের প্রতিশোধে এখনো গভীর ষড়যন্ত্র লিপ্ত। এমনকি তাদের পেতাত্মাদেরকে দিয়ে বিভিন্ন নামে বেনামে সংগঠন সৃষ্টি করে বাঙ্গালিদের মধ্যে বিভাজন করার অপচেষ্টা করছে প্রতিনিয়ত। ধর্মের নামে করছে সাম্প্রদায়িক দাঙ্গা এবং জঙ্গী তৎপরতা। নেতারা পাকিদের এইসমস্ত অপতৎপরতার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান। সংগঠনটি শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবসে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানসহ সকল শহীদ মুক্তিযোদ্ধা এবং সম্ভ্রম হারানো পাঁচ লক্ষাধিক মা-বোন ও শহীদ বুদ্ধিজীবীদের রুহের শান্তি কামনার মাধ্যমে পথসভাসহ কর্মসূচীর ইতি করে।

বাঙ্গালী জাতিকে মেধাশূন্য করতে চেয়েছিল পাকিস্তানী হানাদার বাহিনী

খুলনা

বাংলাদেশে খেলতে এসে শুরুটা দুঃস্বপ্নের মতো হলো সফরকারী নিউজিল্যান্ডের। প্রথম টি-টোয়েন্টিতে বুধবার (১ সেপ্টেম্বর) বাংলাদেশের বোলারদের বিপক্ষে ব্যাট হাতে পুরোপুরি ব্যর্থ কিউই ব্যাটসম্যানরা। সাকিব-মেহেদীদের ঘূর্ণিতে শুরু থেকেই ম্যাচের নাটাই টিম টাইগার্সের হাতের মুঠোয় ছিল। ধুঁকতে ধুঁকতে শেষ পর্যন্ত কিউইদের ইনিংস থামে মাত্র ৬০ রানে।

এদিকে, ব্যাটিং বিপর্যয়ে নিজেদের সর্বনিম্ন রানের রেকর্ড স্পর্শ করেছে কিউইরা। এর আগে ২০১৪ সালে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষেও ৬০ রানে অলআউট হয়েছিল টম লাথামরা। এদিন বাংলাদেশের বোলাররা আবারো নিউজিল্যান্ডকে সেই লজ্জায় ডোবাল।

বাংলাদেশের বোলাররা ব্যাটসম্যানদের জন্য কাজটা সহজই করে দিলো। নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে প্রথম জয়ের স্বাদ পেতে হলে করতে হবে ৬১ রান।

কিউইদের সর্বনিম্ন রানের লজ্জায় ডোবাল টাইগাররা ইনিংস থামে মাত্র ৬০ রানে

পল্লবী থানায় করা টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ আইনের মামলায় গ্রেপ্তার আওয়ামী লীগের বহিষ্কৃত নেত্রী হেলেনা জাহাঙ্গীরকে জামিন দিয়েছেন আদালত। ঢাকার চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট (সিএমএম) আদালত আজ মঙ্গলবার শুনানি নিয়ে এ আদেশ দেন।

ঢাকা মহানগর পুলিশের অপরাধ ও তথ্য বিভাগের উপপরিদর্শক (এসআই) মোহাম্মদ সেলিম মিয়া প্রথম আলোকে এ তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করেন। আদালতসংশ্লিষ্ট সূত্র বলছে, গত ২৯ জুলাই রাজধানীর গুলশান থেকে বিদেশি মদসহ গ্রেপ্তার হন হেলেনা জাহাঙ্গীর।

হেলেনা জাহাঙ্গীরকে জামিন দিয়েছেন আদালত

সারা দেশে লকডাউনের বিধিনিষেধ শিথিল হওয়ায় চলবে বুধবার (১১ আগস্ট) থেকে বাস, ট্রেনসহ সব ধরনের গণপরিবহন। খুলবে দোকানপাট ও রেস্টুরেন্ট। রোববার এ বিষয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করেছে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ।

প্রজ্ঞাপন জারির পর থেকে সড়কে নামতে প্রস্তুতি নিতে শুরু করেছে পরিবহন কোম্পানিগুলো। বিক্রি হচ্ছে অগ্রিম টিকিটও। এ ছাড়া পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতার কাজে ব্যস্ত দোকান ও রেস্টুরেন্ট কর্তৃপক্ষ।

ঈদুল আজহার পর টানা ১৯ দিন কঠোর লকডাউনের বিধিনিষেধ উঠছে বুধবার থেকে। রোববার (৮ আগস্ট) দেশব্যাপী লকডাউনের শিথিলতার বিষয়ে এক প্রজ্ঞাপন জারি করে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ। এরপর থেকেই পরিবহন খাতের দীর্ঘ স্থবিরতায় ফিরে প্রাণ-চাঞ্চল্যতা।
প্রস্তুতির অংশ হিসেবে সোমবার (৯ আগস্ট) থেকেই চলছে নানা প্রস্তুতি। সকালে রাজধানীর বাস টার্মিনালগুলো ঘুরে দেখা গেছে, শ্রমিকরা বাস ধোয়ামোছার কাছে ব্যস্ত সময় পার করছেন। পরীক্ষা-নিরীক্ষা করা হচ্ছে যন্ত্রপাতি। রং করে বাস চলাচলের প্রস্তুতি নেওয়া হচ্ছে। 

প্রজ্ঞাপন জারির পর থেকে সড়কে নামতে প্রস্তুতি নিতে শুরু করেছে পরিবহন কোম্পানিগুলো।

করোনা সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে সরকারের জারি করা কঠোর বিধিনিষেধের সময়সীমা শেষ হওয়ার এক দিন আগেই আজ সোমবার রাজধানীর সড়কে প্রচুর যানবাহন নেমেছে। বাস ছাড়া প্রায় সব ধরনের যানবাহন সড়কে চলছে। যানবাহনের চাপে রাজধানীর বিভিন্ন সড়কে স্থাপিত পুলিশ তল্লাশিকেন্দ্রগুলো অনেকটাই নিষ্ক্রিয় হয়ে গেছে। রাজধানীর বিভিন্ন সড়কে দেখা গেছে যানজট।

চলমান কঠোর বিধিনিষেধ শুরু হয় ২৩ জুলাই সকালে। চলবে কাল মঙ্গলবার দিবাগত রাত ১২টা পর্যন্ত। বুধবার থেকে শর্ত সাপেক্ষে অফিস, গণপরিবহনসহ সবকিছু খুলে দেওয়া হবে। এ বিষয়ে গতকাল রোববার আদেশ জারি করেছে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ।

প্রত্যক্ষদর্শীরা বলছেন, চলমান কঠোর বিধিনিষেধের মধ্যে আজ সকাল থেকেই রাজধানীর সড়কে যানবাহনের চলাচল অন্য দিনের তুলনায় অনেক বেড়ে গেছে। ব্যক্তিগত গাড়ির পাশাপাশি প্রচুরসংখ্যক মোটরসাইকেল, কাভার্ড ভ্যান, এমনকি সিএনজিচালিত অটোরিকশা সড়কে নেমেছে। আর রিকশা তো আছে। যানবাহনের ব্যাপক চাপে আজ সকাল থেকেই রাজধানীর বিভিন্ন সড়কে যানজট দেখা গেছে।

বিধিনিষেধের সময়সীমা শেষ হওয়ার এক দিন আগেই রাজধানীর সড়কে প্রচুর যানবাহন নেমেছে

চলছে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে বাংলাদেশের টি-টোয়েন্টি সিরিজ। যেখানে ইতিহাস গড়েছে টাইগাররা। প্রথম তিন ম্যাচ জিতে সিরিজ জয় আগেই নিশ্চিত করেছে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের দল।

যদিও ৪র্থ ম্যাচে শনিবার (৭ আগস্ট) শেষ মুহূর্তে কষ্টার্জিত জয় পেয়েছে অজিরা। সোমবার (৯ আগস্ট) অনুষ্ঠিত হবে সিরিজের ৫ম ও শেষ ম্যাচ। সিরিজ জয় নিশ্চিত হওয়ায়, শেষ ম্যাচে বাংলাদেশ একাদশে আসতে পারে একাধিক পরিবর্তন।
টানা চার ম্যাচে ওপেনিংয়ে ব্যর্থ সৌম্য সরকার। তার পরিবর্তে অন্য খেলোয়াড়কে সুযোগ দেওয়ার কথাও উঠেছে। বিশ্রাম দেওয়া হতে পারে আরও দু-একজনকে। তবে বিভিন্ন সূত্রের খবর শেষ ম্যাচে খেলবেন না সাকিব আল হাসান।
বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) কাছ থেকে ছুটি নিয়ে রোববার (৮ আগস্ট) রাতে যুক্তরাষ্ট্রে পরিবারের কাছে যাবেন বিশ্বের অন্যতম সেরা এই অলরাউন্ডার। তবে নিউজল্যান্ড সিরিজের আগেই দেশে ফিরবেন সাকিব।
 
তবে অজিদের বিপক্ষে ৫ ম্যাচ সিরিজে ৪র্থ ম্যাচে মোটেও ভালো করেননি সাকিব। ৬, ৬, ৬, ০, ৬, ৬! সাকিবের বলে মিরপুরে ঝড় তুলেন অস্ট্রেলিয়ান ব্যাটসম্যান ড্যানিয়েল ক্রিস্টিয়ান। লং অন, ওয়াইড লং অন, মিডউইকেট, মিডউইকেট, লং অন- এ অঞ্চল দিয়ে পাঁচটি ছক্কা মেরেছেন ক্রিস্টিয়ান। এদিন সাকিব ওই পাঁচটি বাদেও আরও একটি ছয় মেরেছেন ডানহাতি ব্যাটসম্যান। এতে ৩ উইকেটে জয় পায় অজিরা। যদিও ইতোমধ্যে প্রথম ৩টি ম্যাচ জিতে ইতোমধ্যেই সিরিজ নিজেদের করে নিয়েছে স্বাগতিক বাংলাদেশ।  

শেষ ম্যাচ খেলবেন না সাকিব! কিন্তু কেন?

দেশব্যাপী ছড়িয়ে পড়া করোনাভাইরাসে প্রতিদিনই বাড়ছে মৃত্যু। আক্রান্তের সংখ্যাও বেড়েই চলেছে। লকডাউনেও থামানো যাচ্ছে না আক্রান্তের হার। শনিবার (৭ আগস্ট) এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত দেশের বিভিন্ন জেলায় করোনা ও উপসর্গে ১০২ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে।

রাজশাহী
রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে গেল ২৪ ঘণ্টায় করোনা ও উপসর্গ নিয়ে ১২ জনের মৃত্যু হয়েছে।

চাঁদপুর
চাঁদপুরে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা ও উপসর্গ নিয়ে আরও ১২ জনের মৃত্যু হয়েছে। এরমধ্যে ১০ জনই নারী। এরা সবাই চাঁদপুর ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।

বরিশাল
বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের করোনা ওয়ার্ডে গত ২৪ ঘণ্টায় মারা গেছেন ১৮ জন। এর মধ্যে ৩ জন পজেটিভ এবং বাকিদের ছিল নানা উপসর্গ।
কি‌শোরগ‌ঞ্জ
কি‌শোরগ‌ঞ্জে ক‌রোনায় আরও ৪ জ‌নের মৃত্যু হয়েছে।
কুমিল্লা
কুমিল্লায় করোনায় ১৪ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে।
চুয়াডাঙ্গা
চুয়াডাঙ্গায় করোনা ও উপসর্গে ৭ জনের মৃত্যু হয়েছে।
ময়মনসিংহ
ময়মনসিংহ মেডিকেলে করোনা ও উপসর্গ নিয়ে ১২ জনের মৃত্যু হয়েছে।
ঠাকুরগাঁও
ঠাকুরগাঁওয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় দুই জনের মৃত্যু হয়েছে।
সাতক্ষীরা
সাতক্ষীরা মেডিকেলে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা উপসর্গ নিয়ে ৫ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে।
দিনাজপুর
দিনাজপুরে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা ও করোনা উপসর্গ নিয়ে ৭ জনের মৃত্যু হয়েছে।
খুলনা
গত ২৪ ঘণ্টায় খুলনার হাসপাতালগুলোতে মারা গেছেন ৯ জন।
আরও আসছে…

সারা দেশে করোনায় শতাধিক মৃত্যুর খবর

ব্ল্যাক ফাঙ্গাস

করোনা পরীক্ষার মেশিনে ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ায় গাজীপুরে শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের করোনার নমুনা পরীক্ষা কার্যক্রম সাময়িকভাবে বন্ধ রাখা হয়েছে।

বুধবার (৪ আগস্ট) এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন হাসপাতালের মাইক্রোবায়োলজি বিভাগ ও ল্যাব প্রধান সহকারী অধ্যাপক মো. সাইফুল ইসলাম। তিনি জানান, পিসিআর ল্যাবে ভাইরাস সংক্রমিত হয়ে পড়লে মঙ্গলবার থেকে নমুনা পরীক্ষার কাজ বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

মো. সাইফুল ইসলাম বলেন, সোমবার বিকেলে পিসিআর মেশিনে করোনা পরীক্ষার জন্য ১২৩টি নমুনা দেওয়া হয়। এতে ১১৫টি পজেটিভ ও ৮টি নেগেটিভ ফল আসে। এ পরীক্ষার ফলাফল নিয়ে আমাদের সন্দেহ হয়। এ ছাড়া পিসিআর টিউবে যেখানে ভাইরাসের উপস্থিতি একেবারেই থাকার কথা নয় সেখানেও ভাইরাসের উপস্থিতি পাওয়ায় বিষয়টি আরও পরিষ্কার হয়। পরে আমরা সকল স্যাম্পল পুনঃপরীক্ষার জন্য ঢাকায় পাঠিয়েছি।

মেশিনে ছড়াল ভাইরাস, নমুনা পরীক্ষা বন্ধ

চট্টগ্রাম

বাংলাদেশে খেলতে এসে শুরুটা দুঃস্বপ্নের মতো হলো সফরকারী নিউজিল্যান্ডের। প্রথম টি-টোয়েন্টিতে বুধবার (১ সেপ্টেম্বর) বাংলাদেশের বোলারদের বিপক্ষে ব্যাট হাতে পুরোপুরি ব্যর্থ কিউই ব্যাটসম্যানরা। সাকিব-মেহেদীদের ঘূর্ণিতে শুরু থেকেই ম্যাচের নাটাই টিম টাইগার্সের হাতের মুঠোয় ছিল। ধুঁকতে ধুঁকতে শেষ পর্যন্ত কিউইদের ইনিংস থামে মাত্র ৬০ রানে।

এদিকে, ব্যাটিং বিপর্যয়ে নিজেদের সর্বনিম্ন রানের রেকর্ড স্পর্শ করেছে কিউইরা। এর আগে ২০১৪ সালে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষেও ৬০ রানে অলআউট হয়েছিল টম লাথামরা। এদিন বাংলাদেশের বোলাররা আবারো নিউজিল্যান্ডকে সেই লজ্জায় ডোবাল।

বাংলাদেশের বোলাররা ব্যাটসম্যানদের জন্য কাজটা সহজই করে দিলো। নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে প্রথম জয়ের স্বাদ পেতে হলে করতে হবে ৬১ রান।

কিউইদের সর্বনিম্ন রানের লজ্জায় ডোবাল টাইগাররা ইনিংস থামে মাত্র ৬০ রানে

পল্লবী থানায় করা টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ আইনের মামলায় গ্রেপ্তার আওয়ামী লীগের বহিষ্কৃত নেত্রী হেলেনা জাহাঙ্গীরকে জামিন দিয়েছেন আদালত। ঢাকার চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট (সিএমএম) আদালত আজ মঙ্গলবার শুনানি নিয়ে এ আদেশ দেন।

ঢাকা মহানগর পুলিশের অপরাধ ও তথ্য বিভাগের উপপরিদর্শক (এসআই) মোহাম্মদ সেলিম মিয়া প্রথম আলোকে এ তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করেন। আদালতসংশ্লিষ্ট সূত্র বলছে, গত ২৯ জুলাই রাজধানীর গুলশান থেকে বিদেশি মদসহ গ্রেপ্তার হন হেলেনা জাহাঙ্গীর।

হেলেনা জাহাঙ্গীরকে জামিন দিয়েছেন আদালত

সারা দেশে লকডাউনের বিধিনিষেধ শিথিল হওয়ায় চলবে বুধবার (১১ আগস্ট) থেকে বাস, ট্রেনসহ সব ধরনের গণপরিবহন। খুলবে দোকানপাট ও রেস্টুরেন্ট। রোববার এ বিষয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করেছে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ।

প্রজ্ঞাপন জারির পর থেকে সড়কে নামতে প্রস্তুতি নিতে শুরু করেছে পরিবহন কোম্পানিগুলো। বিক্রি হচ্ছে অগ্রিম টিকিটও। এ ছাড়া পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতার কাজে ব্যস্ত দোকান ও রেস্টুরেন্ট কর্তৃপক্ষ।

ঈদুল আজহার পর টানা ১৯ দিন কঠোর লকডাউনের বিধিনিষেধ উঠছে বুধবার থেকে। রোববার (৮ আগস্ট) দেশব্যাপী লকডাউনের শিথিলতার বিষয়ে এক প্রজ্ঞাপন জারি করে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ। এরপর থেকেই পরিবহন খাতের দীর্ঘ স্থবিরতায় ফিরে প্রাণ-চাঞ্চল্যতা।
প্রস্তুতির অংশ হিসেবে সোমবার (৯ আগস্ট) থেকেই চলছে নানা প্রস্তুতি। সকালে রাজধানীর বাস টার্মিনালগুলো ঘুরে দেখা গেছে, শ্রমিকরা বাস ধোয়ামোছার কাছে ব্যস্ত সময় পার করছেন। পরীক্ষা-নিরীক্ষা করা হচ্ছে যন্ত্রপাতি। রং করে বাস চলাচলের প্রস্তুতি নেওয়া হচ্ছে। 

প্রজ্ঞাপন জারির পর থেকে সড়কে নামতে প্রস্তুতি নিতে শুরু করেছে পরিবহন কোম্পানিগুলো।

করোনা সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে সরকারের জারি করা কঠোর বিধিনিষেধের সময়সীমা শেষ হওয়ার এক দিন আগেই আজ সোমবার রাজধানীর সড়কে প্রচুর যানবাহন নেমেছে। বাস ছাড়া প্রায় সব ধরনের যানবাহন সড়কে চলছে। যানবাহনের চাপে রাজধানীর বিভিন্ন সড়কে স্থাপিত পুলিশ তল্লাশিকেন্দ্রগুলো অনেকটাই নিষ্ক্রিয় হয়ে গেছে। রাজধানীর বিভিন্ন সড়কে দেখা গেছে যানজট।

চলমান কঠোর বিধিনিষেধ শুরু হয় ২৩ জুলাই সকালে। চলবে কাল মঙ্গলবার দিবাগত রাত ১২টা পর্যন্ত। বুধবার থেকে শর্ত সাপেক্ষে অফিস, গণপরিবহনসহ সবকিছু খুলে দেওয়া হবে। এ বিষয়ে গতকাল রোববার আদেশ জারি করেছে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ।

প্রত্যক্ষদর্শীরা বলছেন, চলমান কঠোর বিধিনিষেধের মধ্যে আজ সকাল থেকেই রাজধানীর সড়কে যানবাহনের চলাচল অন্য দিনের তুলনায় অনেক বেড়ে গেছে। ব্যক্তিগত গাড়ির পাশাপাশি প্রচুরসংখ্যক মোটরসাইকেল, কাভার্ড ভ্যান, এমনকি সিএনজিচালিত অটোরিকশা সড়কে নেমেছে। আর রিকশা তো আছে। যানবাহনের ব্যাপক চাপে আজ সকাল থেকেই রাজধানীর বিভিন্ন সড়কে যানজট দেখা গেছে।

বিধিনিষেধের সময়সীমা শেষ হওয়ার এক দিন আগেই রাজধানীর সড়কে প্রচুর যানবাহন নেমেছে

চলছে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে বাংলাদেশের টি-টোয়েন্টি সিরিজ। যেখানে ইতিহাস গড়েছে টাইগাররা। প্রথম তিন ম্যাচ জিতে সিরিজ জয় আগেই নিশ্চিত করেছে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের দল।

যদিও ৪র্থ ম্যাচে শনিবার (৭ আগস্ট) শেষ মুহূর্তে কষ্টার্জিত জয় পেয়েছে অজিরা। সোমবার (৯ আগস্ট) অনুষ্ঠিত হবে সিরিজের ৫ম ও শেষ ম্যাচ। সিরিজ জয় নিশ্চিত হওয়ায়, শেষ ম্যাচে বাংলাদেশ একাদশে আসতে পারে একাধিক পরিবর্তন।
টানা চার ম্যাচে ওপেনিংয়ে ব্যর্থ সৌম্য সরকার। তার পরিবর্তে অন্য খেলোয়াড়কে সুযোগ দেওয়ার কথাও উঠেছে। বিশ্রাম দেওয়া হতে পারে আরও দু-একজনকে। তবে বিভিন্ন সূত্রের খবর শেষ ম্যাচে খেলবেন না সাকিব আল হাসান।
বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) কাছ থেকে ছুটি নিয়ে রোববার (৮ আগস্ট) রাতে যুক্তরাষ্ট্রে পরিবারের কাছে যাবেন বিশ্বের অন্যতম সেরা এই অলরাউন্ডার। তবে নিউজল্যান্ড সিরিজের আগেই দেশে ফিরবেন সাকিব।
 
তবে অজিদের বিপক্ষে ৫ ম্যাচ সিরিজে ৪র্থ ম্যাচে মোটেও ভালো করেননি সাকিব। ৬, ৬, ৬, ০, ৬, ৬! সাকিবের বলে মিরপুরে ঝড় তুলেন অস্ট্রেলিয়ান ব্যাটসম্যান ড্যানিয়েল ক্রিস্টিয়ান। লং অন, ওয়াইড লং অন, মিডউইকেট, মিডউইকেট, লং অন- এ অঞ্চল দিয়ে পাঁচটি ছক্কা মেরেছেন ক্রিস্টিয়ান। এদিন সাকিব ওই পাঁচটি বাদেও আরও একটি ছয় মেরেছেন ডানহাতি ব্যাটসম্যান। এতে ৩ উইকেটে জয় পায় অজিরা। যদিও ইতোমধ্যে প্রথম ৩টি ম্যাচ জিতে ইতোমধ্যেই সিরিজ নিজেদের করে নিয়েছে স্বাগতিক বাংলাদেশ।  

শেষ ম্যাচ খেলবেন না সাকিব! কিন্তু কেন?

দেশব্যাপী ছড়িয়ে পড়া করোনাভাইরাসে প্রতিদিনই বাড়ছে মৃত্যু। আক্রান্তের সংখ্যাও বেড়েই চলেছে। লকডাউনেও থামানো যাচ্ছে না আক্রান্তের হার। শনিবার (৭ আগস্ট) এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত দেশের বিভিন্ন জেলায় করোনা ও উপসর্গে ১০২ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে।

রাজশাহী
রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে গেল ২৪ ঘণ্টায় করোনা ও উপসর্গ নিয়ে ১২ জনের মৃত্যু হয়েছে।

চাঁদপুর
চাঁদপুরে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা ও উপসর্গ নিয়ে আরও ১২ জনের মৃত্যু হয়েছে। এরমধ্যে ১০ জনই নারী। এরা সবাই চাঁদপুর ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।

বরিশাল
বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের করোনা ওয়ার্ডে গত ২৪ ঘণ্টায় মারা গেছেন ১৮ জন। এর মধ্যে ৩ জন পজেটিভ এবং বাকিদের ছিল নানা উপসর্গ।
কি‌শোরগ‌ঞ্জ
কি‌শোরগ‌ঞ্জে ক‌রোনায় আরও ৪ জ‌নের মৃত্যু হয়েছে।
কুমিল্লা
কুমিল্লায় করোনায় ১৪ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে।
চুয়াডাঙ্গা
চুয়াডাঙ্গায় করোনা ও উপসর্গে ৭ জনের মৃত্যু হয়েছে।
ময়মনসিংহ
ময়মনসিংহ মেডিকেলে করোনা ও উপসর্গ নিয়ে ১২ জনের মৃত্যু হয়েছে।
ঠাকুরগাঁও
ঠাকুরগাঁওয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় দুই জনের মৃত্যু হয়েছে।
সাতক্ষীরা
সাতক্ষীরা মেডিকেলে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা উপসর্গ নিয়ে ৫ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে।
দিনাজপুর
দিনাজপুরে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা ও করোনা উপসর্গ নিয়ে ৭ জনের মৃত্যু হয়েছে।
খুলনা
গত ২৪ ঘণ্টায় খুলনার হাসপাতালগুলোতে মারা গেছেন ৯ জন।
আরও আসছে…

সারা দেশে করোনায় শতাধিক মৃত্যুর খবর

ব্ল্যাক ফাঙ্গাস

করোনা পরীক্ষার মেশিনে ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ায় গাজীপুরে শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের করোনার নমুনা পরীক্ষা কার্যক্রম সাময়িকভাবে বন্ধ রাখা হয়েছে।

বুধবার (৪ আগস্ট) এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন হাসপাতালের মাইক্রোবায়োলজি বিভাগ ও ল্যাব প্রধান সহকারী অধ্যাপক মো. সাইফুল ইসলাম। তিনি জানান, পিসিআর ল্যাবে ভাইরাস সংক্রমিত হয়ে পড়লে মঙ্গলবার থেকে নমুনা পরীক্ষার কাজ বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

মো. সাইফুল ইসলাম বলেন, সোমবার বিকেলে পিসিআর মেশিনে করোনা পরীক্ষার জন্য ১২৩টি নমুনা দেওয়া হয়। এতে ১১৫টি পজেটিভ ও ৮টি নেগেটিভ ফল আসে। এ পরীক্ষার ফলাফল নিয়ে আমাদের সন্দেহ হয়। এ ছাড়া পিসিআর টিউবে যেখানে ভাইরাসের উপস্থিতি একেবারেই থাকার কথা নয় সেখানেও ভাইরাসের উপস্থিতি পাওয়ায় বিষয়টি আরও পরিষ্কার হয়। পরে আমরা সকল স্যাম্পল পুনঃপরীক্ষার জন্য ঢাকায় পাঠিয়েছি।

মেশিনে ছড়াল ভাইরাস, নমুনা পরীক্ষা বন্ধ

বরিশাল

বাংলাদেশে খেলতে এসে শুরুটা দুঃস্বপ্নের মতো হলো সফরকারী নিউজিল্যান্ডের। প্রথম টি-টোয়েন্টিতে বুধবার (১ সেপ্টেম্বর) বাংলাদেশের বোলারদের বিপক্ষে ব্যাট হাতে পুরোপুরি ব্যর্থ কিউই ব্যাটসম্যানরা। সাকিব-মেহেদীদের ঘূর্ণিতে শুরু থেকেই ম্যাচের নাটাই টিম টাইগার্সের হাতের মুঠোয় ছিল। ধুঁকতে ধুঁকতে শেষ পর্যন্ত কিউইদের ইনিংস থামে মাত্র ৬০ রানে।

এদিকে, ব্যাটিং বিপর্যয়ে নিজেদের সর্বনিম্ন রানের রেকর্ড স্পর্শ করেছে কিউইরা। এর আগে ২০১৪ সালে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষেও ৬০ রানে অলআউট হয়েছিল টম লাথামরা। এদিন বাংলাদেশের বোলাররা আবারো নিউজিল্যান্ডকে সেই লজ্জায় ডোবাল।

বাংলাদেশের বোলাররা ব্যাটসম্যানদের জন্য কাজটা সহজই করে দিলো। নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে প্রথম জয়ের স্বাদ পেতে হলে করতে হবে ৬১ রান।

কিউইদের সর্বনিম্ন রানের লজ্জায় ডোবাল টাইগাররা ইনিংস থামে মাত্র ৬০ রানে

পল্লবী থানায় করা টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ আইনের মামলায় গ্রেপ্তার আওয়ামী লীগের বহিষ্কৃত নেত্রী হেলেনা জাহাঙ্গীরকে জামিন দিয়েছেন আদালত। ঢাকার চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট (সিএমএম) আদালত আজ মঙ্গলবার শুনানি নিয়ে এ আদেশ দেন।

ঢাকা মহানগর পুলিশের অপরাধ ও তথ্য বিভাগের উপপরিদর্শক (এসআই) মোহাম্মদ সেলিম মিয়া প্রথম আলোকে এ তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করেন। আদালতসংশ্লিষ্ট সূত্র বলছে, গত ২৯ জুলাই রাজধানীর গুলশান থেকে বিদেশি মদসহ গ্রেপ্তার হন হেলেনা জাহাঙ্গীর।

হেলেনা জাহাঙ্গীরকে জামিন দিয়েছেন আদালত

সারা দেশে লকডাউনের বিধিনিষেধ শিথিল হওয়ায় চলবে বুধবার (১১ আগস্ট) থেকে বাস, ট্রেনসহ সব ধরনের গণপরিবহন। খুলবে দোকানপাট ও রেস্টুরেন্ট। রোববার এ বিষয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করেছে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ।

প্রজ্ঞাপন জারির পর থেকে সড়কে নামতে প্রস্তুতি নিতে শুরু করেছে পরিবহন কোম্পানিগুলো। বিক্রি হচ্ছে অগ্রিম টিকিটও। এ ছাড়া পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতার কাজে ব্যস্ত দোকান ও রেস্টুরেন্ট কর্তৃপক্ষ।

ঈদুল আজহার পর টানা ১৯ দিন কঠোর লকডাউনের বিধিনিষেধ উঠছে বুধবার থেকে। রোববার (৮ আগস্ট) দেশব্যাপী লকডাউনের শিথিলতার বিষয়ে এক প্রজ্ঞাপন জারি করে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ। এরপর থেকেই পরিবহন খাতের দীর্ঘ স্থবিরতায় ফিরে প্রাণ-চাঞ্চল্যতা।
প্রস্তুতির অংশ হিসেবে সোমবার (৯ আগস্ট) থেকেই চলছে নানা প্রস্তুতি। সকালে রাজধানীর বাস টার্মিনালগুলো ঘুরে দেখা গেছে, শ্রমিকরা বাস ধোয়ামোছার কাছে ব্যস্ত সময় পার করছেন। পরীক্ষা-নিরীক্ষা করা হচ্ছে যন্ত্রপাতি। রং করে বাস চলাচলের প্রস্তুতি নেওয়া হচ্ছে। 

প্রজ্ঞাপন জারির পর থেকে সড়কে নামতে প্রস্তুতি নিতে শুরু করেছে পরিবহন কোম্পানিগুলো।

করোনা সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে সরকারের জারি করা কঠোর বিধিনিষেধের সময়সীমা শেষ হওয়ার এক দিন আগেই আজ সোমবার রাজধানীর সড়কে প্রচুর যানবাহন নেমেছে। বাস ছাড়া প্রায় সব ধরনের যানবাহন সড়কে চলছে। যানবাহনের চাপে রাজধানীর বিভিন্ন সড়কে স্থাপিত পুলিশ তল্লাশিকেন্দ্রগুলো অনেকটাই নিষ্ক্রিয় হয়ে গেছে। রাজধানীর বিভিন্ন সড়কে দেখা গেছে যানজট।

চলমান কঠোর বিধিনিষেধ শুরু হয় ২৩ জুলাই সকালে। চলবে কাল মঙ্গলবার দিবাগত রাত ১২টা পর্যন্ত। বুধবার থেকে শর্ত সাপেক্ষে অফিস, গণপরিবহনসহ সবকিছু খুলে দেওয়া হবে। এ বিষয়ে গতকাল রোববার আদেশ জারি করেছে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ।

প্রত্যক্ষদর্শীরা বলছেন, চলমান কঠোর বিধিনিষেধের মধ্যে আজ সকাল থেকেই রাজধানীর সড়কে যানবাহনের চলাচল অন্য দিনের তুলনায় অনেক বেড়ে গেছে। ব্যক্তিগত গাড়ির পাশাপাশি প্রচুরসংখ্যক মোটরসাইকেল, কাভার্ড ভ্যান, এমনকি সিএনজিচালিত অটোরিকশা সড়কে নেমেছে। আর রিকশা তো আছে। যানবাহনের ব্যাপক চাপে আজ সকাল থেকেই রাজধানীর বিভিন্ন সড়কে যানজট দেখা গেছে।

বিধিনিষেধের সময়সীমা শেষ হওয়ার এক দিন আগেই রাজধানীর সড়কে প্রচুর যানবাহন নেমেছে

চলছে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে বাংলাদেশের টি-টোয়েন্টি সিরিজ। যেখানে ইতিহাস গড়েছে টাইগাররা। প্রথম তিন ম্যাচ জিতে সিরিজ জয় আগেই নিশ্চিত করেছে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের দল।

যদিও ৪র্থ ম্যাচে শনিবার (৭ আগস্ট) শেষ মুহূর্তে কষ্টার্জিত জয় পেয়েছে অজিরা। সোমবার (৯ আগস্ট) অনুষ্ঠিত হবে সিরিজের ৫ম ও শেষ ম্যাচ। সিরিজ জয় নিশ্চিত হওয়ায়, শেষ ম্যাচে বাংলাদেশ একাদশে আসতে পারে একাধিক পরিবর্তন।
টানা চার ম্যাচে ওপেনিংয়ে ব্যর্থ সৌম্য সরকার। তার পরিবর্তে অন্য খেলোয়াড়কে সুযোগ দেওয়ার কথাও উঠেছে। বিশ্রাম দেওয়া হতে পারে আরও দু-একজনকে। তবে বিভিন্ন সূত্রের খবর শেষ ম্যাচে খেলবেন না সাকিব আল হাসান।
বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) কাছ থেকে ছুটি নিয়ে রোববার (৮ আগস্ট) রাতে যুক্তরাষ্ট্রে পরিবারের কাছে যাবেন বিশ্বের অন্যতম সেরা এই অলরাউন্ডার। তবে নিউজল্যান্ড সিরিজের আগেই দেশে ফিরবেন সাকিব।
 
তবে অজিদের বিপক্ষে ৫ ম্যাচ সিরিজে ৪র্থ ম্যাচে মোটেও ভালো করেননি সাকিব। ৬, ৬, ৬, ০, ৬, ৬! সাকিবের বলে মিরপুরে ঝড় তুলেন অস্ট্রেলিয়ান ব্যাটসম্যান ড্যানিয়েল ক্রিস্টিয়ান। লং অন, ওয়াইড লং অন, মিডউইকেট, মিডউইকেট, লং অন- এ অঞ্চল দিয়ে পাঁচটি ছক্কা মেরেছেন ক্রিস্টিয়ান। এদিন সাকিব ওই পাঁচটি বাদেও আরও একটি ছয় মেরেছেন ডানহাতি ব্যাটসম্যান। এতে ৩ উইকেটে জয় পায় অজিরা। যদিও ইতোমধ্যে প্রথম ৩টি ম্যাচ জিতে ইতোমধ্যেই সিরিজ নিজেদের করে নিয়েছে স্বাগতিক বাংলাদেশ।  

শেষ ম্যাচ খেলবেন না সাকিব! কিন্তু কেন?

দেশব্যাপী ছড়িয়ে পড়া করোনাভাইরাসে প্রতিদিনই বাড়ছে মৃত্যু। আক্রান্তের সংখ্যাও বেড়েই চলেছে। লকডাউনেও থামানো যাচ্ছে না আক্রান্তের হার। শনিবার (৭ আগস্ট) এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত দেশের বিভিন্ন জেলায় করোনা ও উপসর্গে ১০২ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে।

রাজশাহী
রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে গেল ২৪ ঘণ্টায় করোনা ও উপসর্গ নিয়ে ১২ জনের মৃত্যু হয়েছে।

চাঁদপুর
চাঁদপুরে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা ও উপসর্গ নিয়ে আরও ১২ জনের মৃত্যু হয়েছে। এরমধ্যে ১০ জনই নারী। এরা সবাই চাঁদপুর ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।

বরিশাল
বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের করোনা ওয়ার্ডে গত ২৪ ঘণ্টায় মারা গেছেন ১৮ জন। এর মধ্যে ৩ জন পজেটিভ এবং বাকিদের ছিল নানা উপসর্গ।
কি‌শোরগ‌ঞ্জ
কি‌শোরগ‌ঞ্জে ক‌রোনায় আরও ৪ জ‌নের মৃত্যু হয়েছে।
কুমিল্লা
কুমিল্লায় করোনায় ১৪ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে।
চুয়াডাঙ্গা
চুয়াডাঙ্গায় করোনা ও উপসর্গে ৭ জনের মৃত্যু হয়েছে।
ময়মনসিংহ
ময়মনসিংহ মেডিকেলে করোনা ও উপসর্গ নিয়ে ১২ জনের মৃত্যু হয়েছে।
ঠাকুরগাঁও
ঠাকুরগাঁওয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় দুই জনের মৃত্যু হয়েছে।
সাতক্ষীরা
সাতক্ষীরা মেডিকেলে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা উপসর্গ নিয়ে ৫ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে।
দিনাজপুর
দিনাজপুরে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা ও করোনা উপসর্গ নিয়ে ৭ জনের মৃত্যু হয়েছে।
খুলনা
গত ২৪ ঘণ্টায় খুলনার হাসপাতালগুলোতে মারা গেছেন ৯ জন।
আরও আসছে…

সারা দেশে করোনায় শতাধিক মৃত্যুর খবর

ব্ল্যাক ফাঙ্গাস

করোনা পরীক্ষার মেশিনে ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ায় গাজীপুরে শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের করোনার নমুনা পরীক্ষা কার্যক্রম সাময়িকভাবে বন্ধ রাখা হয়েছে।

বুধবার (৪ আগস্ট) এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন হাসপাতালের মাইক্রোবায়োলজি বিভাগ ও ল্যাব প্রধান সহকারী অধ্যাপক মো. সাইফুল ইসলাম। তিনি জানান, পিসিআর ল্যাবে ভাইরাস সংক্রমিত হয়ে পড়লে মঙ্গলবার থেকে নমুনা পরীক্ষার কাজ বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

মো. সাইফুল ইসলাম বলেন, সোমবার বিকেলে পিসিআর মেশিনে করোনা পরীক্ষার জন্য ১২৩টি নমুনা দেওয়া হয়। এতে ১১৫টি পজেটিভ ও ৮টি নেগেটিভ ফল আসে। এ পরীক্ষার ফলাফল নিয়ে আমাদের সন্দেহ হয়। এ ছাড়া পিসিআর টিউবে যেখানে ভাইরাসের উপস্থিতি একেবারেই থাকার কথা নয় সেখানেও ভাইরাসের উপস্থিতি পাওয়ায় বিষয়টি আরও পরিষ্কার হয়। পরে আমরা সকল স্যাম্পল পুনঃপরীক্ষার জন্য ঢাকায় পাঠিয়েছি।

মেশিনে ছড়াল ভাইরাস, নমুনা পরীক্ষা বন্ধ

https://www.facebook.com/bm24tvofficialpage

ময়মনসিংহ

বাংলাদেশে খেলতে এসে শুরুটা দুঃস্বপ্নের মতো হলো সফরকারী নিউজিল্যান্ডের। প্রথম টি-টোয়েন্টিতে বুধবার (১ সেপ্টেম্বর) বাংলাদেশের বোলারদের বিপক্ষে ব্যাট হাতে পুরোপুরি ব্যর্থ কিউই ব্যাটসম্যানরা। সাকিব-মেহেদীদের ঘূর্ণিতে শুরু থেকেই ম্যাচের নাটাই টিম টাইগার্সের হাতের মুঠোয় ছিল। ধুঁকতে ধুঁকতে শেষ পর্যন্ত কিউইদের ইনিংস থামে মাত্র ৬০ রানে।

এদিকে, ব্যাটিং বিপর্যয়ে নিজেদের সর্বনিম্ন রানের রেকর্ড স্পর্শ করেছে কিউইরা। এর আগে ২০১৪ সালে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষেও ৬০ রানে অলআউট হয়েছিল টম লাথামরা। এদিন বাংলাদেশের বোলাররা আবারো নিউজিল্যান্ডকে সেই লজ্জায় ডোবাল।

বাংলাদেশের বোলাররা ব্যাটসম্যানদের জন্য কাজটা সহজই করে দিলো। নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে প্রথম জয়ের স্বাদ পেতে হলে করতে হবে ৬১ রান।

কিউইদের সর্বনিম্ন রানের লজ্জায় ডোবাল টাইগাররা ইনিংস থামে মাত্র ৬০ রানে

পল্লবী থানায় করা টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ আইনের মামলায় গ্রেপ্তার আওয়ামী লীগের বহিষ্কৃত নেত্রী হেলেনা জাহাঙ্গীরকে জামিন দিয়েছেন আদালত। ঢাকার চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট (সিএমএম) আদালত আজ মঙ্গলবার শুনানি নিয়ে এ আদেশ দেন।

ঢাকা মহানগর পুলিশের অপরাধ ও তথ্য বিভাগের উপপরিদর্শক (এসআই) মোহাম্মদ সেলিম মিয়া প্রথম আলোকে এ তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করেন। আদালতসংশ্লিষ্ট সূত্র বলছে, গত ২৯ জুলাই রাজধানীর গুলশান থেকে বিদেশি মদসহ গ্রেপ্তার হন হেলেনা জাহাঙ্গীর।

হেলেনা জাহাঙ্গীরকে জামিন দিয়েছেন আদালত

সারা দেশে লকডাউনের বিধিনিষেধ শিথিল হওয়ায় চলবে বুধবার (১১ আগস্ট) থেকে বাস, ট্রেনসহ সব ধরনের গণপরিবহন। খুলবে দোকানপাট ও রেস্টুরেন্ট। রোববার এ বিষয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করেছে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ।

প্রজ্ঞাপন জারির পর থেকে সড়কে নামতে প্রস্তুতি নিতে শুরু করেছে পরিবহন কোম্পানিগুলো। বিক্রি হচ্ছে অগ্রিম টিকিটও। এ ছাড়া পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতার কাজে ব্যস্ত দোকান ও রেস্টুরেন্ট কর্তৃপক্ষ।

ঈদুল আজহার পর টানা ১৯ দিন কঠোর লকডাউনের বিধিনিষেধ উঠছে বুধবার থেকে। রোববার (৮ আগস্ট) দেশব্যাপী লকডাউনের শিথিলতার বিষয়ে এক প্রজ্ঞাপন জারি করে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ। এরপর থেকেই পরিবহন খাতের দীর্ঘ স্থবিরতায় ফিরে প্রাণ-চাঞ্চল্যতা।
প্রস্তুতির অংশ হিসেবে সোমবার (৯ আগস্ট) থেকেই চলছে নানা প্রস্তুতি। সকালে রাজধানীর বাস টার্মিনালগুলো ঘুরে দেখা গেছে, শ্রমিকরা বাস ধোয়ামোছার কাছে ব্যস্ত সময় পার করছেন। পরীক্ষা-নিরীক্ষা করা হচ্ছে যন্ত্রপাতি। রং করে বাস চলাচলের প্রস্তুতি নেওয়া হচ্ছে। 

প্রজ্ঞাপন জারির পর থেকে সড়কে নামতে প্রস্তুতি নিতে শুরু করেছে পরিবহন কোম্পানিগুলো।

করোনা সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে সরকারের জারি করা কঠোর বিধিনিষেধের সময়সীমা শেষ হওয়ার এক দিন আগেই আজ সোমবার রাজধানীর সড়কে প্রচুর যানবাহন নেমেছে। বাস ছাড়া প্রায় সব ধরনের যানবাহন সড়কে চলছে। যানবাহনের চাপে রাজধানীর বিভিন্ন সড়কে স্থাপিত পুলিশ তল্লাশিকেন্দ্রগুলো অনেকটাই নিষ্ক্রিয় হয়ে গেছে। রাজধানীর বিভিন্ন সড়কে দেখা গেছে যানজট।

চলমান কঠোর বিধিনিষেধ শুরু হয় ২৩ জুলাই সকালে। চলবে কাল মঙ্গলবার দিবাগত রাত ১২টা পর্যন্ত। বুধবার থেকে শর্ত সাপেক্ষে অফিস, গণপরিবহনসহ সবকিছু খুলে দেওয়া হবে। এ বিষয়ে গতকাল রোববার আদেশ জারি করেছে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ।

প্রত্যক্ষদর্শীরা বলছেন, চলমান কঠোর বিধিনিষেধের মধ্যে আজ সকাল থেকেই রাজধানীর সড়কে যানবাহনের চলাচল অন্য দিনের তুলনায় অনেক বেড়ে গেছে। ব্যক্তিগত গাড়ির পাশাপাশি প্রচুরসংখ্যক মোটরসাইকেল, কাভার্ড ভ্যান, এমনকি সিএনজিচালিত অটোরিকশা সড়কে নেমেছে। আর রিকশা তো আছে। যানবাহনের ব্যাপক চাপে আজ সকাল থেকেই রাজধানীর বিভিন্ন সড়কে যানজট দেখা গেছে।

বিধিনিষেধের সময়সীমা শেষ হওয়ার এক দিন আগেই রাজধানীর সড়কে প্রচুর যানবাহন নেমেছে

রংপুর

বাংলাদেশে খেলতে এসে শুরুটা দুঃস্বপ্নের মতো হলো সফরকারী নিউজিল্যান্ডের। প্রথম টি-টোয়েন্টিতে বুধবার (১ সেপ্টেম্বর) বাংলাদেশের বোলারদের বিপক্ষে ব্যাট হাতে পুরোপুরি ব্যর্থ কিউই ব্যাটসম্যানরা। সাকিব-মেহেদীদের ঘূর্ণিতে শুরু থেকেই ম্যাচের নাটাই টিম টাইগার্সের হাতের মুঠোয় ছিল। ধুঁকতে ধুঁকতে শেষ পর্যন্ত কিউইদের ইনিংস থামে মাত্র ৬০ রানে।

এদিকে, ব্যাটিং বিপর্যয়ে নিজেদের সর্বনিম্ন রানের রেকর্ড স্পর্শ করেছে কিউইরা। এর আগে ২০১৪ সালে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষেও ৬০ রানে অলআউট হয়েছিল টম লাথামরা। এদিন বাংলাদেশের বোলাররা আবারো নিউজিল্যান্ডকে সেই লজ্জায় ডোবাল।

বাংলাদেশের বোলাররা ব্যাটসম্যানদের জন্য কাজটা সহজই করে দিলো। নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে প্রথম জয়ের স্বাদ পেতে হলে করতে হবে ৬১ রান।

কিউইদের সর্বনিম্ন রানের লজ্জায় ডোবাল টাইগাররা ইনিংস থামে মাত্র ৬০ রানে

পল্লবী থানায় করা টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ আইনের মামলায় গ্রেপ্তার আওয়ামী লীগের বহিষ্কৃত নেত্রী হেলেনা জাহাঙ্গীরকে জামিন দিয়েছেন আদালত। ঢাকার চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট (সিএমএম) আদালত আজ মঙ্গলবার শুনানি নিয়ে এ আদেশ দেন।

ঢাকা মহানগর পুলিশের অপরাধ ও তথ্য বিভাগের উপপরিদর্শক (এসআই) মোহাম্মদ সেলিম মিয়া প্রথম আলোকে এ তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করেন। আদালতসংশ্লিষ্ট সূত্র বলছে, গত ২৯ জুলাই রাজধানীর গুলশান থেকে বিদেশি মদসহ গ্রেপ্তার হন হেলেনা জাহাঙ্গীর।

হেলেনা জাহাঙ্গীরকে জামিন দিয়েছেন আদালত

সারা দেশে লকডাউনের বিধিনিষেধ শিথিল হওয়ায় চলবে বুধবার (১১ আগস্ট) থেকে বাস, ট্রেনসহ সব ধরনের গণপরিবহন। খুলবে দোকানপাট ও রেস্টুরেন্ট। রোববার এ বিষয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করেছে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ।

প্রজ্ঞাপন জারির পর থেকে সড়কে নামতে প্রস্তুতি নিতে শুরু করেছে পরিবহন কোম্পানিগুলো। বিক্রি হচ্ছে অগ্রিম টিকিটও। এ ছাড়া পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতার কাজে ব্যস্ত দোকান ও রেস্টুরেন্ট কর্তৃপক্ষ।

ঈদুল আজহার পর টানা ১৯ দিন কঠোর লকডাউনের বিধিনিষেধ উঠছে বুধবার থেকে। রোববার (৮ আগস্ট) দেশব্যাপী লকডাউনের শিথিলতার বিষয়ে এক প্রজ্ঞাপন জারি করে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ। এরপর থেকেই পরিবহন খাতের দীর্ঘ স্থবিরতায় ফিরে প্রাণ-চাঞ্চল্যতা।
প্রস্তুতির অংশ হিসেবে সোমবার (৯ আগস্ট) থেকেই চলছে নানা প্রস্তুতি। সকালে রাজধানীর বাস টার্মিনালগুলো ঘুরে দেখা গেছে, শ্রমিকরা বাস ধোয়ামোছার কাছে ব্যস্ত সময় পার করছেন। পরীক্ষা-নিরীক্ষা করা হচ্ছে যন্ত্রপাতি। রং করে বাস চলাচলের প্রস্তুতি নেওয়া হচ্ছে। 

প্রজ্ঞাপন জারির পর থেকে সড়কে নামতে প্রস্তুতি নিতে শুরু করেছে পরিবহন কোম্পানিগুলো।

করোনা সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে সরকারের জারি করা কঠোর বিধিনিষেধের সময়সীমা শেষ হওয়ার এক দিন আগেই আজ সোমবার রাজধানীর সড়কে প্রচুর যানবাহন নেমেছে। বাস ছাড়া প্রায় সব ধরনের যানবাহন সড়কে চলছে। যানবাহনের চাপে রাজধানীর বিভিন্ন সড়কে স্থাপিত পুলিশ তল্লাশিকেন্দ্রগুলো অনেকটাই নিষ্ক্রিয় হয়ে গেছে। রাজধানীর বিভিন্ন সড়কে দেখা গেছে যানজট।

চলমান কঠোর বিধিনিষেধ শুরু হয় ২৩ জুলাই সকালে। চলবে কাল মঙ্গলবার দিবাগত রাত ১২টা পর্যন্ত। বুধবার থেকে শর্ত সাপেক্ষে অফিস, গণপরিবহনসহ সবকিছু খুলে দেওয়া হবে। এ বিষয়ে গতকাল রোববার আদেশ জারি করেছে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ।

প্রত্যক্ষদর্শীরা বলছেন, চলমান কঠোর বিধিনিষেধের মধ্যে আজ সকাল থেকেই রাজধানীর সড়কে যানবাহনের চলাচল অন্য দিনের তুলনায় অনেক বেড়ে গেছে। ব্যক্তিগত গাড়ির পাশাপাশি প্রচুরসংখ্যক মোটরসাইকেল, কাভার্ড ভ্যান, এমনকি সিএনজিচালিত অটোরিকশা সড়কে নেমেছে। আর রিকশা তো আছে। যানবাহনের ব্যাপক চাপে আজ সকাল থেকেই রাজধানীর বিভিন্ন সড়কে যানজট দেখা গেছে।

বিধিনিষেধের সময়সীমা শেষ হওয়ার এক দিন আগেই রাজধানীর সড়কে প্রচুর যানবাহন নেমেছে

রাজশাহী

বাঙ্গালী জাতিকে মেধাশূন্য করতে চেয়েছিল পাকিস্তানী হানাদার বাহিনী ১৪ ডিসেম্বর ২০২১ মঙ্গলবার রাজশাহীতে বাংলাদেশ সোস্যাল অ্যাক্টিভিস্ট ফোরাম রাজশাহী শাখা কর্তৃক শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস উপলক্ষ্যে শহরের বিভিন্ন সড়কে মোটরবাইক র্যালী, পথসভা ও মহান শহীদের স্মরণে রাজশাহী শহীদ বুদ্ধিজীবী স্মৃতিসৌধে শ্রদ্ধা নিবেদন করা করে। দিনব্যাপী এই কর্মসূচীতে অংশগ্রহণ করেছে বাংলাদেশ সোস্যাল অ্যাক্টিভিস্ট ফোরামের কেন্দ্রীয় প্রধান সমন্বয়ক মুফতী মাসুম বিল্লাহ নাফিয়ী,দুর্গাপুর উপজেলা কৃষক লীগের সভাপতি মুহাম্মদ রোকনুজ্জামান রোকন, আওয়ামী লীগ নেতা আব্দুল লতিফ, রাজশাহী বাংলাদেশ সোস্যাল অ্যাক্টিভিস্ট ফোরামের সমন্বয়ক আখতারউজ্জামান অভি,যুবলীগ নেতা হাবিব, মৎসজীবী লীগ নেতা শওনসহ ফোরামের বিভিন্ন স্তরের নেতৃবৃন্দ। পথসভায় নেতৃবৃন্দ বলেন, ১৯৭১ সালের ১৪ ডিসেম্বর বিজয়ের পূর্বক্ষণে বুদ্ধিজীবী হত্যার মধ্য দিয়ে বাঙ্গালী জাতিকে মেধাশূন্য করতে চেয়েছিল পাকিস্তানী হানাদার বাহিনী। পাক হায়ানারা বুঝতে পেরেছিল বাঙ্গালি জাতিকে আর ধমিয়ে রাখা যাবেনা। কারণ মুজিব বাহিনীর নেতৃত্বে মুক্তিযোদ্ধাদের সাথে সম্পৃক্ত হয়ে হয়েছে ভারতের মৈত্রী বাহিনী বন্ধ করা হয়েছে ভারতের আকাশ পথ। তাই তারা বাঙ্গালির জাতির স্বাধীনতা ও বিজয় সুনিশ্চিত জেনেই এই গণহত্যা সংঘটিত করেছিল। নৃশংস গণহত্যার শিকার হন শিক্ষক,সাহিত্যিক, সংস্কৃতিব্যক্তিত্ব ও সাংবাদিকসহ গুণীজন। নেতারা আরো বলেন, পাকিস্তান আজও বুদ্ধিজীবী হত্যার দায় স্বীকার করে বাঙ্গালি জাতির কাছে ক্ষমা চায়নি। তাই বাংলাদেশকে ভাবতে হবে পাকিস্তানের সাথে আমাদের সম্পর্ক রাখাটা কতটুকু যৌক্তিক? পাকিস্তান বাংলাদেশের বিরুদ্ধে তাদের পরাজয়ের প্রতিশোধে এখনো গভীর ষড়যন্ত্র লিপ্ত। এমনকি তাদের পেতাত্মাদেরকে দিয়ে বিভিন্ন নামে বেনামে সংগঠন সৃষ্টি করে বাঙ্গালিদের মধ্যে বিভাজন করার অপচেষ্টা করছে প্রতিনিয়ত। ধর্মের নামে করছে সাম্প্রদায়িক দাঙ্গা এবং জঙ্গী তৎপরতা। নেতারা পাকিদের এইসমস্ত অপতৎপরতার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান। সংগঠনটি শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবসে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানসহ সকল শহীদ মুক্তিযোদ্ধা এবং সম্ভ্রম হারানো পাঁচ লক্ষাধিক মা-বোন ও শহীদ বুদ্ধিজীবীদের রুহের শান্তি কামনার মাধ্যমে পথসভাসহ কর্মসূচীর ইতি করে।

বাঙ্গালী জাতিকে মেধাশূন্য করতে চেয়েছিল পাকিস্তানী হানাদার বাহিনী

বাংলাদেশে খেলতে এসে শুরুটা দুঃস্বপ্নের মতো হলো সফরকারী নিউজিল্যান্ডের। প্রথম টি-টোয়েন্টিতে বুধবার (১ সেপ্টেম্বর) বাংলাদেশের বোলারদের বিপক্ষে ব্যাট হাতে পুরোপুরি ব্যর্থ কিউই ব্যাটসম্যানরা। সাকিব-মেহেদীদের ঘূর্ণিতে শুরু থেকেই ম্যাচের নাটাই টিম টাইগার্সের হাতের মুঠোয় ছিল। ধুঁকতে ধুঁকতে শেষ পর্যন্ত কিউইদের ইনিংস থামে মাত্র ৬০ রানে।

এদিকে, ব্যাটিং বিপর্যয়ে নিজেদের সর্বনিম্ন রানের রেকর্ড স্পর্শ করেছে কিউইরা। এর আগে ২০১৪ সালে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষেও ৬০ রানে অলআউট হয়েছিল টম লাথামরা। এদিন বাংলাদেশের বোলাররা আবারো নিউজিল্যান্ডকে সেই লজ্জায় ডোবাল।

বাংলাদেশের বোলাররা ব্যাটসম্যানদের জন্য কাজটা সহজই করে দিলো। নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে প্রথম জয়ের স্বাদ পেতে হলে করতে হবে ৬১ রান।

কিউইদের সর্বনিম্ন রানের লজ্জায় ডোবাল টাইগাররা ইনিংস থামে মাত্র ৬০ রানে

পল্লবী থানায় করা টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ আইনের মামলায় গ্রেপ্তার আওয়ামী লীগের বহিষ্কৃত নেত্রী হেলেনা জাহাঙ্গীরকে জামিন দিয়েছেন আদালত। ঢাকার চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট (সিএমএম) আদালত আজ মঙ্গলবার শুনানি নিয়ে এ আদেশ দেন।

ঢাকা মহানগর পুলিশের অপরাধ ও তথ্য বিভাগের উপপরিদর্শক (এসআই) মোহাম্মদ সেলিম মিয়া প্রথম আলোকে এ তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করেন। আদালতসংশ্লিষ্ট সূত্র বলছে, গত ২৯ জুলাই রাজধানীর গুলশান থেকে বিদেশি মদসহ গ্রেপ্তার হন হেলেনা জাহাঙ্গীর।

হেলেনা জাহাঙ্গীরকে জামিন দিয়েছেন আদালত

সারা দেশে লকডাউনের বিধিনিষেধ শিথিল হওয়ায় চলবে বুধবার (১১ আগস্ট) থেকে বাস, ট্রেনসহ সব ধরনের গণপরিবহন। খুলবে দোকানপাট ও রেস্টুরেন্ট। রোববার এ বিষয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করেছে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ।

প্রজ্ঞাপন জারির পর থেকে সড়কে নামতে প্রস্তুতি নিতে শুরু করেছে পরিবহন কোম্পানিগুলো। বিক্রি হচ্ছে অগ্রিম টিকিটও। এ ছাড়া পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতার কাজে ব্যস্ত দোকান ও রেস্টুরেন্ট কর্তৃপক্ষ।

ঈদুল আজহার পর টানা ১৯ দিন কঠোর লকডাউনের বিধিনিষেধ উঠছে বুধবার থেকে। রোববার (৮ আগস্ট) দেশব্যাপী লকডাউনের শিথিলতার বিষয়ে এক প্রজ্ঞাপন জারি করে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ। এরপর থেকেই পরিবহন খাতের দীর্ঘ স্থবিরতায় ফিরে প্রাণ-চাঞ্চল্যতা।
প্রস্তুতির অংশ হিসেবে সোমবার (৯ আগস্ট) থেকেই চলছে নানা প্রস্তুতি। সকালে রাজধানীর বাস টার্মিনালগুলো ঘুরে দেখা গেছে, শ্রমিকরা বাস ধোয়ামোছার কাছে ব্যস্ত সময় পার করছেন। পরীক্ষা-নিরীক্ষা করা হচ্ছে যন্ত্রপাতি। রং করে বাস চলাচলের প্রস্তুতি নেওয়া হচ্ছে। 

প্রজ্ঞাপন জারির পর থেকে সড়কে নামতে প্রস্তুতি নিতে শুরু করেছে পরিবহন কোম্পানিগুলো।