করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন বরেণ্য গণসংগীত শিল্পী ফকির আলমগীর। আজ শুক্রবার রাত ১১টার একটু আগে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি। ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রজিউন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৭১ বছর।

ফকির আলমগীরের ছেলে মাশুক আলমগীর রাজীব তার বাবার মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করে বলেন, কোভিড ইউনিটে ভেন্টিলেশনে থাকা অবস্থায় শুক্রবার দিবাগত রাত ১০টার দিকে তার হার্ট অ্যাটাক হয়। পরে রাত ১০টা ৫৬ মিনিটে তাকে মৃত ঘোষণা করা হয়।

এর আগে ফকির আলমগীরের ছেলে জানিয়েছিলেন, সম্প্রতি কয়েক দিন ধরে জ্বর ও খুসখুসে কাশিতে ভুগছিলেন তার বাবা। এ অবস্থায় গত ১৪ জুলাই তার নমুনা পরীক্ষা করালে রিপোর্ট পজিটিভ আসে। প্রথমে চিকিৎসকের পরামর্শে বাসায় থেকে চিকিৎসা নিলেও আস্তে আস্তে অবস্থার অবনতি হয়।
মাশুক আলমগীর রাজীব আরো জানান, গত ১৬ জুলাই তাকে নিয়ে রাজধানীর বেশ কয়েকটি হাসপাতাল ঘুরে অবশেষে সৌভাগ্যক্রমে ইউনাইটেড হাসপাতালে আইসিইউ (নিবিড়ি পরিচর্যা কেন্দ্র) বেড পাওয়া যায়। সেখানেই চিকিৎসা চলছিল তার। ডায়াবেটিস ও উচ্চ রক্তচাপে ভোগা ফকির আলমগীরকে দুই ব্যাগ প্লাজমা দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু শেষ পর্যন্ত দুনিয়া ছেড়ে চলে যান তিনি।
প্রসঙ্গত, ফরিদপুর জেলার ভাঙা থানার কালামৃধা গ্রামে ১৯৫০ সালের ২১ ফেব্রুয়ারি জন্মগ্রহণ করেন ফকির আলমগীর। ১৯৭৬ সালে তিনি গড়ে তোলেন লোকপ্রিয় ঋষিজ শিল্পী গোষ্ঠী। স্বাধীনবাংলা বেতার কেন্দ্রের অন্যতম শিল্পী তিনি। সংগীতে অসামান্য অবদানের জন্য ১৯৯৯ সালে একুশে পদক পান ফকির আলমগীর।

করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন গণসংগীত শিল্পী ফকির আলমগীর

https://www.facebook.com/bm24tvofficialpage