টিকা পাওয়ার বয়সসীমা সরকার কয়েক ধাপে কমিয়ে ১৮ বছর করতে যাচ্ছে। ৮ আগস্ট থেকে ১৮ বছর বয়সী ব্যক্তিরাও টিকা পাবেন। যাঁদের জাতীয় পরিচয়পত্র (এনআইডি) নেই, তাঁরাও টিকা পাবেন। কিন্তু কীভাবে? প্রক্রিয়া কী হবে? জানা গেছে, এনআইডি ছাড়া টিকা দেওয়ার পদ্ধতি বিষয়ে তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি (আইসিটি) বিভাগ সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদের একটি পরামর্শও দিয়েছে।

১৮ বছর বয়সী ব্যক্তিদের টিকা পাওয়া নিয়ে আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ নিজেই ফেসবুকে একটি পোস্ট দেন। এ বিষয়ে আজ রোববার প্রতিমন্ত্রী প্রথম আলোকে বলেন, এনআইডি না থাকলে স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের সুপারিশপত্র নিয়ে টিকাকেন্দ্রে গিয়ে টিকা দিতে পারবেন। সুপারিশপত্র শুধু টিকার জন্য আলাদা কিছু হবে কি না, জানতে চাইলে প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘এই ফরম্যাটের বিষয়ে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় ও স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয় বলতে পারবে।’

প্রতিমন্ত্রী জানান, এনআইডি যাঁদের নেই, তাঁদের টিকা কীভাবে হবে এবং অনলাইনে নিবন্ধন করতে যাঁরা পারবেন না, তাঁরা কীভাবে টিকা পাবেন, সে বিষয়ে তাঁরা পরামর্শ দিয়েছেন। এ বিষয়ে জুনাইদ আহমেদ বলেন, নিবন্ধনের কারণে যেন টিকা থেকে কেউ বঞ্চিত না হন, এটা যখন বলা হলো, তখন ডিজিটাল নিবন্ধনের পদ্ধতিকে সমন্বয় করে নেওয়ার জন্য আইসিটি বিভাগ পরামর্শ দেয়। এর মধ্যে অন্যতম হচ্ছে অন দ্য স্পট, অর্থাৎ কেন্দ্রে গিয়েই নিবন্ধন করে টিকা দেওয়া।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, যাঁর স্মার্টফোন নেই, ইন্টারনেট–সুবিধা অথবা প্রিন্টিংয়ের সুবিধা নেই, তাঁরা কেন্দ্র গিয়ে এনআইডি দেখালে সেখানে নিবন্ধন করে টিকা দেওয়ার ব্যবস্থার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। এতে টিকার কার্ডও আলাদা করে নিতে হবে না। কেন্দ্রেই একটি কার্ড থাকবে। সেখানে নাম-ঠিকানা, টিকার তারিখ, কোন টিকা এবং পরবর্তী টিকার তারিখ উল্লেখ থাকবে। টিকার পরে কার্ড দিয়ে দেবে। তবে এভাবেই টিকা দেওয়া হবে কি না, সে বিষয়ে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়সহ সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা সিদ্ধান্ত নেবেন।

এনআইডি ছাড়া যেভাবে টিকা পাওয়া যেতে পারে

কোন দেশে গেলে কোন টিকা গ্রহন করবেন। Countries Approved Vaccine বাংলাদেশে এখন তিন ধরনের টিকা রয়েছে।মার্ডানা, ফাইজার, সিনোফার্ম। আবার ৪৫ লাখ মানুষ দুই ডোজ অক্সফোর্ড এস্টাজেনেকার টিকা গ্রহন করেছে। পছন্দ করে টিকা নেবার সুযোগ কম। কিন্তু তারপরও জানা দরকার কোন দেশ কোন ধরনের টিকার অনুমোদন দিয়েছে। কারন যদি কোন নির্দিষ্ট দেশে যাবার প্রস্তুতি আপনার থাকে তবে সেই দেশের টিকাই নেয়া উচিত। আমি তালিকাগুলো মোটামুটি কমন দেশগুলোর দিয়ে দিলাম কুয়েত: ফাইজার, জনসন, অক্সফোর্ড ইতালি: মর্ডানা, ফাইজার, জনসন, অক্সফোর্ড জর্ডান: ফাইজার, স্ফুটনিক ভি, অক্সফোর্ড, সিনোফার্ম ওমান: ফাইজার, স্পুটনিক ভি, অক্সফোর্ড, সিনোভ্যাক লবোনন: ফাইজার, স্পুটনিক ভি, কোভিশিল্ড, সিনোফার্ম টার্কি: ফাইজার, স্পুটনিক ভি, সিনোভ্যাক, করোনাভ্যাক বাহরাইন: ফাইজার, স্পুটনিক লাইট, স্পুটনিক ভি, জনসন, কোভিশিল্ড, সিনোফার্ম ইউএই: মার্ডানা , ফাইজার, স্পুটনিক ভি, অক্সফোর্ড, সিনোফার্ম কুয়তে: ফাইজার, জনসন, অক্সফোর্ড কাতার: মর্ডানা, ফাইজার সৌদি আরব: ফাইজার, অক্সফোর্ড, জনসন, সিনোফার্ম, সিনোভ্যাক, মর্ডানা

কোন দেশে গেলে কোন টিকা গ্রহন করবেন (Vaccine)

https://www.facebook.com/bm24tvofficialpage